•  জাপানি দুই শিশুর বাবার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন  •     •  একদিনে করোনা শনাক্ত ৩ লাখ  •     •  ১১০ টাকায় তেল বিক্রির ঘোষণা হঠাৎ স্থগিত করলো টিসিবি  •     •  তরুণরাই আনবে সোনালী ভবিষ্যৎ,তরুণদলের ভারতযাত্রা’২২ উদ্বোধনে তথ্যমন্ত্রী  •     •  কাল থেকে শুরু হচ্ছে হজের নিবন্ধন  •     •  প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের দ্বিতীয় ধাপের প্রবেশপত্র সংগ্রহের নির্দেশ  •     •  ইউএই’র নতুন প্রেসিডেন্ট শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন  •     •  দেশের সব বিমানবন্দরে বিটিভি দেখানোর নির্দেশ  •     •  পি কে হালদারের বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  •     •  মোটরসাইকেলের ত্রিমুখী সংঘর্ষে মা-মেয়েসহ নিহত ৩  •     •  ৩ দিনের রিমান্ডে পি কে হালদার  •     •  আজ শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা  •     •  পি কে হালদারকে ৩ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন  •     •  পি কে হালদারকে দেশে ফিরিয়ে আনার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  •     •  নিজেদের পালানোর পথ খুঁজুন -বিএনপিকে ড. হাছান  •     •  সিরাজগঞ্জে ২৫ হাজার লিটার তেল জব্দ, প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা  •     •  ভরিতে স্বর্নের দাম কমলো ১ হাজার ১৬৬ টাকা  •     •  বিপৎসীমার ওপরে সুরমার পানি, সিলেটে বন্যার শঙ্কা  •     •  ১৫ জুনের ইউপি ভোটে আওয়ামী লীগের প্রার্থী যারা  •     •  বিএনপির মুখে সরকার পতনের আন্দোলনের কথা মানায় না: কাদের  •  
Friday, 25th October , 2019, 04:10 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

যৌন হয়রানি ও কলকাতার সংস্কৃতিচর্চা


লাস্টনিউজবিডি, ২৫ অক্টোবর: কিছুদিন আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয় দু’টি নারীর কথা৷ তাদের মতে, নাট্য পরিচালক ও অধ্যাপক সুদীপ্ত চট্টোপাধ্যায় নাটকের মহড়ার অছিলায় অশালীন আচরণ করেন তাদের সাথে৷ উত্তরে একটি সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সুদীপ্ত জানান, যে যা ঘটেছিল তা সম্মতিবহির্ভূত ছিল না৷ এবং আসলেই এই আচরণ একটি বিশেষ ধরনের অভিনয়-পন্থা৷ সুদীপ্ত আরো বলেন যে এই বিশেষ পন্থা তিনি শিখেছিলেন তার নাট্যগুরু প্রখ্যাত অভিনেতা অজিতেশ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে৷ অজিতেশ বন্দ্যোপাধ্যায়ের দীর্ঘদিনের নাট্যসঙ্গী ও শিষ্যা মায়া ঘোষ যদিও এমন পন্থার সত্যতা নাকচ করে দেন৷ একই মত অজিতেশের অন্যান্য সঙ্গীদেরও৷ শেষ পাওয়া খবর, সুদীপ্তকে একটি এফআইআরের ভিত্তিতে গ্রেপ্তার করে পুলিশ৷ বর্তমানে তিনি পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন৷

দ্বিতীয় ঘটনাটির কেন্দ্রে বিখ্যাত বাংলা ব্যান্ড ‘মহীনের ঘোড়াগুলি’র প্রতিষ্ঠাতা সদস্য রঞ্জন ঘোষালের নাম৷ ১৬ বছর বয়েসি এক কিশোরী ফেসবুক মেসেঞ্জারে তার পাঠানো অশালীন মেসেজের স্ক্রিনশট সম্প্রতি প্রকাশ করেন সোশাল মিডিয়ায়৷ এরপর নতুন করে আলোচনায় উঠে আসে ১৫ বছর আগে রঞ্জন ঘোষালের বিরুদ্ধে ওঠা আরেকটি অভিযোগ৷ প্রথম অভিযোগকারিণী দেবলীনা মুখোপাধ্যায়, যিনি ঘটনাচক্রে লেখক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের কন্যা৷ দেবলীনা জানান যে রঞ্জনের সাথে দীর্ঘ পারিবারিক বন্ধুতা ছিল তাদের, এমনকি রঞ্জনকে ‘কাকু’ সম্বোধন করতেন তিনি৷ ২০০৪ সালে এই ঘটনার প্রেক্ষিতে আদালতের দ্বারস্থও হয়েছিলেন তিনি৷ আনন্দবাজার পত্রিকাকে বলেন তিনি, ‘‘ সেই সময় তো সোশ্যাল মিডিয়া ছিল না৷ কাউকে পাশে পাইনি৷ আমার চেনা এক জনের সঙ্গেও এমনটা করেছিলেন উনি৷

