লকডাউন প্রত্যাহারের দিকে এগিয়ে যাওয়াই আজ সময়ের দাবি | Lastnewsbd.com
Monday, 4th May , 2020, 12:31 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

লকডাউন প্রত্যাহারের দিকে এগিয়ে যাওয়াই আজ সময়ের দাবি



প্রাণঘাতী করোনার হানায় বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশেও সবকিছু লকডাউন বা বন্ধ হয়ে আছে। মানুষ হয়ে আছে ঘরবন্দী। অর্থনীতির চাকা গেছে বন্ধ হয়ে। এ অবস্থায় প্রশ্ন উঠেছে, লকডাউনই চলবে, নাকি ধীরে ধীরে সবকিছু খুলে দেয়া হবে?

বাংলাদেশ সরকার মনে হচ্ছে, ধীরে ধীরে সবকিছু খুলে দেয়ার নীতিতে এগুচ্ছে। এর অংশ হিসেবে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি বজায় রেখে পোশাক-খাত, শিল্প-কারখানা খোলা রাখা যাবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। গত ৩ মে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ‘করোনা পরিস্থিতিতে শিল্প ও ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান চালু রাখা’ বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

এটিকে একটি বাস্তবসম্মত সিদ্ধান্ত বলা যায়। কেননা, বিশ্বব্যাপী আজ দাবি উঠছে লকডাউন শিথিল করার। লন্ডন থেকে প্রকাশিত বিশ্ববিখ্যাত ম্যাগাজিন ‘ইকোনমিস্ট’-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে লকডাউনের কারণে বাংলাদেশের গারমেন্ট খাতের দুর্দশা তুলে ধরা হয়েছে।

এতে বলা হয়, গার্মেন্ট কারখানা বন্ধের সামর্থ রাখে না বাংলাদেশ। কারণ, বাংলাদেশে গার্মেন্ট কারখানায় কাজ করেন প্রায় ৪১ লাখ শ্রমিক। গত বছর তৈরি পোশাক রপ্তানি করে বাংলাদেশের গার্মেন্ট শিল্প দেশে এনেছে ৩৪০০ কোটি ডলার, যা জাতীয় প্রবৃদ্ধির ১৩ শতাংশ। কয়েক দশকে দেশের চিত্তাকর্ষক প্রবৃদ্ধিতে এই খাতটি অবদান রেখে চলেছে বা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।
‘ইকোনমিস্ট’ লিখেছে, প্রথমে দীর্ঘ ছুটি ঘোষণার মধ্য দিয়ে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের চেষ্টা করে সরকার। ছুটি ঘোষণার ফলে শ্রমিকদের অনেকে গ্রামের বাড়ি ফিরে গিয়েছিলেন। কারখানা মালিকদের আহ্বানে তারা ফিরে আসেন। এখন কাজ না থাকায় ক্ষুধায় ভোগা হাজার হাজার শ্রমিক তাদের বকেয়ার দাবিতে বিক্ষোভ করছেন।
গারমেন্ট খাত ও এর শ্রমিকদের রক্ষায় বাংলাদেশ সরকারের নেয়া পদক্ষেপ তুলে ধরে ‘ইকোনমিস্ট’ লিখেছে, কারখানাগুলো যাতে শ্রমিকদের মজুরি দিতে পারে এ জন্য সরকার স্বল্প সুদে প্রায় ৫৯ কোটি ডলার দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

বাংলাদেশ গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশনের (বিজিএমইএ) প্রেসিডেন্ট রুবানা হক যখন একে ”জীবন ও জীবিকার মধ্যে নিষ্ঠুর এক উভয়সঙ্কট” বলছেন, তখন কর্তৃপক্ষ কারখানাগুলোকে কাজ শুরুর নির্দেশনা দিয়েছে। এ সপ্তাহে প্রায় ২০০০ কারখানা খুলে দেয়া হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যে আরো কয়েক শত খুলে দেয়া হবে।

