অটোমোবাইলের খুচরা যন্ত্রাংশ শুল্কমুক্ত করার দাবী বামার (ভিডিও)
Tuesday, 23rd June , 2020, 04:20 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

অটোমোবাইলের খুচরা যন্ত্রাংশ শুল্কমুক্ত করার দাবী বামার (ভিডিও)



লাসনিউজবিডি, ২৩ জুন: দেশীয় শিল্পের সুরক্ষার স্বার্থে সরকারের কাছে বেশ কিছু দাবি পেশ করেছে বাংলদেশ অটোমোবাইল ম্যানুফ্যাকচারারস অ্যাসোসিয়েশন (বামা)। এসব দাবির মধ্যে রয়েছে, ভিন্ন নামে বিদেশি লাইট ট্রাকের রেজিস্ট্রেশন বন্ধ করা, স্পেয়ার পার্টস আমদাই শুল্কমুক্ত করা অন্যতম।

২৩ জুন মঙ্গলবার বিকেলে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি তুলে ধরেন সংগঠনের প্রেসিডেন্ট আবদুল মাতলুব আহমাদ।

বক্তব্য রাখেন, সদ্যসাবেক প্রেসিডেন্ট হাফিজুর রহমান খান, ভাইস প্রেসিডেন্ট তাসকীন আহমেদ এবং জয়েন্ট সেক্রেটারি মিসেস সোহানা রউফ চৌধুরী।

বামা-র প্রেসিডেন্ট আবদুল মাতলুব আহমাদ দেশে টু হুইলার, থ্রি হুইলার, বাস, ট্রাক ও পিক-আপ নির্মাণ শিল্পের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ তুলে ধরে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, সরকারের নীতিগত সহযোগিতা পেলে আমরা নিকট-ভবিষ্যতে দুই ও তিন চাকার গাড়ি, বাস, ট্রাক, মিনিবাস এমনকি ইলেক্ট্রিক গাড়ি পর্যন্ত দেশেই নির্মাণ ও রফতানি করতে সক্ষম হবো। এ লক্ষ্যে আমরা গত জানুয়ারি মাস থেকেই এ২আই ল্যাব এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের সাথে অবিরাম কাজ করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন ২০২০ সালকে ‘লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং ইয়ার’ ঘোষণা করেছেন, তখন চীন থেকে আসা লাইট ট্রাকগুলোকে এ দেশে ‘পিক আপ’ নামে রেজিস্ট্রেশন করা হচ্ছে। দেশীয় শিল্পের স্বার্থে এটা এখনই বন্ধ করা প্রয়োজন।

আবদুল মাতলুব আহমাদ বলেন, কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে ডলারের সঙ্কট তৈরী হবে এবং এ কারণে নতুন গাড়ি আমদানিও বিঘ্নিত হতে পারে। তাই হাতে থাকা গাড়িগুলোই যাতে কমপক্ষে আগামী দুই বছর পর্যন্ত ব্যবহার করা যায়, সেজন্য চলতি অর্থবছরে যত ধরনের স্পেয়ার পার্টস আমদানি হবে, সবগুলোই শুল্কমুক্ত করা হোক।

ভিডিও লিঙ্কে ক্লিক করে দেখুন

https://www.youtube.com/watch?v=uQj3WVImQPE

বামা-র সদ্যসাবেক প্রেসিডেন্ট হাফিজুর রহমান খান দেশের আর্থ-সামাজিক বাস্তবতায় মোটর সাইকেলের গুরুত্ব তুলে তাঁর বক্তব্যে বলেন, এখন দেশে মোটর সাইকেল শুধু উৎপাদনই হচ্ছে না, বিদেশে রফতানিও হচ্ছে, আনছে মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা। সরকার এ খাত থেকে প্রতি বছর শুল্ক, কর ও ভ্যাট বাবদ প্রায় ২,০০০ কোটি টাকা আয় করে থাকে।

তিনি গ্রামীণ জনপদে পরিবহণের ক্ষেত্রে থ্রি হুইলারের অবদান তুলে ধরে বলেন, বর্তমানে দেশে বিভিন্ন ধরনের ১৪ লাখ থ্রি হুইলার চলাচল করলেও এগুলোর রেজিস্ট্রেশন উন্মুক্ত না থাকায় ওসব থ্রি হুইলারের ৯০ ভাগই অবৈধ। এগুলোর রেজিস্ট্রেশন উন্মুক্ত করার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, তাহলে রেজিস্ট্রেশন ফি বাবদ সরকার বছরে ২,০০০ কোটি টাকা আয় করতে পারে। আর তখন দেশেই থ্রি হুইলার উৎপাদনও উৎসাহিত হবে।

