ঐতহিাসকি ছয় দফা দবিস উপলক্ষে বিশেষ নিবন্ধ
Thursday, 4th June , 2020, 04:30 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

ঐতহিাসকি ছয় দফা দবিস উপলক্ষে বিশেষ নিবন্ধ



।। অজয় দাশগুপ্ত।।

১৯৬৬ সালরে ফব্রেুয়ারি মাসরে প্রথম সপ্তাহে র্পূব পাকস্তিান আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক শখে মুজবিুর রহমান স্বায়ত্ত শাসনরে ছয় দফা র্কমসূচি উপস্থাপন করনে। এ র্কমসূচতিে ছলি-পাকস্তিান ফডোরশেনে সংসদীয় পদ্ধতরি সরকার, র্সাবজনীন ভোটাধকিার ব্যবস্থা প্রর্বতন; ফডোরলে সরকাররে হাতে থাকবে প্রতরিক্ষা ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়; র্পূব ও পাশ্চমি পাকস্তিানে পৃথক কন্তিু সহজে বনিমিয়যোগ্য পৃথক মুদ্রা চালু কংিবা একক মুদ্রা, তবে একটি ফডোরলে রজর্িাভ ব্যাংক ও দুটি আঞ্চলকি রজর্িাভ ব্যাংক স্থাপন; সব ধরনরে কর ও শুল্কর্ধায ও আদয় করার ক্ষমতা থাকবে আঞ্চলকি সরকাররে হাত;ে দুই অঞ্চলরে বদৈশেকি মুদ্রা আয়রে পৃথক হসিাব থাকব,ে র্অজতি বদৈশেকি মুদ্রা থাকবে প্রদশেরে হাতে এবং প্রতরিক্ষায় র্পূব পাকস্তিানকে সাবলম্বী করার জন্য নৌবাহনিীর সদর দফতর স্থানান্তর, র্পূব পাকস্তিানে অস্ত্র কারখানা স্থাপন ও আধাসামরকি রক্ষীবাহনিী গঠন।

তৎকালীন পাকস্তিানরে ক্ষমতার কন্দ্রে লাহোরে তনিি যখন এ র্কমসূচি প্রকাশ করনে, প্রক্ষোপট ছলি ১৯৬৫ সালরে সপ্টেম্বের মাসরে ভারত-পাকস্তিান যুদ্ধ। বশিষেভাবে রাজস্ব ভাগ বাটোয়ারা ও নজিস্ব প্রতরিক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তোলার ইস্যু প্রধান্য পায়। রাজনতৈকি মহল, সুধী সমাজ, গবষেক, সাংবাদকি এবং উদীয়মান বাঙালি মধ্যবত্তি ও উচ্চবত্তি শ্রণেি দ্রুতই বুঝে গলে- মুক্তরি পথ চহ্নিতি হয়ে গলে। শখে মুজবিুর রহমান রাজনতৈকি কৌশলওে অন্য সবাইকে বহু যোজন পছেনে ফলেে দতিে পরেছেলিনে। হরতাল-র্ধমঘট নয়, তনিি র্কমসূচি নয়িে চলে গলেনে জনগণরে কাছ।ে

পাকস্তিানরে শাসকরা বুঝতে পার,ে এতদনি যে দাবি নছিক রাজনতৈকি দলরে সম্মলেন ও জনসভার প্রস্তাবরে মধ্যে সীমাবদ্ধ ছলি- তা নতুন মাত্রা পয়েছে।ে বাঙালরিা হসিবেরে পাওনা কড়ায় গণ্ডায় বুঝে নতিে প্রস্তুত হয়ে উঠছ।ে দাবি আদায়ে সংগঠন চাই, আন্দোলন চাই এবং তার জন্য র্সবােচ্চ ত্যাগরে প্রয়োজন পড়বে সে উপলব্ধওি ততদনিে হয়ে গছে।ে নতোও পয়েে গছেনে তারা। আগরতলা ষড়যন্ত্ররে দায়ে যখন তাকে দময়িে রাখার চষ্টো হয়, তখন জনগণ এই মহান নতোকে বরণ করে নয়ে বঙ্গবন্ধু হসিবে।ে

নজিস্ব প্রতরিক্ষা ব্যবস্থার ধারণা অবশ্য বঙ্গবন্ধু পাকস্তিান প্রতষ্ঠিার পরপরই সামনে আননে। বয়স যখন মাত্র ২৯ বছর- আওয়ামী মুসলমি লীগরে যুগ্মসাধারণ সম্পাদক- ১৯৪৯ সালরে ১৬ সপ্টেম্বের আরমানটিোলা ময়দানে ছাত্রলীগ আয়োজতি জনসভায় তনিি বলছেলিনে, ‘পাঞ্জাবি সন্যৈরা র্পূব বাংলার ভৌগলকি অবস্থার সঙ্গে পরচিতি নয়। আমাদরে দশেরে নরিাপত্তা আমাদরেই নশ্চিতি করতে হব।ে’

