ধনীদের ৩০ শতাংশ হাইপারটেনশনে ভুগছেন
Wednesday, 29th June , 2016, 01:20 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

ধনীদের ৩০ শতাংশ হাইপারটেনশনে ভুগছেন



লাস্টনিউজবিডি, ২৯ জুন, নিউজ ডেস্ক: সামাজিক অস্থিরতা, অপরিকল্পিত উন্নয়ন ও জীবনযাত্রায় অস্বাভাবিক মাত্রায় পরিবর্তন— নিম্ন থেকে উচ্চবিত্ত এ সংকটের মুখোমুখি হতে হচ্ছে সবাইকে। জীবনযাপনে স্বস্তি নেই, শিক্ষা থাকলেও সচেতনতার অভাব। নেই যথোপযুক্ত কর্মসংস্থানের সুযোগ। ফলে নানা ধরনের অসঙ্গতি বাড়ছে, যার প্রভাব পড়ছে সমাজের সর্বস্তরে। অস্থিরতা, অসঙ্গতি, দুর্ভোগ আর অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের ধারাবাহিকতায় বাড়ছে উচ্চরক্তচাপ বা হাইপারটেনশনের মতো অসংক্রামক কিন্তু অকালমৃত্যুর জন্য দায়ী রোগের প্রকোপও। সমাজের সব শ্রেণীর মানুষ হাইপারটেনশনে ভুগলেও ধনীদের মধ্যেই এর প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে বেশি। এ শ্রেণীর ৩০ শতাংশের বেশি রোগটিতে ভুগছেন।

সম্প্রতি প্রকাশিত ‘হাইপারটেনশন অ্যামাং অ্যাডাল্টস ইন বাংলাদেশ: এভিডেন্স ফ্রম আ ন্যাশনাল ক্রস-সেকশনাল সার্ভে’ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। সম্পদের ভিত্তিতে শ্রেণী বিভাজন করে প্রতিবেদনটি দেখিয়েছে, বিত্ত বাড়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে হাইপারটেনশনে ভোগার হার।

প্রতিবেদনটি তৈরি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয়ের রবার্ট স্টিম্পেল কলেজ অব পাবলিক হেলথ অ্যান্ড সোস্যাল ওয়ার্কের বায়োস্ট্যাটিস্টিকস বিভাগের গবেষক মুহাম্মদ আবদুল বাকের চৌধুরী ও বোউবাকারি ইব্রাহিমোউ, সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের মো. জামাল উদ্দিন ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পপুলেশন সায়েন্স বিভাগের মো. রবিউল আলম। বায়োমেড সেন্ট্রাল নামের এক মেডিকেল জার্নালে গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়।

গবেষণা প্রতিবেদন তৈরির সময়ে বিশেষজ্ঞরা ২০১১ সালের বাংলাদেশ ডেমোগ্রাফিক অ্যান্ড হেলথ সার্ভে (বিডিএইচএস) শীর্ষক জরিপ প্রতিবেদনের তথ্য সংগ্রহ করেন। ওই জরিপে অংশ নেয়া ৩৫ বা তদূর্ধ্ব বয়সী ৭ হাজার ৮৩৯ জনের (৩ হাজার ৯৬৪ জন নারী ও ৩ হাজার ৮৭৫ জন পুরুষ) তথ্য সংগ্রহ করে এ গবেষণা প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়। গবেষণায় যাদের হূিপণ্ডের সংকোচনের সময়ে রক্তচাপ (সিসটোলিক ব্লাড প্রেশার) ১৪০ বা তার বেশি ও দুটি হূত্স্পন্দনের মাঝামাঝি সময়ে রক্তচাপ (ডায়াসটোলিক ব্লাড প্রেশার) ৯০ বা তার বেশি, তাদের হাইপারটেনশন বা উচ্চরক্তচাপে আক্রান্ত হিসেবে ধরা হয়েছে।