বামা-র ভাইস প্রেসিডেন্ট তাসকীন আহমেদ তাঁর বক্তব্যে তৈরী পোশাকশিল্প থেকে শুরু করে খাদ্য, ওষুধ এবং দৈনন্দিন চাহিদার সব পণ্য পরিবহণে তথা দেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে ট্রাকের গুরুত্ব তুলে ধরেন। তিনি জানান, ট্রাক আমদানি খাত থেকে শুল্ক ও ভ্যাট বাবদ সরকার প্রতি বছর আড়াই হাজার কোটি টাকার বেশি অর্থ আয় করে থাকে।

বামা-র জয়েন্ট সেক্রেটারি মিসেস সোহানা রউফ চৌধুরী তাঁর বক্তব্যে বর্তমান মহামারী পরিস্থিতিতেও দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখার কার্যকর উদ্যোগ নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর সরকারের প্রশংসা করেন। তিনি দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও জনগণের কর্মসংস্থানে গণপরিবহন তথা বাস-মিনিবাসের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে বলেন, আজ দেশে বিশ্বের সবচাইতে উন্নত মডেলের এসি বাস, আর্কিলুটেট বাস ও এয়ার সাসপেনশন বাস যাত্রীদের আরামদায়ক ও গতিশীল সেবা নিশ্চিত করছে।

বামার সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ এর সংবাদ সম্মেলনের পুরো বক্তব্য পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো—–

বিস্মিল্লাহির রাহমানির রাহিম

আস্সালামু আলাইকুম, ইলেকট্রনিক এবং প্রিন্ট মিডিয়ার সদস্যদের করোনাকালীন সময়ে উপস্থিত হওয়ার জন্য আপনাদের আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ এবং আপনাদের সুস্বাস্থ্য কামনা করছি। স্বাধীনতার পর থেকে আমাদের দেশের অগ্রযাত্রায় জাতির পিতার অনুপ্রেরণা এবংদিক নির্দেশনা অনুসরণ করে, আমরা ধীরে ধীরে একটি আমদানিি নর্ভর কৃষিভিত্তিক অর্থনীতি থেকে একটি প্রতিযোগিতামূলক বৈশ্বিক বাজারে উন্নয়নশীল জাতি হিসেবে বিকশিত হয়েছি যার জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭% এর বেশি। জাতির এ সাফল্যের কাহিনীর পিছনে অন্যতম চালিকাশক্তি হচ্ছে বানিজ্যিক পরিবহণ শিল্পের উন্নয়ন। বাংলাদেশ অটোমোবাইল এসেম্বলার ম্যানুফাকচারারস্ আ্যসোসিয়েশন (বামা) প্রথমবারের মত ডিজিটাল প্রেস কনফারেন্স এর আয়োজন করেছে। বামা বাংলাদেশের যানবাহন এর পুরোটা নিয়েই কাজ করে। ২ চাকা, ৩ চাকা, ৪ চাকাবাস, ট্রাক মিনিবাস ছাড়াও ভবিষ্যৎ যানবাহন – A/C Bus, Articulated Vehicles এমন কি Electric Vehicle নিয়েও কাজ করে। আমরা আজকে প্রেস কনফারেন্স করছি কারণ আমাদের নতুন বাজেট এসেছে। কোভিড১৯ এ আমরা সবাই affected । আমাদের এই সেক্টরের পজিশন এখন কোথায় আছে, আমরা কি করলে আগামীতে দেশকে আরও ভালো সেবা দিতে পারব, আমাদের দেশেই আমরা দুই চাকার গাড়ী, তিন চাকার গাড়ী, ট্রাক, বাস, মিনি বাস এমনকি ইলেক্ট্রিক গাড়ী পর্যন্ত বানিয়ে রপ্তানী করার পরিকল্পনা আজ এগুলো নিয়ে overall view and vision টা দিয়ে দিব।

