বাবার যৌন লালসার শিকার কন্যা, প্রতিশোধ নিতে খুন
Sunday, 8th December , 2019, 04:49 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

বাবার যৌন লালসার শিকার কন্যা, প্রতিশোধ নিতে খুন



লাস্টনিউজবিডি, ৮ ডিসেম্বর: পালিত কন্যাকে দিনের পর দিন যৌন নির্যাতন করত পালক বাবা। এই অভিযোগে রাগে প্রতিশোধ নিল পালিত মেয়ে। প্রেমিক ও এক ব্যক্তির সাহায্যে বাবাকে খুন করে, টুকরো টুকরো করে কেটে, ট্রলিব্যাগে ভরে সমুদ্রে ভাসানোর ছক করেও, শেষপর্যন্ত পুলিশের জালে ধরা পড়ল তিন অভিযুক্ত।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুম্বইয়ের মোহিম পুলিশ স্টেশনের অন্তর্গত এলাকার।

গত সোমবার পুলিশ একটি ট্রলিব্যাগ থেকে পচাগলা অবস্থায় এক ব্যক্তির টুকরো টুকরো দেহ উদ্ধার করে। যার ভিত্তিতে খুনের মামলা রুজু করে তদন্তে নামে মোহিম থানার পুলিশ। সঙ্গে তদন্তে যোগ দেয় মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ।

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, তদন্ত শুরু করে প্রথমিক পর্যায়ে দেহবন্দি ট্রলিব্যাগ থেকে দুটি জামা, একটি সোয়েটার এবং একটি প্যান্ট উদ্ধার করে পুলিশ। একইসঙ্গে ট্রলিব্যাগে আলমোস মেন্সওয়ার নামে একটি দোকানের নাম চোখে পরে পুলিশের। যে দোকানটি কুর্লা ওয়েস্টের বেলগামি রোডে। এরপরই দোকানে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশের হাতে আসে একটি বিল। যাতে বেনেট নামে এক ব্যক্তির স্বাক্ষর দেখতে পায় পুলিশ।

আরও পড়ুন: সচিবালয়ের চারপাশে অপ্রয়োজনীয়ভাবে হর্ন বাজালে ১ মাস কারাদন্ড

এরপরই ফেসবুকে সন্ধান চালায় মুম্বাই পুলিশের সাইবার সেল। সেখানে বেনেট রেবেলো নামে এক ব্যক্তির প্রফাইল পাওয়া যায়। তার প্রফাইলে দেখা যায় ট্রলিব্যাগে যে মেরুন রং-এর সোয়েটারটি পুলিশ উদ্ধার করেছে, ঠিক সেই সোয়টারটিই পরে আছে ওই ব্যক্তি।

এরপরই ফেসবুকে দেওয়া তার ঠিকানা থেকে সান্টাক্রুজ ইস্ট থেকে ৫৯ বছর বয়সী বেনেটকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার স্বাক্ষরটিও সম্পূর্ণ মিলে যায়া।

পুলিশ জানিয়েছে, বেনেট শহরের বিভিন্ন জায়গায় হওয়া জলসার আয়োজন করে। এরপরই তাকে জেরা করে মৃত ব্যক্তির বাড়ি যায় পুলিশ। সেখানে প্রতিবেশীরা জানান, মৃত ব্যক্তি এক পালিত কন্যার সঙ্গে থাকেন। তার পালিত কন্যার বয়স ১৯ বছর। এরপই পুলিশের জালে ধরা পড়ে খুন হওয়া ব্যক্তির পালিত কন্যা আরাধ্যা জিতেন্দ্র পাটিল যিনি রাই নামে পরিচিত। সঙ্গে গ্রেফতার হয় তার নাবালক প্রেমিক।

পুলিশের জেরার মুখে প্রথমে রাই বলে বেনেট কানাডায় চলে গেছে। যদিও পরে চাপের মুখে সব তথা স্বীকার করে রাই। সে জানায়, সে তার প্রেমিকের সাহায্যে তার বাবাকে গত ২৬ নভেম্বর প্রথমে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে ও পরে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে খুন করে। সে জানায় তার পালক বাবা প্রতি দিন তার ওপর যৌন নির্যাতন চালাত। তাই তারা খুন করে তাকে। খুন করার পর সান্টাক্রুজের ফ্ল্যাটেই তিনদিন ছিল দেহ।

এরপর তারা মৃতের দেহ টুকরো টুকরো করে টেকে ট্রলিতে ভরে স্থানীয় মিঠি নদীতে ফেলে দেয়। সম্পূর্ণ কাজে তাদের সাহায্য করে বেনেট বলেও জানায় এই তরুণী। সূত্র: এই সময়।

লাস্টনিউজবিডি/নিরব

সর্বশেষ সংবাদ

Print Friendly, PDF & Email

মতামত দিন

 

মতামত দিন

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >
আর্কাইভ
মতামত
১৫ আগস্ট: নেপথ্য জানতে কমিশন চাই
।।মনজুরুল আহসান বুলবুল।। দাবিটি অনেক দিনের। বি...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • বোদায় বঙ্গমাতার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সেলাই মেশিন বিতরণ
  • বঙ্গমাতার জন্মদিন: ঠাকুরগাঁওয়ে দুস্থ ও অসহায়দের সেলাই মেশিন প্রদান
  • করোনায় আক্রান্ত এমপি এমএ মতিন

[page_polls]