প্রতিবেদনে গবেষণার আওতাভুক্তদের সম্পদের ভিত্তিতে পাঁচটি দলে ভাগ করা হয়। এর মধ্যে হাইপারটেনশনে ভোগার সংখ্যা ২ হাজার ১৬। এর মধ্যে ৩০ দশমিক ৩ শতাংশ এসেছে সমাজের সবচেয়ে বিত্তশালী অংশ থেকে। সবচেয়ে দরিদ্র অংশে অসংক্রামক রোগটিতে ভোগার হার ১৪ দশমিক ২ শতাংশ। তুলনামূলক কম দরিদ্র অংশের মধ্যে হাইপারটেনশনে ভোগার হার ১৬ দশমিক ২ শতাংশ ও মধ্যবিত্ত অংশে ১৭ দশমিক ২ শতাংশ। একটু কম বিত্তবান অংশের মধ্যেও হাইপারটেনশনের ব্যাপকতা রয়েছে। সমাজের এ অংশে হাইপারটেনশনে ভোগা মানুষ ২২ দশমিক ২ শতাংশ।

দেশের ধনীদের মধ্যে হাইপারটেনশনে আক্রান্তের হার বেশি হওয়ার কারণ হিসেবে অপর্যাপ্ত কায়িক শ্রম ও খাদ্যাভ্যাসকেই প্রধান কারণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সামাজিক অস্থিরতাও এর বড় একটি কারণ বলে মনে করছেন তারা।

হাইপারটেনশনকে ‘লাইফস্টাইল ডিজিজ’ আখ্যায়িত করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মনিরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, ‘অর্থ-সম্পদের পেছনে ছুটতে গিয়ে উচ্চবিত্তরা এমনিতেই অনেক মানসিক চাপের মধ্যে থাকেন। এ চাপের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তাদের ব্যক্তিগত জীবনও। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পারিবারিক সম্পর্কের দৃঢ়তা বা নিরাপত্তা, যা সৃষ্টি করছে বাড়তি মানসিক চাপ। এর সঙ্গে অপর্যাপ্ত কায়িক পরিশ্রম ও অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস তো আছেই।

উচ্চবিত্তের মধ্যে হাইপারটেনশনের ব্যাপকতা বৃদ্ধির কারণ হিসেবে মানসিক চাপ ও নগরজীবনের নানা সংকটকেই চিহ্নিত করলেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও অর্থনীতিবিদ হোসেন জিল্লুর রহমান। তিনি বলেন, মূলত অপরিকল্পিত ও উচ্ছৃঙ্খল উন্নয়নের ফল হিসেবেই এটা ঘটছে। এ ধরনের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় এ শ্রেণীর জীবনযাপনে খাওয়া-দাওয়াসহ নানা পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে। এটা এক অর্থে অপ্রত্যাশিতও নয়।

হাইপারটেনশনের অঞ্চলভিত্তিক ব্যাপকতার চিত্রও উঠে এসেছে ‘হাইপারটেনশন অ্যামাং অ্যাডাল্টস ইন বাংলাদেশ: এভিডেন্স ফ্রম আ ন্যাশনাল ক্রস-সেকশনাল সার্ভে’ শীর্ষক প্রতিবেদনে। প্রতিবেদন অনুযায়ী, আঞ্চলিক ভিত্তিতে বিভাজনে ঢাকা বিভাগের বাসিন্দাদের মধ্যে হাইপারটেনশনে আক্রান্তের হার সবচেয়ে বেশি। হাইপারটেনশনে আক্রান্তদের মধ্যে ৩৩ দশমিক