আজকের প্রেস কনফারেন্স এর মূল যে বিষয়বস্তু কে আমরা চার ভাবে ভাগ করেছি।

১. টু হুইলার

২. থ্রী হুইলার

৩. বাস, ট্রাক

৪. পিক-আপ

এইভাবে আমরা বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানাব। ৫ মিনিট করে আমাদের এক এক জন বামা’র পক্ষে আপনাদের সামনে বলবেন। প্রত্যেকেই আপনাদের কাছে পরিচিত। ঝবপঃড়ৎধষ বক্তব্যের পর পরই আমি আবার এসে আপনাদের কাছে লাইট-ইঞ্জিনিয়ারিং ভবিষ্যৎ এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ২০২০ সাল কে লাইটইঞ্জিনিয়ারিং হিসাবে ঘোষণা করেছেন সেটা কিভাবে আমরা এই অটোমোবাইল শিল্পে ব্যবহার করব সেটারও একটা ধারনা। আমাদের সবার বক্তব্য আমি আশা করি আধাঘন্টার মধ্যে শেষ হয়ে যাবে। তারপর ই আমরা প্রশ্ন উত্তর পর্ব শুরু করব। আমার অনুরোধ আগেই থাকবে আপনারা মেসেজ এর মাধ্যমে আপনাদের প্রশ্ন লিখে দিবেন অথবা আমাদের কে লিখে জানাবেন। আপনার microphoneটি আমরা unmute করে আপনার প্রশ্ন লাইভ শুনব। আপনাদের লেখা প্রশ্ন গুলো কালেকশন করে আমরা চেষ্টা করব ৫ থেকে ১০ প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার। ১ ঘন্টার মধ্যে সম্পূর্ণ সেশন শেষ করার চেষ্টা করব।

এখন আমি বক্তব্য উপস্থাপন করার জন্য বলছিঃ

  1. Mr. Hafizur Rahman Khan, Chairman, RUNNER GROUP, & Immediate Past President, BAAMA
  2. Mr. Taskeen Ahmed, Managing Director, Ifad Autos Ltd, & Vice President, BAAMA
  3. Mrs. Sohana Rouf Chowdhury, Managing Director, Rangs Group, & Joint Secretary, BAAMA

আস্সালামু আলাইকুম।

আজকের অনলাইন প্রেস কনফারেন্সে উপস্থিত বামা (BAAMA)- এর সম্মানিত সভাপতি ও অন্যান্য সদস্যবৃন্দ এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সদস্যবৃন্দকে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা। বর্তমান সরকারের শিল্পবান্ধব নীতিমালা এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রত্যক্ষ উৎসাহ, অনুপ্রেরণা ও সুস্পষ্ট দিক-নির্দেশনার আলোকে প্রদত্ত বিভিন্নসরকারী প্রণোদনা ও নীতি সহায়তার কারণে দেশের মোটরসাইকেল শিল্প বিগত ১০ বছরে আমদানী নির্ভর খাত থেকে দেশীয় উৎপাদন নির্ভর শিল্পখাতে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে মোটরসাইকেল শিল্প ও থ্রি-হুইলার খাতের অবদান সংক্রান্তকিছু তথ্য-উপাত্ত আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করছি।

মোটরসাইকেল:

মোটরসাইকেল সাধারণ মানুষের একটি বাহন। তরুন সমাজে এটি বেশ জনপ্রিয়। বর্তমানে বাংলাদেশে প্রায় ৪০ লক্ষ মোটরসাইকেল ব্যবহৃত হচ্ছে। এর মধ্যে প্রায় ৪ লক্ষ মোটরসাইকেল বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে রাইড শেয়ারিং বা ভাড়ার কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে। মোটরসাইকেল বর্তমানে বাংলাদেশেই উŤপাদন হচ্ছে। দেশীয় মোটরসাইকেল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলি এ খাতে ইতোমধ্যে প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছেন। দেশের চাহিদার প্রায় ৮০% দেশে উৎপাদিত মোটরসাইকেল দিয়ে পূরণ হচ্ছে। দেশীয় মোটরসাইকেল ইতোমধ্যে বিদেশেও রপ্তানী হচ্ছে। মোটরসাইকেলের কম্পোনেন্ট (যন্ট্রাংশ ও আনুষঙ্গিক উপকরণ) তৈরী করার জন্য দেশে বেশ কিছু ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্প স্থাপিত হয়েছে। বর্তমানে দেশে মোটরসাইকেল উৎপাদন ও বিপনণে নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান ছাড়াও প্রায় ৫ হাজার ডিলারের শোরুম, ২৫ হাজার মেকানিক শপ ও ১০ হাজার স্পেয়ার পার্টসের দোকান এ ব্যবসার সাথে সম্পৃক্ত আছে এবং এ খাতে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে প্রায় ৬ লক্ষ লোকের কর্মসংস্থান সৃাষ্ট হয়েছে। মোটরসাইকেল খাত থেকে প্রাতবছরে সরকার শুল্ক, কর ও ভ্যাট বাবদ প্রায় ২,০০০ কোটি টাকা আয় করে থাকে। মোটরসাইকেল শিল্পের উন্নয়ন, বিকাশ ও প্রবৃদ্ধির জন্য সরকার ইতোমধ্যে মোটরসাইকেল শিল্প উন্নয়ন নীতিমালা, ২০১৮ ঘোষণা করেছেন, যেখানে মোটরসাইকেল শিল্পের দেশীয় উৎপাদন ও ভেন্ডর উন্নয়ন কার্যক্রমের দিক নির্দেশনা আছে। মোটরসাইকেল শিল্পের টেকসই উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে সরকার ইতোমধ্যে ২০২৫ সাল নাগাদ দেশের জিডিপি-তে এ শিল্পের অবদান ২.৫ শতাংশে উন্নীত করা এবং ২০২৭ সাল নাগাদ এদেশে প্রতিবছর ১৫ লক্ষ মোটরসাইকেল দেশীয়ভাবে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছেন।

