করোনা : ধ্বংস দেখে ভয় কেন তার
Sunday, 26th April , 2020, 12:53 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

করোনা : ধ্বংস দেখে ভয় কেন তার



।।আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া।।

বুধবার ১৫ এপ্রিল, বাংলা নববর্ষের দ্বিতীয় দিন। ভারাক্রান্ত হদয়ে টিভির সামনে বসি। নতুন করে দু:সংবাদ শোনার জন্য মনকে প্রস্তুত করার চেষ্টা করতে থাকি। মনে পড়ে মহান সাহিত্যিক সেক্সপিয়ারের উক্তি- ‘স্যাডো কামস ফাস্ট’ অর্থাৎ- দু:সংবাদ ধেয়ে আসে। টিভি’র স্ক্রলে একের পর এক খারাপ খবর আসতে থাকে। সিলেট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দীন করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে মারা গেছেন। এই মর্মান্তিক মৃত্যুও হৃদয়কে তেমন নাড়া দেয় না। বিশ্ব জুড়ে কেবল মৃত্যু, কেবল বেদনা, কেবল কান্না। তাই কবির ভাষায় বলতে হয়, ‘জীবন যাদের দু:খে গড়া, তাদের আবার দু:খ কিসের’। সম্ভবত: শুধু এই অনুভূতি থেকেই একজন চিকিৎসকের মৃত্যুতে তেমন অস্থির ও বেদনাবিধূর হতে পারিনি। একে কেবলই এক সহজ, সরল ও স্বাভাবিক ঘটনা বলেই অনুভূত হয়েছে।
টেলিভিশনের পর্দায় আরো একটি খবর দেখতে হলো, খুবই ছোট। মনে হলো বিন্দুর মাঝে সিন্ধুর গভীরতা। এক আইন-শৃঙ্খলা কর্মকর্তা বলছেন, ‘বেশ কিছুদিন হলো সকলপ্রকার দুর্নীতি কমে গেছে, আজ দুর্নীতি কমেছে একেবার রেকর্ড পরিমাণে’। খবরটা শুনে মনটা কেমন জানি হয়ে উঠলো। তৎক্ষনাৎ বুঝে উঠতে পারলাম না। চোর, ডাকাত, বাটপার, পকেটমার সব মিলে জাতির এই ঘোরতর দুর্দিনে ভালো হয়ে গেল। আর আমাদের কিছু চিহ্নিত চোর, লোভী, অর্থলিপ্সু এই দু:সময়ে গরীবের ধান, চাল চুরি করে ঘরের পোতায় মাটি চাপা দিয়ে রাখছে। মহাকালের বক্ষে এদের জায়গা হবে কোথায়, কেবল মহান সৃষ্টি কর্তাই তা বলতে পারেন। সুদূর অতিতকাল থেকে আমরা ছিলাম এক গৌরবোদীপ্ত জাতি। ইতিহাস, ঐতিহ্য চেতনায় আমরা ছিলাম বিশ্বের বরেণ্য মানবজাতি।
অতীতে সাধারণভাবে আমরা ছিলাম একান্নবর্তী পরিবার এবং গোটা বাড়িতে ছিল কয়েকশ’ মানুষের বাস। বয়স ভেদে তাদের ছিল ভিন্ন মর্যাদা ও অবস্থান। বৃদ্ধরা ছিল একপেশে, বেশিরভাগ ছিল স্বতন্ত্র, কিশোরদের ছিল ভিন্ন আড্ডা, শিশুরা অনাবিল আনন্দ-উল্লাসে কাটিয়ে দিত তাদের সোনালী দিনগুলো। আমরা হঠাৎ করে সভ্য-ভব্য এক জাতিতে পরিণত হলাম। একসময় বাড়ির সকল ছেলে কাছারিঘরে কিংবা বড় কোন শতবর্ষী বট বৃক্ষের তলায় জড়ো হতাম। কাঠাল পাতা কেটে চোর-ডাকাত-পুলিশের খোঁজ করে সময় পার করতাম। একসময় সূর্য পশ্চিম দিকে হেলে পড়ত। এ দৃশ্য দেখামাত্রই বাড়ির দিকে ছুট দিতাম। সেখানে তখন উঠানে চলত যুবাদের অন্য ধরণের খেলা। ২০/৩০ জন মিলে প্রত্যেকের হাত উঠানে পাটি বিছিয়ে বসতাম গোলাকৃতি হয়ে। একজন লিডার (নেতা) মনোনীত হতেন। তিনি ছড়ার ছন্দে এক একটি শব্দ বলতেন। আর শেষ শব্দটি যার ভাগ্যে পড়ত তিনি আউট হয়ে যেতেন।
ছড়াটি ছিল এমন-
ইরকুরি, মিরকুড়ি চামের দারা
রবি আইল পাইট পাড়া
পাইটনার ওপর নাচে চুপা
এলপাট, দেলপাট, শ্রী হাটপাট
