Tuesday, 14th September , 2021, 04:11 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

ভালবাসার সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার মেজিক টিপস


লাস্টনিউজবিডি, ১৪ সেপ্টেম্বর: সম্পর্ক একটি ক্ষুদ্র শব্দ হলেও এর মাহাত্ম্য এতটাই মধুর যা একে অপরকে এক অবিচ্ছেদ্য অদৃশ্য বন্ধনে আবদ্ধ করে রাখে। বিশাল এই বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ডের প্রত্যেকটিই প্রত্যেকটির সঙ্গে সম্পর্কে র বন্ধনে যুক্ত হয়ে আছে। আমাদের মানব জগতেও আমরা একে অন্যের সঙ্গে ভালোবাসার সম্পর্ক কখনো বা কারোর সঙ্গে বা মন্দবাসার সম্পর্কে জড়িয়ে আছি। কিন্তু আপনি চাইলেই আপনাদের ভালোবাসার সম্পর্ককে সহজেই টিকিয়ে রাখতে পারেন সামান্য বিষয় মাথায় রেখে।

তাহলে চলুন দেখে নেয়া যাক কিভাবে গভীর করা যায় ভালোবাসার সম্পর্কটিকে

নিজের ভেতরের কোমলতা প্রকাশ করুন
আপনি যাকে ভালোবাসেন তার সামনে নিজের ভেতরের কোমল অংশটা দেখাতে কোনো ধরণের বাঁধা নেই। এতে বরং আপনি তাকে কতোটা বেশি ভালোবাসেন তা প্রকাশ হয়। একটু ভালো করে কথা বলা, তার মতামতের গুরুত্ব দেয়া, তার পছন্দের অপছন্দের খোঁজখবর রাখা আপনার সম্পর্ককে আরও বেশি গভীর করে তোলে। তাই যতোটা সম্ভব ভালো ব্যবহার করুন ভালোবাসার মানুষটির সাথে।

বিশ্বাস ভাঙবেন না
সম্মান ও শ্রদ্ধা ছাড়াও পারস্পরিক বিশ্বাসের মাধ্যমে ভালোবাসা গড়ে ওঠে। আপনি যদি আপনার প্রেমিক বা প্রেমিকাকে বিশ্বাস করতে না পারেন, তাহলে বিষয়টি নিয়ে আরো গভীরভাবে ভেবে দেখতে পারেন। গভীর সম্পর্কে যাওয়ার আগে সেটার ইতি টানাও সেক্ষেত্রে ভালো হতে পারে। সম্পর্ক হবে পরিপূর্ণভাবে খোলামেলা, বিশ্বাসযোগ্য ও সহযোগিতামূলক। পরস্পরের মধ্যে বিশ্বাসের অভাব থাকলে সুসম্পর্ক নষ্ট হবে। বিশ্বাসের অভাব থাকলে বিষয়টিকে অকারণে টেনে নেওয়া বা প্রশ্রয় দেওয়া উচিত নয়।

সন্দেহ প্রবণতা ভুলে যান
অনেকে বলেন সন্দেহ ভালোবাসা প্রকাশ করে। এটি অনেক বড় একটি ভুল কথা। সন্দেহ প্রবণতা ভালোবাসা প্রকাশ করে না বরং ভালোবাসার সম্পর্কে ভাঙন ধরিয়ে দেয়। মনের ভেতর সামান্য সন্দেহ পোষণ করা একটি সম্পর্কের জন্য কোনোভাবেই ভালো হতে পারে না। সন্দেহ থাকলে ভালোবাসা কমে যায়। তাই সন্দেহ করা একেবারে ভুলে যান। আপনি যদি আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে বিশ্বাস করেন তবে আপনাদের সম্পর্কে আসবে গভীরতা।

একে অপরের প্রতি যত্নশীল হউনঃ
ভালোবাসার অর্থ একে অন্যের প্রতি যত্নশীল হওয়া। বিষয়টি বেশ সাধারণ। পেশাজীবনে আমরা বেশিরভাগ সময় অফিসে থাকি। কিন্তু দূরে থাকলেও প্রেমিক বা প্রেমিকার একটু খোঁজ-খবর নিলেই যত্নশীলতার বিষয়টি প্রকাশ পায়। কিন্তু আপনি যদি দীর্ঘসময় তার খোঁজ না রাখেন বা যত্নশীল না হন- তাহলে আপনার সম্পর্কে ভাটা পড়বে। তাই যথাসম্ভব একে অপরের প্রতি যত্নশীল হোন।

ক্ষমা করুন
মানুষ মাত্রই ভুল হয়। ভুল মনে না রেখে ক্ষমা করার চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন আপনি নিজেও ভুলের উর্ধ্বে নন। তাহলে সঙ্গীকে ক্ষমা করতে দোষ কী? ক্ষমা একটি সম্পর্কে মজবুত করে তুলে।

প্রশংসা করুন
প্রশংসা কে না পছন্দ করে, বলুন? আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনীও এর ব্যতিক্রম নয়। ধন্যবাদ দিন, প্লিজ বলুন তা যত ছোট কাজই হোক না কেন। আপনার একটি ছোট ধন্যবাদ বা প্রশংসা বাক্য আপনাদের সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী করবে.