উপরোক্ত লক্ষ্য অর্জন করা সম্ভব হলে তখন অধিকাংশ মোটরসাইকেল কম্পোনেন্ট দেশেই উৎপাদন করার সক্ষমতা তৈরী হবে এবং এর মাধ্যমে দেশে উৎপাদিত মোটরসাইকেলের দাম আরো কমিয়ে ক্রেতাদের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখা সম্ভব হবে। এতে মোটরসাইকেলের ব্যবসা বৃদ্ধির পাশাপাশি সরকারের রাজস্ব আয় বৃদ্ধিরও বিপুল সম্ভাবনা সৃষ্টি হবে এবং মোটরসাইকেল রপ্তানীর বাজারও সম্প্রসারিত হবে। সরকার চলতি ২০২০ সালকে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং-এর উন্নয়নের বছর হিসেবে ঘোষণা করেছে। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে বর্তমানে এ লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প ও এর সাথে সংশ্লিষ্ট ভেন্ডরদের উন্নয়ন ব্যাপকভাবে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। এ শিল্পে দেশী-বিদেশী বিনিয়োগের প্রচুর সম্ভাবনা রয়েছে।

থ্রি-হুইলার:

বাংলাদেশে থ্রি-হুইলার অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি বাহন। এদেশের গ্রামে-গঞ্জে ও মফস্বল শহরের রাস্তায় জনগণের যাতায়াতের জন্য থ্রি-হুইলার বহুলভাবে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। গ্রামীন অর্থনীতির উন্নয়ন ও সচল রাখার জন্য এর অবদান অপরিসীম। প্রতিদিন প্রায় ১ কোটি শিক্ষার্থী থ্রি-হুইলারের মাধ্যমে নিয়মিতভাবে স্কুল কলেজে যাতায়াত করে থাকে। বর্তমানে সিএনজি, এলপিজি ও ডিজেল চালিত প্রায় ৪ লক্ষ থ্রি-হুইলার ও প্রায় ১০ লক্ষ ব্যাটারী চালিত থ্রি-হুইলার বা ইজি বাইক এদেশের রাস্তায় চলাচল করছে। কিন্তু রেজিস্ট্রেশন উন্মক্ত না থাকার কারণে প্রায় ৯০% থ্রি-হুইলার রাস্তায় চলাচলের বৈধতা পাচ্ছেনা। অদ্যাবধি এদেশে স্থানীয়ভাবে কোন থ্রি-হুইলার উৎপাদিত না হলেও বেশ কয়েকটি কোম্পানী থ্রি-হুইলার সংযোজন বা প্রগ্রেসিভ ম্যানুফ্যাকচারিং এর জন্য নতুন কারখানা স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এর পাশাপাশি বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান থ্রি-হুইলার এর কম্পোনেন্ট তৈরীর প্রচেষ্টা শুরু করেছে। বর্তমানে সব ধরনের থ্রি-হুইলার বা ইজি বাইক আমদানী করা হয়ে থাকে, কিন্তু ইজি বাইকসহ সকল থ্রি-হুইলার এদেশেই উৎপাদন করা সম্ভব। থ্রি-হুইলার খাত থেকে সরকার প্রাতবছরে শুল্ক, কর ও ভ্যাট বাবদ প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা আয় করে থাকে। থ্রি-হুইলারের রেজিস্ট্রেশন উন্মুক্ত করলে সরকার প্রাতবছর রেজিস্ট্রেশন ফি বাবদ প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা আয় করতে সক্ষম হবে। সামগ্রিকভাবে থ্রি-হুইলার খাতে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে বাংলাদেশে প্রায় ২০ লক্ষ লোকের কর্মসংস্থান হয়েছে। থ্রি-হুইলারের রেজিস্ট্রেশন উন্মুক্ত করলে এবং স্থানীয়ভাবে থ্রি-হুইলার ও এর কম্পোনেন্ট উৎপাদন উৎসাহিত করা গেলে এ খাতটি দেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ও সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে ব্যাপক ইতিবাচক ভ‚মিকা পালন করবে।