‘ইকোনমিস্ট’ লিখেছে, করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে বিশ্বে পোশাকের চাহিদা কমে গেছে। তবু অনেক কারখানা মালিক মনে করছেন, তাদের পক্ষে কারখানা আর বন্ধ রাখা সম্ভব নয়। এরই মধ্যে প্রায় ৩৫০ কোটি ডলারের অর্ডার বাতিল হয়ে গেছে। এর ফলে যা কিছু কাজ এখনও বাকি আছে তার শর্ত পূরণে তারা অধিক তৎপর হয়েছেন। এখনও কিছু অনলাইন খুচরা ক্রেতা পোশাক কিনছে। ইউরোপ ও আমেরিকার বিভিন্ন অংশে লকডাউন শিথিল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে আবার চাহিদা বৃদ্ধি পেতে পারে।

বেক্সিমকো টেক্সটাইলসের সৈয়দ নাভেদ হোসেনের উদ্ধৃতি দিয়েছে ‘ইকোনমিস্ট’। তিনি বলেছেন, প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ কম্বোডিয়া, চীন, শ্রীলঙ্কা ও ভিয়েতনামের গার্মেন্ট কারখানাগুলো এরই মধ্যে আবার খুলে দেয়া হয়েছে। বেক্সিমকো টেক্সটাইলসে কাজ করেন ৪০,০০০ শ্রমিক। এ প্রতিষ্ঠানটি ওয়ালমার্ট ও জারা’র মতো পশ্চিমা বড় ক্রেতাদের কাছে পোশাক বিক্রি করে। সৈয়দ নাভেদ হোসেনের আশঙ্কা, যদি বাংলাদেশি সরবরাহ লকডাউনের অধীনেই রাখা হয় তাহলে ক্রেতারা অন্যকোথাও থেকে তাদের কেনাকাটা শুরু করতে পারে।

শ্রমিকদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে গাইডলাইন্স ইস্যু করেছে বিজিএমইএ। একদিকে মুখে মাস্ক পরা, হাত ধোয়া এবং শ্রমিকদের মধ্যে দূরত্ব রাখার মতো সুরক্ষামুলক ব্যবস্থা নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে, অন্যদিকে বিজিএমইএ প্রেসিডেন্ট রুবানা হক হাসপাতালের সঙ্গে চুক্তি করার চেষ্টা করছেন, যাতে কোনো গার্মেন্টকর্মী কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হলে তার চিকিৎসা নিশ্চিত করা হয়।

এদিকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, দেশের মানুষের জীবন ও জীবিকা উভয়ই ঠিক রাখতে হবে। শিল্প, কল-কারখানা বিশেষত তৈরি পোশাক খাত দীর্ঘদিন বন্ধ রাখা হলে এই শিল্প বিশ্ববাজার হারাতে পারে। এতে দেশের ভবিষ্যৎ অর্থনীতির জন্য হতে পারে হুমকি। অন্যদিকে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি না মানলে করোনার এই দুঃসময়ে মানুষের জানমালেরও ক্ষতি হতে পারে। এ কারণে সবাইকে একদিকে যেমন স্বাস্থ্যবিধির দিকে মনোযোগ দিতে হবে, অন্যদিকে অর্থনীতিরও বড় কোনো ক্ষতি হতে দেয়া যাবে না।
গত ৩ মে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ‘করোনা পরিস্থিতিতে শিল্প ও ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান চালু রাখা’ বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এসব কথা বলেন এবং তৈরি পোশাকখাত চালু রাখতে বেশ কিছু জোরোলো নির্দেশনা দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।নির্দেশনাগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো :
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও পোশাকখাতের নেতাদের সঙ্গে একটি আলাদা সমন্বয় কমিটি থাকবে। এই কমিটি পোশাক-খাতে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে কিনা তা মনিটরিং করবে।