৭ শতাংশই ঢাকা বিভাগের অধিবাসী। খুলনা বিভাগে এ হার ১৫ দশমিক ৩ শতাংশ। তৃতীয় স্থানে থাকা চট্টগ্রাম বিভাগে হাইপারটেনশনে আক্রান্তের হার ১৪ দশমিক ৫ শতাংশ। অসংক্রামক রোগটিতে সবচেয়ে কম আক্রান্ত হচ্ছে সিলেট বিভাগের লোকজন। এ বিভাগের মাত্র ৪ দশমিক ৬ শতাংশ মানুষ হাইপারটেনশনে ভোগেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. সৈয়দ আবদুল হামিদ বলেন, দেশে সামাজিক অস্থিরতা হাইপারটেনশনের ব্যাপকতা বৃদ্ধির অনেক বড় একটি কারণ। বিশেষ করে নগরজীবনে এ অস্থিরতা অনেক বেশি। একজন অফিসমুখী যাত্রী ঘর থেকে সময়মতো বের হলেও তিনি জানেন না, সময়মতো অফিসে পৌঁছতে পারবেন কিনা। রাস্তায় বের হলে হাঁটার সুযোগও কম, ফুটপাত নেই। খেলার মাঠ কমে গেছে, নগরের পার্কগুলোয়ও যথাযথ পরিবেশ নেই। এতসব অস্থিরতার পাশাপাশি খেলাধুলা, হাঁটাচলা বা শারীরিক শ্রমের সুযোগ কম বলেই নাগরিক জীবনে হাইপারটেনশনের ঝুঁকি বাড়ছে।

বিত্তবানদের মধ্যে হাইপারটেনশনে আক্রান্তের হার বেশি হওয়ার কারণ হিসেবে তিনি বলেন, বিত্তবানদের মধ্যে কায়িক শ্রমের প্রবণতা এমনিতেই অনেক কম। পাশাপাশি অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাসও উচ্চবিত্তদের হাইপারটেনশনে আক্রান্তের ঝুঁকি বাড়াচ্ছে।

লিঙ্গভেদে হাইপারটেনশনে আক্রান্তের চিত্রও উঠে এসেছে প্রতিবেদনে। পুরুষের তুলনায় নারীদের মধ্যে রোগটিতে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বেশি।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, হাইপারটেনশনে আক্রান্তদের ৬২ দশমিক ৬ শতাংশই নারী। এ হিসাবে পুরুষের মধ্যে রোগটিতে আক্রান্তের হার ৩৭ দশমিক ৪ শতাংশ।

এর কারণ হিসেবে ড. হামিদ বলেন, নারীদের মধ্যে স্থূলতার হার একটু বেশি। এছাড়া সামাজিক ও শিক্ষা খাতের অস্থিরতাও নারীদের মধ্যে হাইপারটেনশনের প্রকোপ বেশি হওয়ার একটি কারণ। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, শিশুর স্কুলে সময়মতো যাওয়া থেকে শুরু করে পরীক্ষার ফল নিয়ে নারীদের মধ্যেই সবচেয়ে বেশি দুশ্চিন্তা ও অস্থিরতা দেখা যায়। এ দুশ্চিন্তা ও অস্থিরতার ফলে সৃষ্ট মানসিক চাপ থেকেই জন্ম নেয় হাইপারটেনশন।

অন্যদিকে এ বিষয়ে হোসেন জিল্লুর রহমান বলেন, নাগরিক জীবনযাপনে পরিবার কাঠামোয় যে পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে, তার ধাক্কাটা মূলত নারীদের ওপরই বেশি পড়ছে। অর্থাত্ চাপটা সবচেয়ে বেশি পড়ছে নারীদের ওপর। ফলে আমরা দেখতে পাচ্ছি নারীদের মধ্যে এ রোগে আক্রান্তের হার বেশি।