দেশের প্রতিটি সমৃদ্ধ শিল্প-কারখানার কার্যক্রম বর্তমানে ৪ লক্ষ ট্রাক দ্বারা পরিবেশিত হয় যেখানে ৩০ লক্ষেরও অধিক মানুষ সরাসরি বানিজ্যিক পরিবহণ কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। আর্ন্তজাতিক বানিজ্যে আমাদের জাতির উন্নয়নে সবচেয়ে ভালো উদাহরণ হলো আরএমজি খাত। এ খাতের আমদানি-রপ্তানি লজিস্টিকের ৯০% বানিজ্যিক ট্রাক এর মাধ্যেমে পরিচালিত হয়। একইভাবে সরকারি-বেসরকারি উভয় খাতের সকল ধরনের ভৌত অবকাঠামো এবং স্থাপনা নির্মাণ সামগ্রী সরবরাহ ও উন্নয়ন কার্যক্রম বানিজ্যিক ট্রাক এর দ্বারা পরিচালিত হয়। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, দেশের মোট জনসংখ্যা ১৬০ মিলিয়ন এর খাদ্যশস্য, শাকসবজি, ঔষধ এবং অন্যান্য ক্সদনন্দিন চাহিদা সরবরাহ ও বাজারজাত করণের কাজে বাণিজ্যিক ট্রাক পরিবহন শিল্প অনিবার্যভাবে জাতির সেবায় অনবদ্য অবদান রাখছে। পরিশেষে আমি এটাও উল্লেখ করতে চাই যে, ট্রাক আমদানির মাধ্যেমে প্রতি বছর শুল্ক ও ভ্যাট বাবদ বার্ষিক ২৫০০ কোটি টাকার বেশি সরকারি কোষাগারে জমা হয়ে থাকে। সর্বশেষ আপনাদের সকলকে নিরাপদে থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়ে আমার বক্তব্য শেষ করছি।

ধন্যবাদ সবাইকে।

Mr. Hafizur Rahman Khan, Chairman, RUNNER GROUP, & Immediate Past President, BAAMA

