করোনায় থমকে গেলো বাড়ি যাওয়ার স্বপ্ন
Sunday, 24th May , 2020, 09:43 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

করোনায় থমকে গেলো বাড়ি যাওয়ার স্বপ্ন



মোহাম্মদ রায়হান, লাস্টনিউজবিডি, ২৪ মে: এবারের বাড়ি যাওয়ার স্বপ্ন থমকে গেলো দু:খ ভারাক্রান্ত পৃথিবীর আহাজারিতে। কাল ঈদ-উল ফিতর। মুসলমানদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব। প্রবল উৎসাহ আর উদ্দীপনার সাথে প্রতি বছরই সমগ্র মুসলমান ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে। এবার হলো করোনা মোড়ানো বেদনার ঈদ!

বলা হয়, ঈদ হচ্ছে শান্তি সম্প্রীতি বয়ে আনার দিন। আত্মীয়ের বাড়ি তে বেড়াতে যাওয়া,সকলের কোলাকুলির মাধ্যমে একই আত্মায় পরিণতি লাভ করে পরস্পরের পরিশুদ্ধি অর্জনের ঈদের আনন্দ। নতুন জামা পড়ে বাচ্চাদের হৈ-হুল্লোড় আরো মজার দুষ্টুমিতে মুখর হতো প্রতিটি আলয়। এবার সেই নতুন জামা আছে। তবে বাড়তি হয়তো নতুন মাত্রা যোগ হতে যাচ্ছে, মৃতের নতুন কাপড়। কোন সময় হৈচৈ এ মেতে উঠা বালকও মৃত্যুমুখে পড়ে নতুন সাদা কাপড়ে ঈদের নামাজ পড়ার আগেই অন্ধকারে ডুব দিতে হয়, তার বাড়তি একটা টেনশনও যোগ হয়েছে। এ এক বাকরুদ্ধ ঈদ!

যেখানে থাকছে না ঈদ শপিং এর মজার মুহূর্ত। প্রতি বছর সকল বয়সের মানুষকে ঈদ শপিং আনন্দময়ী করে তুলতো । রোজায় ক্লান্ত হওয়া ব্যক্তিটাও যেন আলাদা আনন্দে মেতে উঠতো। কেবল ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করার জন্য যত রকম দান-খয়রাত আর কতো কি। একটি নতুন জামা- এক টুকরো হাসি৷ ধনী-গরীব সবার ঘরেই নতুন জামার আমেজ বয়েই যেতো। বাচ্চাদের সে-কি বাধ ভাঙা উল্লাস! মজার ব্যাপার হলো, বাঙালী কে যে দাবায়ে রাখা যায় না, বাঙালী তারই প্রমান দিয়ে আসছে বারংবার। ঈদ শপিং এ ও তাই।

কোয়ারেন্টাইনে ক্লান্ত হওয়া যুবক গুলো এবার সেই আর নাড়ির টানে বাড়ি ফিরে আসার মজা উপভোগ করতে পারলো না। ঈদ, ঈদ রব থাকতো সব জায়গায়। কি রে, কবে বাড়ি যাচ্ছিস?– এমন প্রশ্ন তো সবাই ই করতো। দিনশেষে ব্যাগ কাধে নিয়ে বাড়ি ফেরার জন্য পা বাড়ানোতে যে কি আনন্দ, তা কেবল ওরাই বুঝতো। বাসের ছাদে, ট্রেনের ছাদে শত গাধাগাদি হলেও মজাই আরাদা। বাড়ি ফিরে সবার সাথে এক হওয়া! দুদিনের জন্য একসাথে ইফতার আর সাহরি অন্য রকম একটা সুখ বয়ে আনতো।

ঈদের মেলা। বাচ্চাদের জন্য সবচেয়ে মজার মুহূর্ত। সম্ভবত এমন কোনো বাচ্চা পাওয়া যাবে না, যে কিনা ঈদের দিনের মেলায় যাওয়ার জন্য বায়না ধরে না। প্রচুর লোকের সমাগমে ঈদকে পূর্ণতা দিতে এই মেলা সত্যিই অনন্য। আমাদের তো প্রায় প্রতি বছরই যাওয়া হতো ঈদের মেলায়। হরেক রকম খেলনা,মজার মজার খাবার বাঁশির আওয়াজ, লোকারণ্যে ভরপুর থাকে মেলা। এবারের ঈদে শিশু-কিশোরদের আনন্দের সর্ববৃহৎ ক্ষেত্র টা তারা হারাচ্ছে।