চিকিত্সা বিশেষজ্ঞদের ভাষায়, রক্তনালিকার মধ্য দিয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্ত সরবরাহ হয় হূিপণ্ডের সংকোচন ও প্রসারণের মাধ্যমে। এ রক্তপ্রবাহ চলাকালে ধমনিগাত্রে এক ধরনের চাপ তৈরি হয়, যাকে বলা হয় রক্তচাপ। এ রক্তচাপ যখন স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি হয়, তখন তাকে বলা হয় উচ্চরক্তচাপ বা হাইপারটেনশন। বর্তমানে বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে মারাত্মক অসংক্রামক ব্যাধিগুলোর অন্যতম হাইপারটেনশন। উচ্চরক্তচাপে আক্রান্তদের মধ্যে হূদরোগ, স্ট্রোক, কিডনি অকেজো হয়ে যাওয়া, শারীরিক অক্ষমতা ও অকালমৃত্যুর ঝুঁকি অনেক বেশি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) তথ্যমতে, বিশ্বব্যাপী প্রতি বছর হূদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন ১ কোটি ৭০ লাখ মানুষ। এর মধ্যে অন্তত ৯৪ লাখের মৃত্যুর জন্য দায়ী হাইপারটেনশন। এছাড়া ২০২৫ সালে বিশ্বব্যাপী হাইপারটেনশনে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা মোট জনসংখ্যার ২৯ শতাংশে দাঁড়াতে পারে বলেও পূর্বাভাস দিয়েছে সংস্থাটি।

ডব্লিউএইচওর হিসাব অনুযায়ী, উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে হূদরোগজনিত মৃত্যুর অন্তত ৮০ শতাংশের জন্য দায়ী হাইপারটেনশন। আর উন্নয়নশীল দেশের নাগরিক হিসেবে বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। সাধারণত যুক্তরাষ্ট্রের মতো উন্নত দেশগুলোয় হাইপারটেনশনের প্রাদুর্ভাব বেশি দেখা গেলেও, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোয়ও এর প্রকোপ বাড়ছে। অপরিকল্পিত নগরায়ণ, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস, সামাজিক নানামুখী চাপ ও জীবনমানে পরিবর্তনের কারণে বর্তমানে বাংলাদেশেও হাইপারটেনশনের ব্যাপকতা বাড়ছে।

 

 

লাস্টনিউজবিডি/এমবি

Print Friendly, PDF & Email

মতামত দিন

মতামত দিন

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

করোনার বুলেটিন না প্রকাশের সাথে আপনি কি একমত ?

ফলাফল দেখুন

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
বাংলাদেশ-মিয়ানমার : সামরিক শক্তিতে কে এগিয়ে?
বাংলাদেশ-মিয়ানমারের মধ্যে কখনো সরাসরি যুদ্ধ না বা...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে বৃদ্ধকে হত্যা!
  • মুখে গামছা বেঁধে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ!
  • হিলি স্থলবন্দরে ৬ দিন আমদানি-রপ্তানি বন্ধ

করোনার বুলেটিন না প্রকাশের সাথে আপনি কি একমত ?

  • মতামত নাই (12%, ১১ Votes)
  • হ্যা (31%, ২৮ Votes)
  • না (57%, ৫১ Votes)

Total Voters: ৯০

করেনার বুলেটিন না প্রকাশের সাথে আপনি কি একমত ?

  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)
  • হ্যা (0%, ০ Votes)
  • না (100%, ০ Votes)

Total Voters:

ঈদ উদযাপনের চেয়ে বেঁচে থাকার লড়াইটা এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আপনি কি একমত ?

  • মতামত নাই (12%, ১৪ Votes)
  • না (16%, ১৯ Votes)
  • হ্যা (72%, ৮৬ Votes)

Total Voters: ১১৯

ত্রাণ নিয়ে সমালোচনা না করে হতদরিদ্রদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর, এই আহবানের সাথে কি আপনি একমত ?

  • মতামত নাই (4%, ২ Votes)
  • না (16%, ৮ Votes)
  • হ্যা (80%, ৪১ Votes)

Total Voters: ৫১

যাদের প্রচুর টাকা-পয়সা, ধন-দৌলতের অভাব নেই তারা কীভাবে আন্দোলন করবে? বিএনপির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদের। আপনি কি এই মন্তব্যের সাথে একমত ?

  • মতামত নাই (15%, ১০ Votes)
  • না (21%, ১৪ Votes)
  • হ্যা (64%, ৪৪ Votes)

Total Voters: ৬৮

বিএনপির কর্মীরা নেতাদের প্রতি আস্থা হারিয়েছেন,জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রবের বক্তব্যের সাথে আপনি কি একমত ?