আরও পড়ুন: ‘স্বপ্নে ভালবেসে’ ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী!

সম্মতি ছাড়াই কমেডিয়ান কানিজ সুরকা-কে মঞ্চে চুম্বনের চেষ্টা করেছিলেন আরেক কমেডিয়ান অদিতি মিত্তল৷ এমনই অভিযোগ কানিজের৷ যদিও অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পর অদিতি কানিজের কাছে ক্ষমা চেয়ে বলেন, আসলে তিনি আঘাত দিতে চাননি৷

তিনিও চেপে যান৷ রঞ্জনকাকুর পরিবার ভেঙে যাবে, এমনটাই বোঝানো হয়েছিল আমাকে৷” সরকারি আইনজীবী বনাম রঞ্জনের নামী আইনজীবীর সঙ্গে পেরে ওঠেননি তিনি৷ এবং পরে মামলা তুলে নিতেও বাধ্য হন৷ যদিও রঞ্জন ঘোষালকে লিখিত ক্ষমা চাইতে হয়েছিল সেই সময়৷ ১৬ বছর বয়েসি কিশোরীর পোস্ট ছড়িয়ে পড়ার পরই ফেসবুকে এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি করেন দেবলীনা৷ তাঁর মতে, রঞ্জন একজন ‘সিরিয়াল অফেন্ডার’৷

কিন্তু সুদীপ্তর মতো অভিযোগ অস্বীকার করেননি রঞ্জন৷ ফেসবুকেই একটি পোস্টে তিনি লেখেন, ‘‘আমি জানি আমার কথায় এবং আচরণে কারুর কারুর ব্যক্তিগত সীমারেখা (personal space) লঙ্ঘন করেছি, আমি এখন তার জন্য অনুতপ্ত ও নিঃশর্তে ক্ষমাপ্রার্থী৷ আমার নিজেকে শোধরাতে হবে৷ কেউ যেন কখনো আমার সান্নিধ্যে এসে নিরাপত্তাহীনতা বোধ না করে, সে বিষয়ে এখন থেকে বিশেষভাবে যত্নবান থাকব৷”

কিন্তু আসলেই কি রঞ্জন বা সুদীপ্তর আচরণের মধ্যে কোনো নীতিগত পার্থক্য রয়েছে? নাকি দুই ক্ষেত্রেই কাজ করছে সমকালীন সমাজের কিছু নির্দিষ্ট ধারা বা ট্রেন্ড।

রঞ্জন ঘোষাল ও সুদীপ্ত চট্টোপাধ্যায় দুজনেই সমাজের শিক্ষিত, উচ্চবিত্ত বা উচ্চ মধ্যবিত্ত অংশের মানুষ৷ দুজনেই বাংলার সাংস্কৃতিক জগতের অঙ্গ হয়ে কাজ করেছেন কয়েক দশক ধরে৷ সুদীপ্ত চট্টোপাধ্যায়ের সাথে পড়াশোনার খাতিরে কাজ করার অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি, নারী স্বাধীনতা, সামাজিক কাঠামো ও বাংলায় যৌনাচারণের পরিমিতি সম্পর্কে তিনি জনসাধারনের চেয়ে বেশ অনেকটাই বেশি অ্যাকাডেমিক জ্ঞান রাখেন৷ শুধু তাই নয়, তার গোটা কেরিয়ারের সাথে যেভাবে একাত্ম হয়েছে রিচার্ড শেখনার বা জাক দেরিদার মতো ‘মুক্তমনা’ স্কলারদের নাম৷