রাজার বউ রাঢ়ি, চিক্কন চাল কড়ি
রাম ঠেঙ্গার বাড়ি
আবলা, কাবলা নলের বাশী
নল কাটাতে একাদদশী
কেরী ভাই, কারী ভাই আপ্পন জাপ্পন
ঘরের গুষ্ঠি ব্রাম্মণ পন্ডিত।
এই পন্ডিত শব্দটা যার হাতে ছুবে তিনিই আউট হয়ে যাবে। এমন করে সাচেয়ে শেষে যার হাতে পন্ডিত শব্দটি পড়বে তিনিই উইনিয়র হবেন।
আবার ঘরের বারান্দায় চলত উঠতি ছেলে-মেয়েদের আড্ডা। এক্কা দোক্কা খেলা। সেই সংগে সূর করে গান। আর একেবারে লিলিপুটগুলো খেলতো লুডু, সাপ লুডু ইত্যাদি। কিছুক্ষণ পর শুরু হয়ে যেত মারামারি। বড়রা এসে থামাতেন।
ইতিহাসের পথচলায় কখন জানি অবস্থা পুরোপুরি ওলট-পালট হয়ে গেল। আমরা কিছুই খেয়াল করতে পারলাম না। দেখলাম না কিছুই, অথবা দেখেও না দেখার ভান করলাম। আধুনিক সভ্যতা আমাদের গ্রাস করে ফেলে রাহুর মত। যাযাবরের ভাষায়- বিছা দিয়েছে বেগ, কেড়ে নিয়েছে আবেগ, এতে আছে গতির রেশ, নেই খ্যাতির আয়েশ। আমরা হঠাৎ করে এক নব্য, ভব্য, সভ্য জাতিতে পরিণত হলাম। এরপর এই আমরাই আবার হোমড়া, চোমড়া, নোংরা জাতিতে রূপান্তরিত হলাম। গাঁও-গ্রামের সহজ সরল, সাদা-সিধে মানুষেরা ইতিহাসের বাঁকে বাঁকে এসে মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রীর লেবাস পরে সব ইতিহাস ভুল গেল। নতুন ইতিহাসের বরপুত্র সেজে অন্যরকম ভদ্র পোশাকে আপদমস্তক ঢেকে দিলাম। ছলচাতুরির কফিন দিয়ে দাফন করলাম আমাদের জাতিগত গর্ব, অহংকার ও ঐতিহ্যবোধকে।
ইতিহাস ও মানব সভ্যতার এই ঘূর্ণিপাকে শুধু ধ্বংস হয়নি আমাদের জীবন, জীবিকা ও জীবনবোধ। জাতি ভেঙ্গেছে, দেশ ভেঙ্গেছে, কুল মান ভেঙ্গেছে এমন কি সংসারও ভেঙ্গেছে। কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় দূরে থাক, আজকাল সিক্স-সেভেনের শিক্ষার্থীরা এসেও দরজার খিড়কি দিয়ে ধড়াস করে বসে পড়ে। কতরকমের ফোন- আই ফোন, এ্যনরয়েড, সামসাং। কতই না তার দাম। এর জন্য বিশেষ করে ঢাকায় গভীর রাত পর্যন্ত চলে কথাবার্তা। অথচ এক সময় বাবা-মা-মামা-মামী-চাচা-চাচীরা কাছাকাছি অবস্থান ও খাবার টেবিলে বসে পরিবারের অতীত স্মৃতি রোমন্থন করতেন। তখন নিজেদের সম্ভ্রান্ত পরিবারের আতিথেয়তার অহংকারে সবার বুকের ছাতি ফুলে উঠতো। আর এখন ভাই জানেনা অপর ভাইয়ের প্রয়োজন।
কয়েক বছর আগের ঘটনা। আমাদের একমাত্র ছেলে তাজিন শহিদ তখন আমেরিকায় থেকে লেখাপড়া এবং মাইক্রোসফটে চাকুরি করে। বয়স তখন তার ৩৫/৩৬। একদিন আমাকে ফোন করে একচোট নেয়। বলে ‘তুমি মুক্তিযোদ্ধা আমি এটুকুই জানি। কিন্তু আজ মাছরাঙ্গা টিভিতে এক ঘন্টার একটি ভিডিও দেখলাম। আমার জন্ম থেকে বর্তমান পর্যন্ত। কিন্তু তোমার মুক্তিযুদ্ধের গৌরব-গাঁথা তোমার জন্ম-মৃত্যুর মাঝপথে এসে দাঁড়িয়ে দেশমাতৃকার স্বাধীনতা অর্জনের কাহিনী তোমার মুখে শুনতে হলো একটি টিভির ভিডিও থেকে’। জবাবে আমার আত্মসমর্পণ করা ছাড়া আর কোন উপায় ছিল না। কারণ আমি আমার কমান্ডের রণাঙ্গনের কোন সাথীকেও দলবেধে পারিবারিকভাবে মুক্তিযুদ্ধের বীরত্মপূর্ণ সংগ্রামের কাহিনী বলতে শুনিনি।