আব্দুল মাতলুব আহমাদ –

পিকআপক্স বড় বড় ট্রাক যেগুলো শহরের ভিতরে ঢুকে ট্রাফিক জ্যাম তৈরি করে, এজন্য বড় বড় ট্রাক-লরি শহরের ভিতরে রাতের বেলায় চলাচল করে। পিকআপ এর যে বৈশিষ্ট সেটা হচ্ছে এটার সাইজ ছোট, কম মালামাল পরিবহন করে এবং এটা বড় বড় শহরের যে কোন প্রান্তে যে কোন যায়গায় চলতে পারে। ২৪ ঘন্টাই চলতে পারে। এজন্য পিকআপের চাহিদা ক্রমশ্যই বাড়ছে। পিকআপের আরেকটি গুন হচ্ছে যে সেটি সাধারণ প্যাসেঞ্জার কার-জীপ এর মত হাইওয়ে দিয়েও চলতে পারে। এটার আরও অনেক সুবিধা রয়েছে। পিক আপের মধ্যে ভ্যান হয়, বিভিন্ন ধরনের এ্যাপ্লিকেশন হয়। আজ যদি থাইল্যান্ডে দেখি, সব থেকে বেশি বিক্রয় হয় যে গাড়ীর সেগমেন্ট, সেটা হল এই পিকআপ। বাংলাদেশে আমরা এখনও এত পাইনি। কিন্ত খুব শিঘ্রই বাংলাদেশে এই সেগমেন্ট সব থেকে বেশি বিক্রয় গাড়ীর সেগমেন্ট হয়ে যাবে। এখন পিকআপের যে বৈশিষ্ট সে বৈশিষ্টের মধ্যে ওটার সাইজ ছোট, চাকার সাইজ ছোট এবং এটা ছোট গাড়ী হিসাবেই দেখা হয়। লাইট ইঞ্জিনিয়াররিং সেক্টর ক্স ২০২০ সালকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং ইয়ার হিসাবে ঘোষণা করেছেন। লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং এর মধ্যে অটোমোবাইল সেক্টর সবচেয়ে বড় সেক্টর এবং সবচেয়ে বহুমুখি সেক্টর এবং তার উপরে আমরা বিডা’র সাথে যৌথভাবে কাজ করছি, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং এ্যাসেসিশনের সাথে কাজ করছি। এছাড়াও আমরা নিবিড়ভাবে ধ২র ওহহড়াধঃরড়হ খধন, গরহরংঃৎু ড়ভ ওহফঁংঃৎরবং এর সাথে জানুয়ারী থেকেই কাজ করছি। সার্টিফিকেশনের জন্য কামিটি গঠন করা হয়ে গেছে। বাংলাদেশে ২ চাকা, ৩ চাকা, ৪ চাকার ইলেক্ট্রিক গাড়ী ও সব গুলির স্পেয়ার পার্টস বানানোর চেষ্টা চলছে। এই কম্পোনেন্ট ফ্যাক্টরীগুলো যখন বাংলাদেশে চালু হয়ে যাবে তখন খুব তাড়াতাড়ি আমরা মেড ইন বাংলাদেশ গাড়ী, মোটরসাইকেল, থ্রী- হুইলার, ট্রাক-বাস বানাতে পারব। আর মেড ইন বাংলাদেশ হলেই কম্পোনেন্ট এবং গাড়ী আমরা উভয়কেই রপ্তানী করতে পারব। ক্স সরকারের কাছে আমাদের দাবী ১) নম্বর হল- চীন হতে যেগুলো পিকআপ হিসাবে আসে সেগুলা আসলেই লাইট ট্রাক। পিকআপ হিসাবে রেজিষ্ট্রেশন হচ্ছে এবং চলছে। বি.আর.টি.এ এই গাড়ীগুলোকে পিকআপ রেজিষ্ট্রশন দিচ্ছে। আমরা আবেদন জানাবো পিকআপের বৈশিষ্ট সবাইকে জানানো হোক। স্পেসিফিকেশন এর বাইরে যারা আছে তাদের পিকআপ রেজিষ্ট্রশন নতুন করে আর দিতে পারবে না। দেশকে সঠিক পথে চলার ব্যবস্থা এখনই করতে হবে। ক্স কোভিড-১৯ এর জন্য নতুন গাড়ী আনতে গেলে যে ডলার লাগবে সে ডলার ও আমাদের কাছে আগামীতে কমে যাবে। ডলার বাজারে না পাওয়া গেলে আমাদের নতুন গাড়ী আনতে আসুবিধা হবে। তখন আমাদেরকে এই বিদ্যমান গাড়ীগুলোকেই ব্যবহার করতে হবে আরও অন্তত ২ বছর। সেজন্য আমরা চাইব এই অর্থবছরে যত ধরনের স্পেয়ার পার্টস আমদানী হবে তা সম্পূর্ণ শুল্কমুক্ত করতে হবে। অন্তত ১ বছর পর্যন্ত। ততদিনে আমাদেরও প্রোডাশন বেজ চালু হয়ে যাবে। ইনশাল্লাহ, আগামীতে আমাদের ট্যাক্স – ভ্যাট দিতে অসুবিধা হবে না। আজকে যদি স্পেয়ার পার্টস এর উপর থেকে ট্যাক্স – ভ্যাট সরিয়ে দেওয়া হয়, তাহলে যারা গাড়ী ব্যবহার করছে তারা অনেক ভালোভাবে আরও ২ বছর ব্যবহার করতে পারবে। অরিজিনাল পার্টসগুলো পাবে, সাশ্রয়ী হবে এবং আমাদের দেশে যেহেতু অনেক ওয়ার্কশপ আছে তারা কাজ পাবে। এ দু’টিই আমাদের সরকারের কাছ দাবী থাকবে। সবশেষে আমি সবাইকে আবারও ধন্যবাদ জানাচ্ছি আপনারা আমাদেরকে আপনাদের প্রশ্ন করুন। যদি নির্দিষ্ট কারো কাছে প্রশ্ন করতে চান, তাহলে আপনার পরিচয় দিয়ে উনার নামটি উল্লেখ করে প্রশ্ন করবেন। এখন ফ্লোর ওপেন করে দিলাম।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত দিন

 

মতামত দিন

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

ঈদ উদযাপনের চেয়ে বেঁচে থাকার লড়াইটা এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আপনি কি একমত ?