তনুশ্রী দত্তের নির্যাতনের অভিযোগের বিষয়ে সংবাদমাধ্যমকে নানা পাটেকার বলেন, ‘‘১০ বছর আগে যা সত্য ছিল আজও তাই আছে ও আগামীতেও তাই থাকবে৷’’ তিনি আরো বলেন, ‘‘আমার আইনজীবী আমাকে বিষয়টি সম্পর্কে কথা না বলার পরামর্শ দিয়েছেন বলেই আমি নীরব৷ নইলে, প্রেসে কথা বলার কোনো সমস্যা আমার নেই৷’’ নানা পাটেকরের আইনজীবী ইতিমধ্যে তনুশ্রীকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন৷

তারপরেও কেন এমন অভিযোগ? এই অভিযোগের ধারা কি আসলেই বিচ্ছিন্ন ঘটনা? নাকি সংস্কৃতি জগতের ভেতরে প্রচলিত কোনো ট্রেন্ডের বহিপ্রকাশ?

আরও পড়ুন: দেবনাথকে স্বেচ্ছাসেবক লীগ থেকে অব্যা‌হতি

এখানে আসলে কাজ করছে খুব সহজ দু’টি বিষয়৷ প্রথম, বর্তমানে সংস্কৃতির পরিসর ও ‘অবাধ’ যৌনাচারের মধ্যে রয়েছে একটি সমান্তরাল যোগসূত্র, তা যতই জাঁদরেল ব্যক্তিত্বরা বিষয়টি এড়িয়ে যান না কেন৷ ভারতে, এমনকি বাংলাতেও, ‘কাস্টিং কাউচ’ নামের একটি প্রথা প্রচলিত আছে, যেখানে যৌন আনুকূল্যকে বেশ বহু বছর ধরেই পরিণত করা হয়েছে একটি স্বাভাবিক বাস্তবিকতায়৷ ফলে, ‘কাজ পেতে গেলে বা কাজ শিখতে গেলে কিছু কিছু যৌন ইঙ্গিতকে প্রশ্রয় দিতেই হবে’, এই ধারণা বাস্তবে পুরোপুরি ফেলনা নয় মোটেই৷ সংস্কৃতি জগতকে যদি পুরোদস্তুর পেশাদারিত্বের জায়গায় নিয়ে যেতে হয়, তবে অন্যান্য কর্মক্ষেত্রের মতো সেখানেও নিশ্চিত করতে হবে কিছু সীমারেখা৷ প্রয়োজনে আনতে হবে ‘বিশাখা গাইডলাইনস’র মতো নির্দিষ্ট আইনও৷

দ্বিতীয়ত, সোশাল মিডিয়া ও পরবর্তীতে মিডিয়া ট্রায়ালের রীতি গত কয়েক বছরে বর্তমান জীবনের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হয়ে উঠেছে৷ ফলে, অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগ, ক্ষমা প্রার্থনা বা বিচারকার্যও হয়ে পড়েছে আন্তর্জালনির্ভর, যা আরো বেশি করে চোখে আঙুল দিয়ে বুঝিয়ে দেয় যে, অভিযোগ তোলা বা দায় এড়ানো কোনোটাই এখন আর আইননির্ভর নয়৷ যৌন হয়রানির মতো গুরুতর অভিযোগের উত্তরে দুই-এক মাসের জন্য ফেসবুক প্রোফাইল ‘ডিএক্টিভেট’ করে দেওয়াই এখন দ্রুত সমাধান৷ বা নিদেনপক্ষে এক-দুটো ক্ষমাপ্রার্থী স্ট্যাটাস, ব্যস৷

হয়তো ২০০৪ সালে সোশাল মিডিয়ার এত জোর ছিলনা বলেই রঞ্জন ঘোষাল সেই যাত্রায় আইনী মারপ্যাঁচে পড়তে বাধ্য হয়েছিলেন, যা এইবারের মতো তার কপালে নেই এখন পর্যন্ত৷ ফেসবুকে ক্ষমা চাওয়া হয়ে গেছে তার৷ উল্টোদিকে, অন্য অভিযোগকারিণী আইনের ওপর আস্থা রেখেছিল বলেই হয়ত সুদীপ্ত চট্টোপাধ্যায় আজ কারাবন্দি৷