  • মন্তব্য নেই (21%, ৩ Votes)
  • না (21%, ৩ Votes)
  • হ্যা (58%, ৮ Votes)

Total Voters: ১৪

অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে বিএসটিআই‌‌‍‍র এখন গতিশীল ফিরে এসেছে এই কথার সাথে কি আপনি একমত ?

  • হ্যা (14%, ১ Votes)
  • একমত না (29%, ২ Votes)
  • না (57%, ৪ Votes)

Total Voters:

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠ হবে বলে আপনি কি মনে করেন ?

  • মতামত নেই (13%, ৬ Votes)
  • না (43%, ২০ Votes)
  • হ্যা (44%, ২১ Votes)

Total Voters: ৪৭

দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শক্ত অবস্থান নিয়েছেন। এজন্য তার অনেক আত্মীয়-স্বজনকে গণভবনে ঢোকা বন্ধ করে দিয়েছেন। আপনি কি এই পদক্ষেপ সমর্থন করছেন?

  • মন্তব্য নাই (11%, ১১ Votes)
  • না (16%, ১৭ Votes)
  • হ্যা (73%, ৭৬ Votes)

Total Voters: ১০৪

১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, খাদ্যের মতো রাজনীতিতেও ভেজাল ঢুকে পড়েছে। আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিন ক্ষমতায় তাই এখানেও কিছু ভেজাল প্রবেশ করেছে। আপনি কি এই মন্তব্যের সাথে একমত ?

  • মন্তব্য নাই (2%, ৩ Votes)
  • না (8%, ১২ Votes)
  • হ্যা (90%, ১২৮ Votes)

Total Voters: ১৪৩

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেছেন, বিএনপি একটি বট গাছ, এ গাছ থেকে দু’একটি পাতা ঝড়ে পরলে বিএনপির কিছু যাবে আসবে না , এ মন্তব্যের সাথে কি আপনি একমত ?

  • মতামত নেই (7%, ৩ Votes)
  • না (29%, ১২ Votes)
  • হ্যা (64%, ২৭ Votes)

Total Voters: ৪২

অনেক এনজিও অসৎ উদ্দেশ্যে রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করছে বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। আপনি কি এই মন্তব্যের সাথে একমত ?

  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)
  • না (19%, ৬ Votes)
  • হ্যা (81%, ২৫ Votes)

Total Voters: ৩১

ডাক্তারদের ফি বেধে দেয়ার সরকারের পরিকল্পনার সাথে আপনি কি একমত?

  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (6%, ২ Votes)
  • হ্যা (94%, ৩০ Votes)

Total Voters: ৩২

দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়তে মন্ত্রীসভায় প্রধানমন্ত্রী যে চমক এনেছেন তাতে কি আপনি খুশি ?

  • মতামত নাই (15%, ৫ Votes)
  • না (24%, ৮ Votes)
  • হ্যা (61%, ২১ Votes)

Total Voters: ৩৪

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠ ,নিরপেক্ষ হয়েছে বলে আপনি মনে করেন ?

  • হা (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (100%, ০ Votes)

Total Voters:

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠ ,নিরপেক্ষ হয়েছে বলে আপনি মনে করেন ?

  • মন্তব্য নাই (9%, ২ Votes)
  • হ্যা (18%, ৪ Votes)
  • না (73%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২২

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে বলে আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (5%, ২ Votes)
  • হ্যা (34%, ১৫ Votes)
  • না (61%, ২৭ Votes)

Total Voters: ৪৪

একবার ভোট বর্জন করায় অনেক খেসারত দিতে হয়েছে মন্তব্য করে আর নির্বাচন বয়কটের আওয়াজ না তুলতে জোট নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি কামাল হোসেন, আপনি কি একমত ?