আজ কদিন করোনা ভাইরাসের জন্য গৃহবন্দী হয়ে আছি। আমাদের বিবাহ হয়েছে ৪৪ বছর আগে। আজ প্রথম আমার শাশুড়ির কাছে কথায় কথায় আমার দাদা নূর আলি ভূঁইয়ার গল্প করলাম। আমার জীবনে আর কোনদিন আমার শ্বশুর বাড়ির লোকদের কাছে নিজ বংশের লোকজনের গল্প করা হয়নি। করোনা ভাইরাস গোটা বিশ্বে ঝড়-তুফান তুলেছে। এর পরিণতি কি হবে আল্লাহ ছাড়া কেউ জানে না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, এই ভাইরাসে সাড়ে ৬ কোটি মানুষ মারা যেতে পারে। গত দুটি মহাযুদ্ধে মারা গেছে ৩ কোটি মানুষ। এর বেশির ভাগই শূণ্য। আর যদি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভবিষ্যদ্বানী সত্য হয়, তবে আমরা কারা বাঁচব কারা মরব কেউ বলতে পারবে না। তবে দীর্ঘ দিন ঘরে বসে বসে কোয়ারেন্টাইনে থাকায় অনেক খোশ গল্প হবে, অনেক ইতিহাস চর্চা হবে। অনেক সুখ-দু:খের কথা সবার স্মরণে আসবে। আমার বিশ্বাস করোনা ভাইরাস কেবল বিলাপ নয়, কান্নাকাটি নয়, মুষড়ে পড়া নয়। করোনা অর্থাৎ প্রচুর সুযোগ ছাড়া সময় পাওয়া, খোশ গল্প করা, আনন্দ করা, ভালো-মন্দ খাবারের ব্যবস্থা করা ইত্যাদি।
আর একটা দু:খজনক খবর এনেছে চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা। শত চেষ্টা করেও, ট্রিলন ট্রিলন টাকা ব্যয় হলেও আজও তারা করেনাভাইরাসের প্রতিষেধক বের করতে পারেননি। চিকিৎসা শাস্ত্রে নোবেল বিজয়ীরাও এই রোগের কোন ভ্যাকসিন বা টিকা আবিষ্কার করতে পারেননি। অপরদিকে আমাদের বর্তমান পৃথিবীর বাঘাবাঘা রাষ্ট্রনায়ক. রাজা, বাদশাহ, স¤্রাট, সুলতানসহ বড় বড় বিজয়িনীর হাতে এখন রয়েরছ অফুরন্ত সময়। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট কিংবা রুশ নেতা, জার্মানীর চ্যান্সেলর প্রমুখের তাদেও দন্ত-মাজন করার সময় ছিল না। তারা কোয়ারেন্টাইন রুমে স্বাচ্ছন্দে সময় পার করেছেন। তারা যদি আজ মানব কল্যাণ বিষয়ে চিন্তা করেন, বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে লাগিয়ে দেয়া যুদ্ধ নিষ্ক্রিয় করে দেন, দেশে দেশে শত্রæতা না করেন, ধর্মে ধর্মে বিভিদ সৃষ্টি না করেন, তাদের উপরি সময় তারা যদি মানব কল্যাণে ব্যয় করেন, মানবতা ও বিশ্ব শান্তির জন্য একান্ত চিত্তে সরল মনে চেষ্টা চালান তাহলে আজকের এই মহা বিভিষিকাময় করোনা ভাইরাস হয়ত মানব সভ্যতার জন্য এক চরম প্রশান্তি বয়ে আনতে পারে।
শেখ হাসিনা দক্ষিণাঞ্চলের জনগণের উদ্দেশে ভিডিও ভাষণ দিলেন নববর্ষে। তাকে ধন্যবাদ। কারণ তিনি অন্তত: চারটি বাংলা কবিতা আবৃত্তি করেছেন। তার মধ্যে রয়েছেÑ প্রায় একশ’ বছর আগে কবিগুরু রবীন্দ্রনাাথ ঠাকুরের লেখা ‘মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা, অগ্নিস্নানে সূচি হোক ধরা’। আজ সারাবিশ্ব মহাযুদ্ধের মাঝখানে দাঁড়িয়ে কবিগুরুর লেখা শেখ হাসিনার এই কবিতায় নতুন করে বাঁচার এক পথের সন্ধান পাবে। তাই আমিও মনে করি করোনা ভাইরাস নিস্তব্ধ বিমূঢ় করে দিচ্ছে সত্য তবুও সাহস সঞ্চার করে যাতে অহংকারের সংগে বাঁচার জন্য মানব সভ্যতাকে।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত দিন