ঈদে সব বয়সী মানুষ ই আত্মাীয়ের বাড়ি তে যাওয়া আসা করে। ঈদের দিন বিকেল-বেলা থেকে নিয়ে প্রায় সপ্তাহ খানেক বেড়ানোর ধুম পড়ে। যারা সারা বছরই কারো বাড়িতে যাওয়ার প্রয়োজন বোধ করতো না, ঈদ উপলক্ষে তারাও একে অপরের বাড়ি বেড়াতে যায় ,দেখতে যায়। এবার তা হচ্ছে না। বাড়ি থেকে বের হওয়ার সুযোগ নেই কারো। গৃহের চার দেওয়াল আর পাশের বাড়ি বা নিজ এলাকাই হয় তো এখন বেড়ানোর একমাত্র জায়গা।

সব কিছুর পরও, ঈদকে আমরা সীমিত পরিসরে ও আনন্দময় করে তুলতে পারি। ঈদ থেকে আমাদের সবচেয়ে মহান যে সুযোগ টি আমরা পাচ্ছি, তা হলো সবার একত্রে মিলিত হওয়ার সুযোগ। করোনাকালীন ঈদ আমাদের আরেকটু বাড়তিই সুযোগ করে দিচ্ছে পরিবারের সাথে মিলে একাকার হয়ে যাওয়ার। হয়তো গুটিকয়েক প্রিয় মানুষকে কাছে পাচ্ছি না, যারা জীবিকার জন্য বাড়ি থেকে অনেক দূরে থেকে আসতে পারবে না, ঈদ টা তাদের সবাই কে ছেড়ে একা কাটাতে হবে। সৃষ্টিকর্তাই এমন বিভেদ সৃষ্টি করে দিয়েছেন। করোনাকালীন ঈদ হোক আগামী সুস্থ পৃথিবী প্রাপ্তির প্রথম সিঁড়ি। ঈদ হোক ভ্রাতৃত্বের,ঈদ হোক সহমর্মিতা আর সুহৃদের। ঈদ মোবারক।

লেখক- শিক্ষার্থী, সরকারি তিতুমীর কলেজ

Print Friendly, PDF & Email

You must be logged in to post a comment Login

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

জার্মানির বার্লিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গেছে, নাক দিয়েও মস্তিস্কে করোনা হানা দেয়। আপনি কি মনে করেন মস্তিস্কে করোনার আক্রমণ রক্ষার্থে মাস্ক ই যথেষ্ট?

View Results

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
যুবলীগের নতুন নেতৃত্বঃ পরশের পরশ ছোঁয়ায় জেগে উঠুক কোটি তরুণ
।।মানিক লাল ঘোষ।।"আমার চেষ্টা থাকবে যুব সমাজ যেনো...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • হয়নি সীমান্ত মেলা: দেখা না করেই ফিরলেন স্বজনরা
  • বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য উচ্ছেদের হুমকি প্রদানকারীদের বিচারের দাবি
  • দিবালোকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জমি দখলের অভিযোগ

জার্মানির বার্লিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গেছে, নাক দিয়েও মস্তিস্কে করোনা হানা দেয়। আপনি কি মনে করেন মস্তিস্কে করোনার আক্রমণ রক্ষার্থে মাস্ক ই যথেষ্ট?

  • হ্যা (67%, ৪ Votes)
  • না (17%, ১ Votes)
  • মতামত নাই (16%, ১ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ২, ২০২০ @ ৩:১৯ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

মডার্নার, ফাইজারের করোনা ভাইরাসের টিকার মধ্যে মডার্নার টিকার উপর কি আপনার আস্থা বেশি ?

  • মতামত নাই (100%, ১ Votes)
  • হ্যা (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ২, ২০২০ @ ৯:১৯ পূর্বাহ্ন
End Date: No Expiry

মার্কিন টিকা প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান মডার্নার দাবি করেছেন অত্যধিক ঝুঁকিপূর্ণ রোগীর ওপর এ টিকা ১০০ শতাংশ কাজ করেছে। আপনি কি শতভাগ ফলপ্রসু মনে করেন?

  • হ্যা (100%, ১ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ১, ২০২০ @ ১২:৫১ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

ফাইজার, অক্সফোর্ড, রাশিয়ান, চায়নার ভ্যাকসিনগুলোকে আপনি কি করোনা প্রতিরোধক কার্যকর টিকা বলে মনে করেন?

  • না (67%, ২ Votes)
  • মতামত নাই (33%, ১ Votes)
  • হ্যা (0%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: নভেম্বর ২৯, ২০২০ @ ৫:২৮ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

ফাইজার, অক্সফোর্ড, রাশিয়ান ইন, চায়না ভ্যাকসিনগুলোকে আপনি কি করোনা প্রতিরোধক কার্যকর টিকা বলে মনে করেন?

  • হ্যা (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (100%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: নভেম্বর ২৯, ২০২০ @ ৪:৫৭ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

 Page ১ of ২  ১  ২  »