শ্রমঘন ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর তিনটি জোনকে বিচ্ছিন্ন রাখতে হবে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত এক অঞ্চলের শ্রমিক অন্য অঞ্চলের কল-কারখানায় চলাচল করতে পারবে না। ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর থেকে বাইরের জেলায় কেউ গেলে সেখানেই তাকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

শ্রমিকদের জন্য আলাদা করে কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থা রাখতে হবে এবং শ্রমিকদের থাকা, খাওয়া ও যাতায়াতে স্বাস্থ্য সুবিধা রাখতে হবে।

এছাড়া কোনো কারখানায় বেশি মানুষ আক্রান্ত হলে সেই কারখানা সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হবে।
এদিকে লকডাউন তুলে নেয়া বা শিথিল করার বিষয়টি আলোচিত হচ্ছে আন্তর্জাতিকভাবেও। ‘ইকনমিক টাইমস’ পত্রিকা লিখেছে, আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতের বিলিয়নেয়ার ব্যবসায়ী ও সমাজসেবী, ইনফোসিস কর্তা এন আর নারায়ণমূর্তি খোলাখুলিই বলেছেন, লকডাউন তুলে না নিলে ‘করোনায় যত মানুষের মৃত্যু হবে, অনাহারে মারা যাবেন তার চেয়ে বেশি মানুষ’। সম্প্রতি শিল্পপতিদের সঙ্গে এক ভিডিও আলাপচারিতাই এমনই বার্তা দিয়েছেন ইনফোসিস কর্তা এন আর নারায়ণমূর্তি বলেন, অর্থনীতিতে গতি আনতে গেলে লকডাউন তুলে নেয়া উচিত।

একই সঙ্গে তিনি মনে করেন, অন্তত আগামী এক থেকে দেড় বছর করোনাভাইরাসের সঙ্গেই সমান্তরালভাবে জীবনযাত্রা চালিয়ে যাওয়ার অভ্যেস গড়ে তুলতে হবে ভারতবাসীকে। তিনি বলেন, ‘আমাদের মেনে নিতে হবে, করোনা ভাইরাস আমাদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রার অঙ্গ।’
দীর্ঘদিন ধরে লকডাউন চালিয়ে গেলে দুর্ভিক্ষের মতো পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়ে নারায়ণমূর্তি বলেন, ‘আমাদের জন্য যেটা গুরুত্বপূর্ণ সেটা হল, এই পরিস্থিতি (লকডাউন) আমরা দীর্ঘ দিন ধরে চালিয়ে যেতে পারব না। কারণ একটা সময় আসবে, যখন করোনায় মৃতের সংখ্যাকে ছাপিয়ে যাবে অনাহার ও অপুষ্টিতে মৃত্যু।’

এ অবস্থায় আজ এ সত্য স্পষ্ট হয়ে উঠছে যে, লকডাউন ধীরে ধীরে শিথিল করতে-করতে একেবারে পূর্ণ প্রত্যাহারের দিকে এগিয়ে যাওয়া তথা সব বন্ধ কলকারখানা খু্লে দেয়াই আজ সময়ের দাবি।

আরো পড়ুন

Lock down or open

লেখক:- আলীমুজ্জামান হারুন, সিনিয়র সাংবাদিক , স্থায়ী সদস্য জাতীয় প্রেসক্লাব,নির্বাহী সদস্য পরিবেশ সাংবাদিক ফোরাম, ও সম্পাদক Lastnewsbd.com ।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত দিন

 

মতামত দিন

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >
আর্কাইভ
মতামত
১৫ আগস্ট: নেপথ্য জানতে কমিশন চাই
।।মনজুরুল আহসান বুলবুল।। দাবিটি অনেক দিনের। বি...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • করোনায় আক্রান্ত এমপি এমএ মতিন
  • করোনায় আক্রান্ত বিরামপুর পৌর মেয়র
  • দিনাজপুরে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ২, আহত ৩

[page_polls]