১৯৪৮ সালরে ৪ জানুয়ারি যে সংগঠনরে জন্ম দনে, সইে ছাত্রলীগ থকেে আনুষ্ঠানকি বদিায় নওেয়ার জন্যই আয়োজন হয়ছেলি সম্মলেনরে। গোয়ন্দো প্রতবিদেনে বলা হয়, সম্মলেন ও জনসভায় শখে মুজবিুর রহমান প্রাপ্তবয়স্ক সকল ব্যক্তকিে সামরকি প্রশক্ষিণ প্রদান এং প্রয়োজন পড়লে দশে রক্ষার জন্য তাদরে অস্ত্র সরবরাহরে দাবি জানান।

বঙ্গবন্ধু এটাও জানা হয়ে গছে,ে বাঙালরি র্স্বাথরে বরিুদ্ধ শক্তি প্রবল ক্ষমতাধর এবং তাকইে আঘাতরে র্টাগটে করব।ে ঘনষ্ঠি সহর্কমীরাও বাদ যাবে না। ১৯৭১ সালরে ৭ র্মাচ স্বাধীনতার চূড়ান্ত সংগ্রামরে সময়ে বলছেলিনে, ‘আমি যদি হুকুম দবোর না পার.ি..’- অবাক বস্মিয়ে আমরা দখে,ি এ ঐতহিাসকি দনিরে পাঁচ বছর আগে ছয় দফা প্রদানরে পরপরই তনিি নশ্চিতি হয়ে গয়িছেলিনে- মুক্ত জীবনে তাকে রাখা হবে না। সচতেন প্রয়াসে এমন অবস্থা তরৈি করতে পারনে যনে আন্দোলন স্তব্ধ হয়ে না যায়। জনগণকে তনিি প্রস্তুত করছেলিনে। তরুণ সমাজ এগয়িে এসছেে ১৯৫২ সালরে ভাষা আন্দোলনরে সময়রে মতো সাহস ও সংকল্প নয়ি।ে নারীদরে অংশগ্রহণ বাড়ছ।ে আদমজী-ডমেরা-টঙ্গী-তজেগাঁয়রে শ্রমকিরা আন্দোলনে সক্রয়ি হচ্ছ।ে ‘বাংলাদশে’ দৃষ্টি সীমানায় এসে পড়ছে।ে ‘স্বাধীনতা’ নষিদ্ধি শব্দ। কন্তিু অনকেইে দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ হয়ে উঠছনে-পন্ডিি বা লাহোর নয়, ঢাকাতইে এ ভূখণ্ডরে ভাগ্য নর্ধিারতি হব।ে

বঙ্গবন্ধু ছয় দফা প্রদানরে পর আওয়ামীলীগকে নতেৃত্ব শূন্য করার জন্য ফল্ডি র্মাশাল আইয়ুব খান এবং তাঁর দুর্ষ্কমরে সহযোগী র্পূব পাকস্তিানরে গর্ভনর আবদুল মোনায়মে খান একরে পর এক দুরভসিন্ধি আঁটনে। কন্তিু বাঙালরিা অবাক বস্মিয়ে দখেল, দলরে সভাপতি ও অন্যান্য নতো গ্রফেতার হওয়ার এক মাসর্পূণ হওয়ার আগইে গোটা র্পূব পাকস্তিানে যারা হরতাল আহ্বান করছেলি, তাদরে মধ্যে প্রাদশেকি কমটিরি র্শীষ স্থানীয় কোনো নতোই ছলিনে না।

‘কারাগাররে রোজ নামচা’ গ্রন্থে এই ঐতহিাসকি তারখিে (৭ জুন, ১৯৬৬। মঙ্গলবার) শখে মুজবিুর রহমান দনিলপিি বা ডায়রেি শুরু করছেনে এভাব-ে ‘সকালে ঘুম থকেে উঠলাম। কি হয় আজ? আবদুল মোনায়মে খান যভোবে কথা বলছনে তাতে মনে হয় কছিু একটা ঘটবে আজ। কারাগাররে র্দুভদ্যে প্রাচীর ভদে করে খবর আসলো দোকান-পাট, গাড়,ি বাস, রকিশা সব বন্ধ। শান্তপর্িূণভাবে হরতাল চলছে।ে এই সংগ্রাম একলা আওয়ামীলীগই চালাইতছে।ে আবার সংবাদ
-২-