ফলাফল দেখুন

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
করোনা ভাইরাস ডিজিজ
।।শারমিন আক্তার।।করোনা ভাইরাস ডিজিজ -২০১৯, যার অ্...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • শত্রুতার জেরে গাইবান্ধায় ৬টি গরু আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ
  • দুই লাখ টাকা জন্য গৃহবধূকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন
  • পঞ্চগড়ে দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার

ঈদ উদযাপনের চেয়ে বেঁচে থাকার লড়াইটা এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আপনি কি একমত ?

  • মতামত নাই (15%, ৯ Votes)
  • না (17%, ১০ Votes)
  • হ্যা (68%, ৪১ Votes)

Total Voters: ৬০

ত্রাণ নিয়ে সমালোচনা না করে হতদরিদ্রদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর, এই আহবানের সাথে কি আপনি একমত ?

  • মতামত নাই (4%, ২ Votes)
  • না (16%, ৮ Votes)
  • হ্যা (80%, ৪১ Votes)

Total Voters: ৫১

যাদের প্রচুর টাকা-পয়সা, ধন-দৌলতের অভাব নেই তারা কীভাবে আন্দোলন করবে? বিএনপির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদের। আপনি কি এই মন্তব্যের সাথে একমত ?

  • মতামত নাই (15%, ১০ Votes)
  • না (21%, ১৪ Votes)
  • হ্যা (64%, ৪৪ Votes)

Total Voters: ৬৮

বিএনপির কর্মীরা নেতাদের প্রতি আস্থা হারিয়েছেন,জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রবের বক্তব্যের সাথে আপনি কি একমত ?

  • মন্তব্য নেই (21%, ৩ Votes)
  • না (21%, ৩ Votes)
  • হ্যা (58%, ৮ Votes)

Total Voters: ১৪

অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে বিএসটিআই‌‌‍‍র এখন গতিশীল ফিরে এসেছে এই কথার সাথে কি আপনি একমত ?

  • হ্যা (14%, ১ Votes)
  • একমত না (29%, ২ Votes)
  • না (57%, ৪ Votes)

Total Voters:

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠ হবে বলে আপনি কি মনে করেন ?

  • মতামত নেই (13%, ৬ Votes)
  • না (43%, ২০ Votes)
  • হ্যা (44%, ২১ Votes)

Total Voters: ৪৭

দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শক্ত অবস্থান নিয়েছেন। এজন্য তার অনেক আত্মীয়-স্বজনকে গণভবনে ঢোকা বন্ধ করে দিয়েছেন। আপনি কি এই পদক্ষেপ সমর্থন করছেন?

  • মন্তব্য নাই (11%, ১১ Votes)
  • না (16%, ১৭ Votes)
  • হ্যা (73%, ৭৬ Votes)

Total Voters: ১০৪

১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, খাদ্যের মতো রাজনীতিতেও ভেজাল ঢুকে পড়েছে। আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিন ক্ষমতায় তাই এখানেও কিছু ভেজাল প্রবেশ করেছে। আপনি কি এই মন্তব্যের সাথে একমত ?

  • মন্তব্য নাই (2%, ৩ Votes)
  • না (8%, ১২ Votes)
  • হ্যা (90%, ১২৮ Votes)

Total Voters: ১৪৩

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেছেন, বিএনপি একটি বট গাছ, এ গাছ থেকে দু’একটি পাতা ঝড়ে পরলে বিএনপির কিছু যাবে আসবে না , এ মন্তব্যের সাথে কি আপনি একমত ?

  • মতামত নেই (7%, ৩ Votes)
  • না (29%, ১২ Votes)
  • হ্যা (64%, ২৭ Votes)

Total Voters: ৪২

অনেক এনজিও অসৎ উদ্দেশ্যে রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করছে বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। আপনি কি এই মন্তব্যের সাথে একমত ?

  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)
  • না (19%, ৬ Votes)
  • হ্যা (81%, ২৫ Votes)

Total Voters: ৩১

ডাক্তারদের ফি বেধে দেয়ার সরকারের পরিকল্পনার সাথে আপনি কি একমত?

  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (6%, ২ Votes)
  • হ্যা (94%, ৩০ Votes)

Total Voters: ৩২

দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়তে মন্ত্রীসভায় প্রধানমন্ত্রী যে চমক এনেছেন তাতে কি আপনি খুশি ?

  • মতামত নাই (15%, ৫ Votes)
  • না (24%, ৮ Votes)
  • হ্যা (61%, ২১ Votes)

Total Voters: ৩৪

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠ ,নিরপেক্ষ হয়েছে বলে আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • হা (100%, ০ Votes)

Total Voters:

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠ ,নিরপেক্ষ হয়েছে বলে আপনি মনে করেন ?