 

মতামত দিন

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

ঈদ উদযাপনের চেয়ে বেঁচে থাকার লড়াইটা এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আপনি কি একমত ?

ফলাফল দেখুন

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
করোনা ভাইরাস ডিজিজ
।।শারমিন আক্তার।।করোনা ভাইরাস ডিজিজ -২০১৯, যার অ্...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • শত্রুতার জেরে গাইবান্ধায় ৬টি গরু আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ
  • দুই লাখ টাকা জন্য গৃহবধূকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন
  • পঞ্চগড়ে দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার

ঈদ উদযাপনের চেয়ে বেঁচে থাকার লড়াইটা এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আপনি কি একমত ?

  • মতামত নাই (15%, ৯ Votes)
  • না (17%, ১০ Votes)
  • হ্যা (68%, ৪১ Votes)

Total Voters: ৬০

ত্রাণ নিয়ে সমালোচনা না করে হতদরিদ্রদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর, এই আহবানের সাথে কি আপনি একমত ?

  • মতামত নাই (4%, ২ Votes)
  • না (16%, ৮ Votes)
  • হ্যা (80%, ৪১ Votes)

Total Voters: ৫১

যাদের প্রচুর টাকা-পয়সা, ধন-দৌলতের অভাব নেই তারা কীভাবে আন্দোলন করবে? বিএনপির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদের। আপনি কি এই মন্তব্যের সাথে একমত ?

  • মতামত নাই (15%, ১০ Votes)
  • না (21%, ১৪ Votes)
  • হ্যা (64%, ৪৪ Votes)

Total Voters: ৬৮

বিএনপির কর্মীরা নেতাদের প্রতি আস্থা হারিয়েছেন,জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রবের বক্তব্যের সাথে আপনি কি একমত ?

  • মন্তব্য নেই (21%, ৩ Votes)
  • না (21%, ৩ Votes)
  • হ্যা (58%, ৮ Votes)

Total Voters: ১৪

অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে বিএসটিআই‌‌‍‍র এখন গতিশীল ফিরে এসেছে এই কথার সাথে কি আপনি একমত ?

  • হ্যা (14%, ১ Votes)
  • একমত না (29%, ২ Votes)
  • না (57%, ৪ Votes)

Total Voters:

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠ হবে বলে আপনি কি মনে করেন ?

  • মতামত নেই (13%, ৬ Votes)
  • না (43%, ২০ Votes)
  • হ্যা (44%, ২১ Votes)

Total Voters: ৪৭

দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শক্ত অবস্থান নিয়েছেন। এজন্য তার অনেক আত্মীয়-স্বজনকে গণভবনে ঢোকা বন্ধ করে দিয়েছেন। আপনি কি এই পদক্ষেপ সমর্থন করছেন?

  • মন্তব্য নাই (11%, ১১ Votes)
  • না (16%, ১৭ Votes)
  • হ্যা (73%, ৭৬ Votes)

Total Voters: ১০৪

১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, খাদ্যের মতো রাজনীতিতেও ভেজাল ঢুকে পড়েছে। আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিন ক্ষমতায় তাই এখানেও কিছু ভেজাল প্রবেশ করেছে। আপনি কি এই মন্তব্যের সাথে একমত ?

  • মন্তব্য নাই (2%, ৩ Votes)
  • না (8%, ১২ Votes)
  • হ্যা (90%, ১২৮ Votes)

Total Voters: ১৪৩

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেছেন, বিএনপি একটি বট গাছ, এ গাছ থেকে দু’একটি পাতা ঝড়ে পরলে বিএনপির কিছু যাবে আসবে না , এ মন্তব্যের সাথে কি আপনি একমত ?

  • মতামত নেই (7%, ৩ Votes)
  • না (29%, ১২ Votes)
  • হ্যা (64%, ২৭ Votes)

Total Voters: ৪২

অনেক এনজিও অসৎ উদ্দেশ্যে রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করছে বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। আপনি কি এই মন্তব্যের সাথে একমত ?

  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)
  • না (19%, ৬ Votes)
  • হ্যা (81%, ২৫ Votes)

Total Voters: ৩১

ডাক্তারদের ফি বেধে দেয়ার সরকারের পরিকল্পনার সাথে আপনি কি একমত?

  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (6%, ২ Votes)
  • হ্যা (94%, ৩০ Votes)

Total Voters: ৩২

দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়তে মন্ত্রীসভায় প্রধানমন্ত্রী যে চমক এনেছেন তাতে কি আপনি খুশি ?

  • মতামত নাই (15%, ৫ Votes)
  • না (24%, ৮ Votes)
  • হ্যা (61%, ২১ Votes)

Total Voters: ৩৪

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠ ,নিরপেক্ষ হয়েছে বলে আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • হা (100%, ০ Votes)

Total Voters:

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠ ,নিরপেক্ষ হয়েছে বলে আপনি মনে করেন ?

  • মন্তব্য নাই (9%, ২ Votes)
  • হ্যা (18%, ৪ Votes)
  • না (73%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২২

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে বলে আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (5%, ২ Votes)
  • হ্যা (34%, ১৫ Votes)
  • না (61%, ২৭ Votes)

Total Voters: ৪৪

একবার ভোট বর্জন করায় অনেক খেসারত দিতে হয়েছে মন্তব্য করে আর নির্বাচন বয়কটের আওয়াজ না তুলতে জোট নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি কামাল হোসেন, আপনি কি একমত ?