পরিস্থিতি বুঝে কথা বলুন
ভালোবাসার সম্পর্কে সামান্য একটি কথা অনেক বেশি মূল্য রাখে। তাই কোনো সময় কী ধরণের কথা বলছেন তা বুঝে নিয়ে কথা বলার চেষ্টা করুন। কোনো কথা বলার আগে বুঝে নিন এই পরিস্থিতিতে এই ধরনের কথা বলা কি আসলেই উচিৎ হবে কিনা। অথবা কখন কোন সময় কথা বলা থামিয়ে দেয়া উচিৎ তা বোঝার বুদ্ধি রাখুন। কমনসেন্সের ব্যবহার যাদের ভালো তারা সকলের কাছেই বেশ জনপ্রিয়। মনে রাখবেন সামান্য কথা থেকেই অনেক বড় ধরণের ঝগড়ার সূত্রপাত হতে পারে। তাই ভালো বাসার সম্পর্ক গভীর করতে পরিস্থিতি বুঝে কথা বলাই ভালো।

আশা কম করুন
আশা সকল কষ্টের মূল। বলতে গেলে বেশি আশা করা অনেক বড় একটি ভুল। কারন আপনি যা আশা করেন কিংবা আপনি যা চিন্তা করে রেখেছেন তা আপনার ভালোবাসার মানুষটি করতে পারবে এমন কোনো কথা নেই। যদি আপনি মনে করেন তাকে তা করতেই হবে তাহলে আপনি তাকে ভালোবাসতে পারেননি। আশা রাখা ভালো কিন্তু অতিরিক্ত আশা করা সম্পর্কে আনতে পারে টানাপোড়ন। আশা পূরণ না হলে কষ্টের মাত্রা বাড়ে যার প্রভাব পরে সম্পর্কে। তাই আশা করা কমিয়ে দিন। যা হবে ভালোর জন্যই হবে এই ধরণের চিন্তা রাখুন মনে।

ভালোবাসার মানুষটি যেমন তাকে সেভাবেই গ্রহণ করুন
বেশিরভাগ ভালোবাসার সম্পর্কে ভাঙনের কারন খতিয়ে দেখা যায় যে কোন এক পক্ষ নিজের ভালোবাসার মানুষটির মধ্যে পরিবর্তন আনতে চান, আর সেকারণেই ঘটে মনোমালিন্য। যার ফলে ভালোবাসার সম্পর্কে আসে ভাঙ্গন। কিন্তু একটিবার ভেবে দেখুন আপনি যাকে ভালোবাসছেন তার নিশ্চয়ই কোনো বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা আপনার চোখে ধরা পরেছে। আপনি যদি তাকে পরিবর্তন করতে যান তবে তাকে আপনি কোন ধরণের ভালোবাসা বলবেন। প্রতিটি মানুশ নিজস্ব সত্ত্বায় আলাদা। তাকে তার মতো করেই গ্রহন করুন। পরিবর্তন হওয়ার থাকলে তা আপনাআপনিই হবে আপনার কিছুই করতে হবে না।

লাস্টনিউজবিডি/নাদির

সর্বশেষ সংবাদ

আপনার মতামত দিন
Print Friendly, PDF & Email
youtube
app
পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

অ্যালার্জি আছে এমন কারো করোনা টিকা নেওয়া উচিত নয় বলেছেন ব্রিটেনের নিয়ন্ত্রক সংস্থা এমএইচআরএ। আপনি কি এর সাথে একমত?

View Results

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
আফগানদের মানুষও হতে হবে
।।মনজুরুল আহসান বুলবুল।। ১. বাংলাদেশে একটু...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • বাসর রাতে দুলাভাইয়ের বিছানায় নববধূ
  • মধ্যযুগীয় কায়দায় জামাইকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, শ্বাশুড়ি গ্রেফতার
  • একই স্কুলের ৫ ছাত্রী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত

অ্যালার্জি আছে এমন কারো করোনা টিকা নেওয়া উচিত নয় বলেছেন ব্রিটেনের নিয়ন্ত্রক সংস্থা এমএইচআরএ। আপনি কি এর সাথে একমত?

  • হ্যা (60%, ১০৩ Votes)
  • না (26%, ৪৪ Votes)
  • মতামত নাই (14%, ২৪ Votes)

Total Voters: ১৭১

Start Date: ডিসেম্বর ৯, ২০২০ @ ৮:২১ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচি মনে করেন আসন্ন ‘বড় দিন’ মহামারির জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। আপনি কি তার এই মন্তব্যকে যথাযোগ্য মনে করেন?

  • হ্যা (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (100%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ৮, ২০২০ @ ২:০৩ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

জার্মানির বার্লিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গেছে, নাক দিয়েও মস্তিস্কে করোনা হানা দেয়। আপনি কি মনে করেন মস্তিস্কে করোনার আক্রমণ রক্ষার্থে মাস্ক ই যথেষ্ট?

  • হ্যা (75%, ৬ Votes)
  • না (13%, ১ Votes)
  • মতামত নাই (12%, ১ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ২, ২০২০ @ ৩:১৯ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

মডার্নার, ফাইজারের করোনা ভাইরাসের টিকার মধ্যে মডার্নার টিকার উপর কি আপনার আস্থা বেশি ?

  • মতামত নাই (100%, ১ Votes)
  • হ্যা (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ২, ২০২০ @ ৯:১৯ পূর্বাহ্ন
End Date: No Expiry

মার্কিন টিকা প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান মডার্নার দাবি করেছেন অত্যধিক ঝুঁকিপূর্ণ রোগীর ওপর এ টিকা ১০০ শতাংশ কাজ করেছে। আপনি কি শতভাগ ফলপ্রসু মনে করেন?

  • হ্যা (100%, ১ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ১, ২০২০ @ ১২:৫১ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

 Page ১ of ২  ১  ২  »