  • মন্তব্য নাই (9%, ২ Votes)
  • হ্যা (18%, ৪ Votes)
  • না (73%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২২

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে বলে আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (5%, ২ Votes)
  • হ্যা (34%, ১৫ Votes)
  • না (61%, ২৭ Votes)

Total Voters: ৪৪

একবার ভোট বর্জন করায় অনেক খেসারত দিতে হয়েছে মন্তব্য করে আর নির্বাচন বয়কটের আওয়াজ না তুলতে জোট নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি কামাল হোসেন, আপনি কি একমত ?

  • মতামত নাই (3%, ১ Votes)
  • না (6%, ২ Votes)
  • হা (91%, ৩২ Votes)

Total Voters: ৩৫

সংলাপ সফল হবে বলে আপনি মনে করেন ?

  • হা (13%, ২ Votes)
  • মতামত নাই (13%, ২ Votes)
  • না (74%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

  • মতামত নাই (7%, ৭ Votes)
  • না (23%, ২৩ Votes)
  • হ্যা (70%, ৭১ Votes)

Total Voters: ১০১

অাপনি কি কোটা সংস্কারের পক্ষে ?

  • মতামত নেই (3%, ১ Votes)
  • না (8%, ৩ Votes)
  • হ্যা (89%, ৩৩ Votes)

Total Voters: ৩৭

খালেদা জিয়ার মামলা লড়তে বিদেশি আইনজীবীর কোন প্রয়োজন নেই' বিএনপি নেতা আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের সাথে - আপনিও কি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ১ Votes)
  • না (27%, ৩ Votes)
  • হ্যা (64%, ৭ Votes)

Total Voters: ১১

আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিদেশিদের কোনো উপদেশ বা পরামর্শের প্রয়োজন নেই বলে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্য যৌক্তিক বলে মনে করেন কি?

  • মতামত নাই (7%, ১ Votes)
  • হ্যা (20%, ৩ Votes)
  • না (73%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব) অলি আহমাদ বলেন, এরশাদকে খুশি করতে বেগম জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের জেলখানায় নেয়া হয়েছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

  • মতামত নাই (8%, ৫ Votes)
  • না (27%, ১৬ Votes)
  • হ্যা (65%, ৩৮ Votes)

Total Voters: ৫৯

আপনি কি মনে করেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহন করবে ?

  • না (13%, ৫৪ Votes)
  • হ্যা (87%, ৩৬২ Votes)

Total Voters: ৪১৬

আপনি কি মনে করেন বিএনপির‘র সহায়ক সরকারের রুপরেখা আদায় করা আন্দোলন ছাড়া সম্ভব ?

  • হ্যা (32%, ৪৫ Votes)
  • না (68%, ৯৫ Votes)

Total Voters: ১৪০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি সম্পূর্ণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপরে নির্ভরশীল, এ বিষয়ে অাপনার মন্তব্য কি ?

  • মন্তব্য নাই (7%, ২ Votes)
  • হ্যা (26%, ৭ Votes)
  • না (67%, ১৮ Votes)

Total Voters: ২৭

আপনি কি মনে করেন নির্ধারিত সময়ের আগে আগাম নির্বাচন হবে?

  • মন্তব্য নাই (7%, ১০ Votes)
  • হ্যা (31%, ৪৬ Votes)
  • না (62%, ৯১ Votes)

Total Voters: ১৪৭

হেফাজতকে বড় রাজনৈতিক দল বানানোর চেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। আপনি কি তার সাথে একমত?

  • মতামত নাই (10%, ৩ Votes)
  • না (34%, ১০ Votes)
  • হ্যা (56%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২৯

“আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে দেশে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা কমে যাবে ”সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সাথে কি অাপনি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ৩ Votes)
  • না (32%, ১১ Votes)
  • হ্যা (59%, ২০ Votes)

Total Voters: ৩৪

আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে যারা সংগঠনের নামে দোকান খুলে বসেছে, তাদের ধরে ধরে পুলিশে দিতে হবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের আপনার প্রতিক্রিয়া কি ?

  • মতামত নাই (7%, ৩ Votes)
  • না (10%, ৪ Votes)
  • হ্যা (83%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৪২

ড্রাইভাররা কি আইনের উর্ধে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • হ্যা (14%, ৭ Votes)
  • না (84%, ৪৩ Votes)

Total Voters: ৫১

সার্চ কমিটিতে রাজনৈতিক দলের কেউ নেই- ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?

  • মতামত নাই (5%, ৩ Votes)
  • হ্যা (31%, ১৭ Votes)
  • না (64%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৫৫