বন্দুকের বিরুদ্ধে পুরুষাঙ্গের প্রতিবাদ!
Saturday, 27th August , 2016, 03:30 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

বন্দুকের বিরুদ্ধে পুরুষাঙ্গের প্রতিবাদ!



লাস্টনিউজবিডি, ২৭ আগস্ট, ডেস্ক:
কৃত্রিম পুরুষাঙ্গ নিয়ে বন্দুকের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেমেছে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের অস্টিন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। শত শত শিক্ষার্থী খেলনা পুরুষাঙ্গ নিয়ে মিছিল-সমাবেশ করেছে অস্টিন ক্যাম্পাসে। নারী-পুরুষ নির্বশেষে এসব শিক্ষার্থী পোস্টার, টিশার্টসহ নানান আকৃতি ও রংয়ের পুরুষাঙ্গ হাতে নিয়ে প্রতিবাদ করছেন।

সম্প্রতি বিশ্ববিদল্যায়ের ক্যাম্পাস, শ্রেণিকক্ষ, ডরেমেটরি ও বিভিন্ন ভবনে আগ্নেয়াস্ত্র (লাইসেন্স রয়েছে এমন) বহনের অনুমতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস রাজ্যের কর্তৃপক্ষ। রীতিমতো আইন পাস করে এই অনুমতি দেওয়া হয়েছে। যা গত ১ আগস্ট থেকে কার্যকর হয়েছে। নতুন এই আইনে শিক্ষার্থীদের অনেকেই খুশি। তবে অখুশি শিক্ষার্থীদের সংখ্যাই সিংগভাগ। বন্দুক বহনের অনুমতি দেওয়ার পর ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়বে বলেই দাবি তাদের। তাই কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অভিনব এ প্রতিবাদ শুরু করেছে অস্টিন ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীরা।
শিক্ষার্থীদের যুক্তি, যদি বন্দুক বহনের অনুমতি দেওয়া হয় তাহলে উন্মুক্ত পুরুষাঙ্গ নিয়েও ক্যাম্পাসে ঘুরে বেড়ানোর অনুমতি দেওয়া উচিত কর্তৃপক্ষের। কারণ, আর যাই হোক পুরুষাঙ্গ তো বন্দুকের মতো মানুষ খুন করে না!

‘ককস নট গ্লকস’ এই স্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে প্রতিবাদ কর্মসূচি সাজানো হয়েছে। এর অন্যতম আয়োজক টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের আনা লোপেজ নামের এক শিক্ষার্থী। তার মতে, ‘কর্তৃপক্ষের অবিবেচনা প্রসূত ও ক্ষতিকর সিদ্ধান্তকে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করতেই প্রতিবাদে কৃত্রিম পুরুষাঙ্গ বেছে নেওয়া হয়েছে। তাই বলে আমাদের এই প্রতিবাদকে হালকা করে দেখার উপায় নেই। আমরা জোরালোভাবেই বন্দুক আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাই। তারা যদি ক্যাম্পাসে বন্দুকের কালচার চালু করতে পারে, তাহলে আমরা ক্যাম্পাসে উন্মুক্ত সেক্স কালচার চালু করলে সমস্যা কোথায়?’

অংশগ্রহণকারীদের হাতে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার পুরুষাঙ্গ তুলে দিয়েছিলেন আয়োজকরা।

লোপেজ আরও বলেন, ‘বন্দুক আইন পাস করার ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষ যুক্তি দেখিয়েছে নিরাপত্তার। কিন্তু বন্দুক কখনই মানুষকে নিরাপত্তা দিতে পারে না। বিশেষ করে ক্যাম্পাস জীবনে এটি কখনই মঙ্গলজনক হতে পারে না। তাই বন্দুক বহন করলে শিক্ষার্থীরা নিরাপদ থাকবে কর্তৃপক্ষের এমন ভাবনা অবাস্তব ও অবান্তর। তেমনি ক্যাম্পাসে উন্মুক্ত সেক্সের প্রচলনও অবান্তর বিষয়। খেলনা পুরুষাঙ্গ নিয়ে প্রতিবাদ করে তাই আমরা মূলত অবস্তাব একটি বিষয় দিয়ে আরেকটি অবাস্তব সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করেছি। বলতে পারেন, অবাস্তব ভাবনার বিরুদ্ধে অবাস্তব চিন্তার লড়াই এটি।’

প্রতিবাদের এই পন্থাকে বলা হচ্ছে অবস্তাবের বিরুদ্ধে অবস্তাবের লড়াই।

নারী-পুরুষ নির্বিশেষে এই অভিনব প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শত শত শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এই আইনের বিরুদ্ধাচারণ করে পদত্যাগ করেছিলেন এমন শিক্ষকরাও ছিলেন সেখানে। প্রতিবাদকারীদের হাতে আয়োজকদের পক্ষ থেকে সাড়ে ৪ হাজার খেলনা পুরুষাঙ্গ তুলে দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে ছিল ‘বন্দুক মুক্ত ক্যাম্পাস’, ‘অবাস্তবের বিরুদ্ধে অবাস্তবের যুদ্ধ’, ‘ক্যাম্পাসে বন্দুক মানে শিক্ষার্থীরা নিরাপদ নয়’ ইত্যাদি জাতীয় স্লোগান লেখা প্লাকার্ড।

তবে আইন বিরোধী শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি একই সময়ে এই আইনের সমর্থকরাও মিছিল-মিটিং করেছে। যদিও তাদের সংখ্যাটা ছিল নেহাতই কম। তবে তাদের উপস্থিতি সহজেই দৃষ্টি কেড়ে নেওয়ার মতোই ছিল। কারণ, তারা প্রত্যেকেই নিজেদের লাইসেন্স করা আগ্নেয়াস্ত্র বহন করছিল সেসময়।

 

 

লাস্টনিউজবিডি/এমবি

Print Friendly, PDF & Email

You must be logged in to post a comment Login

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

আপনি কি মনে করেন বাসে আগুন দিয়ে কি সরকার পরিবর্তন করা যাবে ?

View Results

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
যুবলীগের নতুন নেতৃত্বঃ পরশের পরশ ছোঁয়ায় জেগে উঠুক কোটি তরুণ
।।মানিক লাল ঘোষ।।"আমার চেষ্টা থাকবে যুব সমাজ যেনো...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • রেলের উচ্ছেদ হওয়া ১৫০ পরিবারের পূণর্বাসন বন্দোবস্ত
  • বিরল প্রজাতির শুকুন পাখি উদ্ধার
  • চিকিৎসা সামগ্রী চুরি, হাতেনাতে ধরা খেলেন হাসপাতালের কর্মচারী

আপনি কি মনে করেন বাসে আগুন দিয়ে কি সরকার পরিবর্তন করা যাবে ?

  • না (64%, ১৪ Votes)
  • হ্যা (27%, ৬ Votes)
  • মতামত নাই (9%, ২ Votes)

Total Voters: ২২

Start Date: নভেম্বর ১৩, ২০২০ @ ২:৫৪ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

How Is My Site?

  • Good (0%, ০ Votes)
  • Excellent (0%, ০ Votes)
  • Bad (0%, ০ Votes)
  • Can Be Improved (0%, ০ Votes)
  • No Comments (100%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: নভেম্বর ১৩, ২০২০ @ ২:৫৪ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry