পুলিশ প্রশাসনের হস্থক্ষেপে দীর্ঘদিনের বিরোধের সমাধান
Sunday, 8th May , 2016, 07:22 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

পুলিশ প্রশাসনের হস্থক্ষেপে দীর্ঘদিনের বিরোধের সমাধান



লাস্টনিউজবিডি, ০৮ মে, লক্ষ্মীপুর : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ১৫ নং লাহারকান্দি ইউনিয়নের পশ্চিম সৈয়দপুর গ্রামের বাসিন্দা অবসর প্রাপ্ত পিন্সিপ্যাল মাওঃ আমানত উল্যা ও তার ছেলে নোমান, শিব্বির, মাহামুদুল হাসানকে একই এলাকার সাবেক মেম্বার নুরুল ইসলামের পুত্র মোঃ ফারুক হোসেন গংদের মিথ্যা ষড়যন্ত্রের স্বীকার হয়ে দীর্ঘদিন যাবত চরম আতঙ্ক ও নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছিলেন।

পরে পুলিশ প্রশাসনের হস্থক্ষেপে ভোক্তভোগী ওই পরিবার মিথ্যা অপবাধের হাত থেকে রক্ষা পায়।

বিশ্বস্থ সূত্রে জানা যায়, মাও. আনামত উল্যার প্রতিবেশি মাও. জহির মাষ্টারের মেয়ে ফারুকের স্ত্রী আকলিমা বেগম ২০১৫ ইং সালের সরকারী প্রাক প্রাইমারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পাওয়ার জন্য পোষ্য কোটায় আবেদন করে লিখিত পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে।

অত:পর তার বিবাহ ও সন্তান থাকার গোপন তথ্য ফাঁস হয়ে যায়। সে মৌখিক পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে এবং আকৃতকার্য্য হয়। ফলে তার চাকরি হয় নাই ।

চাকুরী না হওয়াকে কেন্দ্র করে তথ্য ফাঁসের ব্যাপারটা মাও. আমানত উল্যাহর ছোট ছেলে নোমান কে দায়ী করে।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জহির মাষ্টারের ব্যায়াই নুরুল ইসলাম মেম্বারের ছেলে ফারুক ও সোহেল ক্ষিপ্ত হয়ে মাও. আমানত উল্যা ও তার ছেলের যাতায়াতের পথে বাঁধা দিয়ে বিভিন্ন ভাবে অকথ্য ভাষায় গাল-মন্দ করে।

একপর্যায়ে মার মুখি হয়ে প্রাণে হত্যাসহ মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করবে বলে হুমকি-ধমকি দেয়।

এতে মাও. আমানত উল্যা নিরূপায় হয়ে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। বিষয়টি সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) মোঃ নাসিম মিয়া অভিযোগটি তদন্ত করে সমাধানের জন্য গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এস আই মোঃ এহ্তেশামুল হক কে দায়িত্ব দেন।

পরে ডিবি পুলিশের এস আই মোঃ এহতেশামুল হক বিষয়টি তদন্ত করে গত রবিবার উভয় পক্ষকে ডিবি কার্যালয়ে ডেকে আনে। বৈঠকে উভয় পক্ষের স্বাক্ষ-প্রমানের ভিত্তিতে নোমানের বিরুদ্ধে তাদের আনিত অভিযোগ মিথ্যা প্রমানিত হয় ।

দায়িত্ব নিয়োজিত অফিসার কাজী মাও: তৈয়ব উল্লাকে জিঞ্জাসা করেন আকলিমার বিবাহের তারির্খ কে নিয়েছে ।

তিনি বলেন কাবিন দেওয়া হয় নাই শুধু মাত্র বিবাহের দিন তারিখ পার্শ্ববর্তী মসজিদের সাবেক ঈমাম হামিদ নিয়েছে উপস্থিত স্বাক্ষীগণ বলেন হামিদ থেকেই তথ্য ফাঁসের ঘটনাটি ঘটে।

এবং বিষয়টি নিয়ে আর কোন বাড়াবাড়ি করবে না এবং মিথ্যা হত্যা মামলা, প্রাণনাশের হুমকি দিবেনা মর্মে ২য় পক্ষের কাছ থেকে অঙ্গিকার নামায় স্বাক্ষ নেয়।

এতে পুলিশ প্রশাসনের হস্থক্ষেপে দীর্ঘদিনের বিরোধ সমাধান হয় কিন্তু এলাকায় এখনো ২ য় পক্ষ গণ এখনো নানা রকম অপপ্রচার চালিয়ে বেড়াচ্ছে। যে কোনা মুহুর্তে রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষের ঘটনায় ঘঠে যেতে পারে।

Print Friendly, PDF & Email

You must be logged in to post a comment Login

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >
আর্কাইভ
মতামত
বাংলাদেশে সাংবাদিকতার সঙ্কট ও সম্ভাবনা: বর্তমান প্রেক্ষিত
।।মনজুরুল আহসান বুলবুল।। গণমাধ্যম বা সাংবাদিকত...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ সড়ক দাবীতে কুড়িগ্রামে মানববন্ধন
  • কুড়িগ্রামে পৈতৃক সম্পত্তি রক্ষায় কৃষক পরিবারের সংবাদ সম্মেলন
  • স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে ধর্ষণ: যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

[page_polls]