পাইলাম পুলশি আনছার দয়িা ঢাকা শহর ভরে দয়িছে।ে …আবার খবর এল টয়িার গ্যাস ছড়েছে।ে লাঠচর্িাজ হতছেে সমস্ত ঢাকায়। আমি তো কছিুই বুঝতে পারি না। কয়দেরিা কয়দেদিরে বল।ে সপিাইরা সপিাইদরে বল।ে এই বলাবলরি ভতির থকেে কছিু খবর বরে করে নতিে কষ্ট হয় না। …জনগণ স্বতঃর্স্ফূতভাবে হরতাল পালন করছে।ে তারা ছয় দফা সর্মথন করে আর মুক্তি চায়, বাঁচতে চায়, খতেে চায়, ব্যক্তি স্বাধীনতা চায়। শ্রমকিদরে ন্যায্য দাব,ি কৃষকরে বাঁচবার দাবি তারা চায়-এর প্রমাণ এই হরতালরে মধ্যইে হয়ে গলে।’

ছয় দফা প্রদানরে পর থকেইে শখে মুজবিুর রহমান ঘনষ্ঠিজনদরে কাছে বলছলিনে, ছয় দফা মানলে ভাল। না মানলে এক দফা। তাঁর আন্দোলনরে লক্ষ্য যে স্বাধীনতা এবং এ জন্য ধাপে ধাপে কুশলী পদক্ষপে নয়িে তনিি এগয়িে চলছেনে- সটো গোপন করনেনি কখনও।

এক দফার আন্দোলন যখন সামনে এলো, তনিি র্দীঘ দুই যুগরে সাধনায় যা কছিু তরৈি করছেনে, একে সব কাজে লগেে গলে- জনগণপ্রস্তুত, সংগঠতি ছাত্র-তরুণরা। দশেব্যাপী নষ্ঠিুর গণহত্যার মধ্যইে ২৫ র্মাচরে দুই সপ্তাহ যতেে না যতেে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদশে সরকার গঠন ও সক্রয়ি র্কাযক্রম শুরু করতে পারা গোটা বশ্বিকইে বস্মিতি কর।ে আর কী অনন্য দূরর্দশতিা- ১৯৪৯ সালরে ১৬ সপ্টেম্বের দাবি তুলছেলিনে প্রাপ্ত বয়স্কদরে সামরকি প্রশক্ষিণ ও অস্ত্রসজ্জতি করার। সটো পাকস্তিানরে শাসকরা করনে।ি বাংলাদশেরে লাখ লাখ ছাত্র-তরুণ সামরকি প্রশক্ষিণ নয়িে অস্ত্র তুলে নয়িে ছলি বাংলাদশে ভূখণ্ড থকেে পাকস্তিানি হানাদার বাহনিীকে তাড়াত।ে ২৬ র্মাচ এ স্বাধীনতা ঘোষণা করছেলিনে বঙ্গবন্ধু।

ছয় দফা থকেে স্বাধীনতা আন্দোলনরে কাল র্পব আমাদরে যে সব রাজনতৈকি শক্ষিা দয়ে- এক, সঠকি সময়ে সঠকি র্কমসূচি ও বাস্তবায়ন কৌশল উপস্থাপন। দুই, উপযুক্ত সাংগঠনকি প্রস্তুত।ি তনি, জনগণকে সচতেন ও সংগঠতি করা। বঙ্গবন্ধু ও তাঁর দল আওয়ামীলীগ এটা করতে পরেছেলি বলইে ১৯৬৬ সালরে ৭ জুনরে হরতালে অভাবনীয় সাড়া মলিছেলি, ১৯৬৯ সালরে জানুয়ার-িফব্রেুয়াররি ছাত্র-গণঅভ্যুত্থান সফল হয়ছেলি এবং ১৯৭১ সালে বপিুল আত্মত্যাগে র্অজতি হয়ছেলি স্বাধীনতা।

বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার জন্য আন্দোলনরে প্রস্তুতি চালানোর র্পযায়ইে ভবষ্যিৎ বাংলাদশে রাষ্ট্ররে ছক তরৈি করে ফলেছেলিনে। এ কারণইে যুক্তরাষ্ট্রসহ কতপিয় ধনবান দশে ও বশ্বিব্যাংক যে নতুন রাষ্ট্রকে ‘বাস্কটে কসে’ হসিবেে উপহাস করছেলি, স্বল্পতম সময়রে মধ্যে সে দশেটইি বঙ্গবন্ধুর নতেৃত্বে পুর্নবাসন ও পুর্নগঠনরে বপিুল র্কমযজ্ঞ সম্পাদন করতে পার।ে