  • মতামত নাই (3%, ১ Votes)
  • না (6%, ২ Votes)
  • হা (91%, ৩২ Votes)

Total Voters: ৩৫

সংলাপ সফল হবে বলে আপনি মনে করেন ?

  • হা (13%, ২ Votes)
  • মতামত নাই (13%, ২ Votes)
  • না (74%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

  • মতামত নাই (7%, ৭ Votes)
  • না (23%, ২৩ Votes)
  • হ্যা (70%, ৭১ Votes)

Total Voters: ১০১

অাপনি কি কোটা সংস্কারের পক্ষে ?

  • মতামত নেই (3%, ১ Votes)
  • না (8%, ৩ Votes)
  • হ্যা (89%, ৩৩ Votes)

Total Voters: ৩৭

খালেদা জিয়ার মামলা লড়তে বিদেশি আইনজীবীর কোন প্রয়োজন নেই' বিএনপি নেতা আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের সাথে - আপনিও কি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ১ Votes)
  • না (27%, ৩ Votes)
  • হ্যা (64%, ৭ Votes)

Total Voters: ১১

আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিদেশিদের কোনো উপদেশ বা পরামর্শের প্রয়োজন নেই বলে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্য যৌক্তিক বলে মনে করেন কি?

  • মতামত নাই (7%, ১ Votes)
  • হ্যা (20%, ৩ Votes)
  • না (73%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব) অলি আহমাদ বলেন, এরশাদকে খুশি করতে বেগম জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের জেলখানায় নেয়া হয়েছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

  • মতামত নাই (8%, ৫ Votes)
  • না (27%, ১৬ Votes)
  • হ্যা (65%, ৩৮ Votes)

Total Voters: ৫৯

আপনি কি মনে করেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহন করবে ?

  • না (13%, ৫৪ Votes)
  • হ্যা (87%, ৩৬২ Votes)

Total Voters: ৪১৬

আপনি কি মনে করেন বিএনপির‘র সহায়ক সরকারের রুপরেখা আদায় করা আন্দোলন ছাড়া সম্ভব ?

  • হ্যা (32%, ৪৫ Votes)
  • না (68%, ৯৫ Votes)

Total Voters: ১৪০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি সম্পূর্ণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপরে নির্ভরশীল, এ বিষয়ে অাপনার মন্তব্য কি ?

  • মন্তব্য নাই (7%, ২ Votes)
  • হ্যা (26%, ৭ Votes)
  • না (67%, ১৮ Votes)

Total Voters: ২৭

আপনি কি মনে করেন নির্ধারিত সময়ের আগে আগাম নির্বাচন হবে?

  • মন্তব্য নাই (7%, ১০ Votes)
  • হ্যা (31%, ৪৬ Votes)
  • না (62%, ৯১ Votes)

Total Voters: ১৪৭

হেফাজতকে বড় রাজনৈতিক দল বানানোর চেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। আপনি কি তার সাথে একমত?

  • মতামত নাই (10%, ৩ Votes)
  • না (34%, ১০ Votes)
  • হ্যা (56%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২৯

“আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে দেশে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা কমে যাবে ”সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সাথে কি অাপনি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ৩ Votes)
  • না (32%, ১১ Votes)
  • হ্যা (59%, ২০ Votes)

Total Voters: ৩৪

আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে যারা সংগঠনের নামে দোকান খুলে বসেছে, তাদের ধরে ধরে পুলিশে দিতে হবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের আপনার প্রতিক্রিয়া কি ?

  • মতামত নাই (7%, ৩ Votes)
  • না (10%, ৪ Votes)
  • হ্যা (83%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৪২

ড্রাইভাররা কি আইনের উর্ধে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • হ্যা (14%, ৭ Votes)
  • না (84%, ৪৩ Votes)

Total Voters: ৫১

সার্চ কমিটিতে রাজনৈতিক দলের কেউ নেই- ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?

  • মতামত নাই (5%, ৩ Votes)
  • হ্যা (31%, ১৭ Votes)
  • না (64%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৫৫