আমার মতে, কলকাতায় এই দ্বিতীয় দফার ‘মিটু’ ঝড় থেকে উঠুক দু’টি দাবি৷ এক, সংস্কৃতি জগতের আনাচে কানাচে গজিয়ে ওঠা এই ‘কাস্টিং কাউচ’ ও সীমালঙ্ঘনের প্রতি সহনশীলতা অবিলম্বে বন্ধ হোক৷ বন্ধ হোক অল্পবয়েসি সংস্কৃতিকর্মীদের অসহায়ত্ব ও আর্থিক দুর্বলতার সুযোগে তাদের হেনস্থার স্বাভাবিকীকরণ৷ দুই, ফেসবুকে লেখা হোক হয়রানির জবানবন্দি, কিন্তু আইনের সাথে এক পর্যায়ে তাকে না রেখে৷ যৌন হয়রানিকে মোকাবিলা করতে আইনই হোক মূল হাতিয়ার, দিনে ১৫০ রুপিতে হাতের মুঠোয় পাওয়া এক জিবি ইন্টারনেট নয়৷ সূত্র: ডয়চে ভেলে।

লাস্টনিউজবিডি/নিরব

সর্বশেষ সংবাদ

আপনার মতামত দিন
Print Friendly, PDF & Email
youtube
youtube
পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
islame bank
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ভিসা প্রথা তুলে দেওয়া উচিত বলে মনে করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, আপনি কি একমত ?

View Results

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
IBBL-Web-Ad-Option-6.gif
মতামত
বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার অর্থনৈতিক বাস্তবতা
।। ড. আতিউর রহমান ।। শ্রীলংকা যে অর্থনৈতিক...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • বিয়ের দাবীতে শিক্ষকের বাড়িতে ছাত্রীর অনশন
  • চেতনানাশক খাইয়ে যুবকের গোপনাঙ্গ কর্তন, মালামাল লুট
  • নিজের মেয়েকে যৌন হয়রানির অভিযোগে বাবা গ্রেপ্তার

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ভিসা প্রথা তুলে দেওয়া উচিত বলে মনে করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, আপনি কি একমত ?

  • হ্যা (69%, ৭৫ Votes)
  • না (28%, ৩০ Votes)
  • মতামত নাই (3%, ৩ Votes)

Total Voters: ১০৮

Start Date: ডিসেম্বর ৬, ২০২১ @ ১০:১৮ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

অ্যালার্জি আছে এমন কারো করোনা টিকা নেওয়া উচিত নয় বলেছেন ব্রিটেনের নিয়ন্ত্রক সংস্থা এমএইচআরএ। আপনি কি এর সাথে একমত?

  • হ্যা (59%, ১০৭ Votes)
  • না (26%, ৪৭ Votes)
  • মতামত নাই (15%, ২৬ Votes)

Total Voters: ১৮০

Start Date: ডিসেম্বর ৯, ২০২০ @ ৮:২১ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচি মনে করেন আসন্ন ‘বড় দিন’ মহামারির জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। আপনি কি তার এই মন্তব্যকে যথাযোগ্য মনে করেন?

  • হ্যা (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • মতামত নাই (100%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ৮, ২০২০ @ ২:০৩ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

জার্মানির বার্লিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গেছে, নাক দিয়েও মস্তিস্কে করোনা হানা দেয়। আপনি কি মনে করেন মস্তিস্কে করোনার আক্রমণ রক্ষার্থে মাস্ক ই যথেষ্ট?

  • হ্যা (75%, ৬ Votes)
  • না (13%, ১ Votes)
  • মতামত নাই (12%, ১ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ২, ২০২০ @ ৩:১৯ অপরাহ্ন
End Date: No Expiry

মডার্নার, ফাইজারের করোনা ভাইরাসের টিকার মধ্যে মডার্নার টিকার উপর কি আপনার আস্থা বেশি ?

  • মতামত নাই (100%, ১ Votes)
  • হ্যা (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)

Total Voters:

Start Date: ডিসেম্বর ২, ২০২০ @ ৯:১৯ পূর্বাহ্ন
End Date: No Expiry

 Page ১ of ৩  ১  ২  ৩  »