আবার ২১ বছররে দুঃশাসনরে পর বঙ্গবন্ধু কন্যা জননত্রেী শখে হাসনিা রাষ্ট্র পরচিালনার দায়ত্বি হাতে নয়িে যে দশেকে সমৃদ্ধরি সোপানে তুলে দতিে অনন্য সফলতা দখোতে পারে তারও প্ররেণা বঙ্গবন্ধু শখে মুজবিুর রহমান। সুজলা সুফলা শস্য শ্যামলা বাংলাদশে ভূখণ্ড এবং তার মানুষরে ওপর অগাধ বশ্বিাস ও ভরসা রাখার কারণইে বাংলাদশেে ঘুরে দাঁড়াতে পারছে বহুবধি বাধা-বপিত্তি উপক্ষো কর।ে তলাবহিীন ঝুঁড়রি বদনাম ঘুচয়িে দশেটকিে খাদ্যশস্যে স্বয়ংসর্ম্পূণ করে তোলা, কুচক্রি মহলরে কারণে বশ্বিব্যাংক পদ্মা সতেুতে র্অথ জোগানো বন্ধ করে দওেয়ার পর নজিস্ব র্অথে যোগাযোগ খাতরে এ সুবৃহৎ প্রকল্প বাস্তবায়ন, স্বল্পোন্নত দশে থকেে উন্নয়নশীল দশেরে কাতারে র্গবতি পদচারণা, প্রায় ছয় কোটি ছাত্রছাত্রীকে শক্ষিাঙ্গনে নয়িে আসতে পারা- বাংলাদশেরে এ ধরনরে আরও উজ্জ্বল উদাহরণ এখন বশ্বি নতেৃবৃন্দই দচ্ছিনে। করোনাত্তোরকালে বাংলাদশে যে উন্নয়নরে সঠকি ও টকেসই ধারায় চলতে পারব,ে সে ভরসাও কন্তিু আমরা পয়েে যাই বঙ্গবন্ধু কন্যার বলষ্ঠি ও দূরর্দশী র্কমসূচি ও র্কমকৌশলরে কারণ।ে সঠকি সময়ে সঠকি কাজটি দৃঢ় সংকল্পে করে ফলো- জাতরি জনক বঙ্গবন্ধু শখে মুজবিুর রহমানরে শক্ষিা যে তনিইি সবচয়েে বশেি ধারণ করনে।

#
০৩.০৬.২০২০ পআিইডি ফচিার

Print Friendly, PDF & Email

You must be logged in to post a comment Login

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

জার্মানির বার্লিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গেছে, নাক দিয়েও মস্তিস্কে করোনা হানা দেয়। আপনি কি মনে করেন মস্তিস্কে করোনার আক্রমণ রক্ষার্থে মাস্ক ই যথেষ্ট?

View Results

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
যুবলীগের নতুন নেতৃত্বঃ পরশের পরশ ছোঁয়ায় জেগে উঠুক কোটি তরুণ
।।মানিক লাল ঘোষ।।"আমার চেষ্টা থাকবে যুব সমাজ যেনো...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • হয়নি সীমান্ত মেলা: দেখা না করেই ফিরলেন স্বজনরা
  • বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য উচ্ছেদের হুমকি প্রদানকারীদের বিচারের দাবি
  • দিবালোকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জমি দখলের অভিযোগ

জার্মানির বার্লিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গেছে, নাক দিয়েও মস্তিস্কে করোনা হানা দেয়। আপনি কি মনে করেন মস্তিস্কে করোনার আক্রমণ রক্ষার্থে মাস্ক ই যথেষ্ট?

  • হ্যা (67%, ৪ Votes)
  • না (17%, ১ Votes)
  • মতামত নাই (16%, ১ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ২, ২০২০ @ ৩:১৯ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

মডার্নার, ফাইজারের করোনা ভাইরাসের টিকার মধ্যে মডার্নার টিকার উপর কি আপনার আস্থা বেশি ?

  • মতামত নাই (100%, ১ Votes)
  • হ্যা (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ২, ২০২০ @ ৯:১৯ পূর্বাহ্ন
End Date: No Expiry

মার্কিন টিকা প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান মডার্নার দাবি করেছেন অত্যধিক ঝুঁকিপূর্ণ রোগীর ওপর এ টিকা ১০০ শতাংশ কাজ করেছে। আপনি কি শতভাগ ফলপ্রসু মনে করেন?

  • হ্যা (100%, ১ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ১, ২০২০ @ ১২:৫১ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

ফাইজার, অক্সফোর্ড, রাশিয়ান, চায়নার ভ্যাকসিনগুলোকে আপনি কি করোনা প্রতিরোধক কার্যকর টিকা বলে মনে করেন?

  • না (67%, ২ Votes)
  • মতামত নাই (33%, ১ Votes)
  • হ্যা (0%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: নভেম্বর ২৯, ২০২০ @ ৫:২৮ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

ফাইজার, অক্সফোর্ড, রাশিয়ান ইন, চায়না ভ্যাকসিনগুলোকে আপনি কি করোনা প্রতিরোধক কার্যকর টিকা বলে মনে করেন?

  • হ্যা (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (100%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: নভেম্বর ২৯, ২০২০ @ ৪:৫৭ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

 Page ১ of ২  ১  ২  »