  • মতামত নাই (3%, ১ Votes)
  • না (6%, ২ Votes)
  • হা (91%, ৩২ Votes)

Total Voters: ৩৫

সংলাপ সফল হবে বলে আপনি মনে করেন ?

  • হা (13%, ২ Votes)
  • মতামত নাই (13%, ২ Votes)
  • না (74%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

  • মতামত নাই (7%, ৭ Votes)
  • না (23%, ২৩ Votes)
  • হ্যা (70%, ৭১ Votes)

Total Voters: ১০১

অাপনি কি কোটা সংস্কারের পক্ষে ?

  • মতামত নেই (3%, ১ Votes)
  • না (8%, ৩ Votes)
  • হ্যা (89%, ৩৩ Votes)

Total Voters: ৩৭

খালেদা জিয়ার মামলা লড়তে বিদেশি আইনজীবীর কোন প্রয়োজন নেই' বিএনপি নেতা আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের সাথে - আপনিও কি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ১ Votes)
  • না (27%, ৩ Votes)
  • হ্যা (64%, ৭ Votes)

Total Voters: ১১

আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিদেশিদের কোনো উপদেশ বা পরামর্শের প্রয়োজন নেই বলে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্য যৌক্তিক বলে মনে করেন কি?

  • মতামত নাই (7%, ১ Votes)
  • হ্যা (20%, ৩ Votes)
  • না (73%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব) অলি আহমাদ বলেন, এরশাদকে খুশি করতে বেগম জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের জেলখানায় নেয়া হয়েছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

  • মতামত নাই (8%, ৫ Votes)
  • না (27%, ১৬ Votes)
  • হ্যা (65%, ৩৮ Votes)

Total Voters: ৫৯

আপনি কি মনে করেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহন করবে ?

  • না (13%, ৫৪ Votes)
  • হ্যা (87%, ৩৬২ Votes)

Total Voters: ৪১৬

আপনি কি মনে করেন বিএনপির‘র সহায়ক সরকারের রুপরেখা আদায় করা আন্দোলন ছাড়া সম্ভব ?

  • হ্যা (32%, ৪৫ Votes)
  • না (68%, ৯৫ Votes)

Total Voters: ১৪০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি সম্পূর্ণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপরে নির্ভরশীল, এ বিষয়ে অাপনার মন্তব্য কি ?

  • মন্তব্য নাই (7%, ২ Votes)
  • হ্যা (26%, ৭ Votes)
  • না (67%, ১৮ Votes)

Total Voters: ২৭

আপনি কি মনে করেন নির্ধারিত সময়ের আগে আগাম নির্বাচন হবে?

  • মন্তব্য নাই (7%, ১০ Votes)
  • হ্যা (31%, ৪৬ Votes)
  • না (62%, ৯১ Votes)

Total Voters: ১৪৭

হেফাজতকে বড় রাজনৈতিক দল বানানোর চেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। আপনি কি তার সাথে একমত?

  • মতামত নাই (10%, ৩ Votes)
  • না (34%, ১০ Votes)
  • হ্যা (56%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২৯

“আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে দেশে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা কমে যাবে ”সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সাথে কি অাপনি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ৩ Votes)
  • না (32%, ১১ Votes)
  • হ্যা (59%, ২০ Votes)

Total Voters: ৩৪

আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে যারা সংগঠনের নামে দোকান খুলে বসেছে, তাদের ধরে ধরে পুলিশে দিতে হবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের আপনার প্রতিক্রিয়া কি ?

  • মতামত নাই (7%, ৩ Votes)
  • না (10%, ৪ Votes)
  • হ্যা (83%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৪২

ড্রাইভাররা কি আইনের উর্ধে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • হ্যা (14%, ৭ Votes)
  • না (84%, ৪৩ Votes)

Total Voters: ৫১

সার্চ কমিটিতে রাজনৈতিক দলের কেউ নেই- ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?

  • মতামত নাই (5%, ৩ Votes)
  • হ্যা (31%, ১৭ Votes)
  • না (64%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৫৫