বেডরুমের অন্তরঙ্গ মুহূর্ত
Friday, 14th December , 2018, 09:24 am,BDST
Print Friendly, PDF & Email

বেডরুমের অন্তরঙ্গ মুহূর্ত



লাস্টনিউজবিডি,১৪ ডিসেম্বর:সুখী বিবাহ জীবনের নেপথ্যে বেডরুমের ভূমিকাকে কিন্তু কখনই অস্বীকার করা যায় না। বেডরুম হল ঘরের মধ্যে সেই জায়গা, যেখানে আপনি মন খুলে আপনার সঙ্গী বা সঙ্গীনির সঙ্গে বিলীন হয়ে যেতে পারেন। দম্পতির মধ্যেকার বোঝাপড়া, ভালবাসা, একসঙ্গে পথ চলার অঙ্গীকার- সবটার মূলেই প্রাথমিকভাবে রয়েছে বেডরুম। এখান থেকেই পথ চলা শুরু করে সম্পর্কগুলো ধীরে ধীরে পরিণতি পায়।

তাই বাড়ির বেডরুম এবং সেখানে কাটানো প্রতিটা মুহূর্তকে একটু বেশিই গুরুত্ব দেওয়া উচিৎ। এখানে আপনার জন্য রইল এমন ৫টি টিপস্ যা আপনার সুখী জীবনের অন্তরঙ্গ মুহূর্তগুলিকে আরও রঙিন করে তুলবে।

পজিশনই সর্বেসর্বা। বিছানায় শরীরি খেলায় শেষ কথা বলে পজিশনই। আর এই পজিশনে একটু অ্যাডভেঞ্চারের ছোঁয়া লাগলে ক্ষতি কী। তবে, ‘ফিফটি শেডস অব গ্রে’র মতো ততটাও দুঃসাহসিক না হলেও চলবে। শুধুমাত্র পজিশনে খানিক রদবদল আনলেই কিন্তু খেলা ঘুরে যেতে পারে। তার জন্য বেশি কষ্টেরও প্রয়োজন নেই। কেন না ইন্টারনেট ঘাঁটলেই পেয়ে যাবেন পজিশনের বিবিধ ভাণ্ডার।

ম্যানফোর্স টিপস: ‘ক্রাউঞ্চিং টাইগার’ পজিশন কিন্তু বেশ কার্যকরী। দুঃসাহসিকও বটে! হাঁটুর উপর ভার দিয়ে বিছানায় শরীর এলিয়ে দিন। আপনার সঙ্গীনিকে থাকবেন আপনার দিকে মুখ করে স্কোয়াট পজিশনে। এই পজিশনে থাই মাসল-এ একটু চাপ লাগতে পারে। তবে ততটাও কঠিন নয় এই পজিশন। সেই সঙ্গে ম্যানফোর্সের ডটেড কন্ডোম ব্যবহার করতে ভুলবেন না যেন।

খেলা আর খেলাঘর

খেলাই তো সব। আর সেই খেলা যদি বিছানায় হয়, তবে সেখানে একটু বেশিই মনঃসংযোগ আবশ্যিক। দু’জনে মুখোমুখি বসে, নিজেদের নিয়ে আলোচনা, কিংবা রঙিন কল্পনা থেকে শুরু করে কিছু ব্যক্তিগত খুনসুঁটি বা সাহসী পদক্ষেপ – এই সব কিছুই অন্তরঙ্গ জীবনে পরিবর্তন আনতে সক্ষম। সঙ্গীনির চুল নিয়ে খেলুন। কিংবা একটা সুন্দর ম্যাসাজ। দেখবেন, সমস্ত কিছু যেন নিমেষে ঠিক হয়ে গিয়েছে। অন্তরঙ্গ মুহূর্তগুলিকে আরও সুন্দর ও রোমাঞ্চকর করে তুলতে সাহায্য নিতে পারেন বাজারচলতি কিছু খেলনারও।

ম্যানফোর্স টিপস: সামান্য তাস দিয়েও বাজিমাত করা যায় কখনও কখনও। প্রতিটা গ্রুপের কার্ডের জন্য আলাদা অর্থ রাখুন। যেমন, হার্টের জন্য চুম্বন, স্পেডস-এর জন্য ম্যাসাজ ইত্যাদি। আর কার্ডের নম্বর ঠিক করে দেবে, কত সময় ধরে আপনি সেই কাজটি করবেন। ব্যাস, খেলতে শুরু করুন। আর মাতিয়ে তুলুন আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে।

প্রকৃতির সঙ্গে বিলীন হয়ে যান

আপনি, আপনার সঙ্গী বা সঙ্গীনি এবং প্রকৃতি। এই তিনে মিলেমিশে এক হয়ে যান। কথায় আছে প্রকৃতির থেকে বেশি কেউ আপনাকে ভালবাসতে পারে না। সত্যিই তো! গাছের ছায়ায় বসে মনের মানুষের সঙ্গে এক হয়ে যাওয়া, কিংবা দূরে কোথাও ঘুরতে গিয়ে তাবুর মধ্যে অন্তরঙ্গতা কিংবা বৃষ্টির মধ্যে শরীরি খেলায় মেতে ওঠার মধ্যে সবসময়েই এক আলাদা আনন্দ লুকিয়ে থাকে।

ম্যানফোর্স টিপস: বৃষ্টির মধ্যে ঘরের বাইরে বা ছাদে চলে যান। বৃষ্টির প্রতিটা ফোঁটাকে অনুভব করুন। ছোটবেলার বৃষ্টির মধ্যে খেলার স্মৃতিগুলিকে আরও একবার ফিরিয়ে আনুন। ভেজা শরীর, ভেজা জামা-কাপড়ের তোয়াক্কা না করেই ঢুকে পড়ুন বেডরুমে এবং মেতে উঠুন শরীরি খেলায়। সঙ্গে ম্যানফোর্সের ফ্লেভার্ড কন্ডোমের প্যাকেট। দেখবেন, ঘরের তাপমাত্রা এক ধাক্কায় কয়েক ডিগ্রি সেলসিয়াস বেড়ে গিয়েছে।

হাতকড়ায় বিছানাবন্দি

সমীক্ষা বলছে বাজারচলতি সেক্স টয়গুলির মধ্যে দম্পতিদের সব থেকে জনপ্রিয় হল হাতকড়া। হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন। এ হাতকড়া কয়েক মুহূর্তে যৌনজীবনের আনন্দকে কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেয়। অনেকেই ভাবতে পারেন, এটা কর্তৃত্ববাদী চিন্তাধারার পরিস্ফুটন বা প্রতিফলন। সে যাই হোক না কেন, যৌনজীবনে এহেন পন্থা অবলম্বনের মজাই আলাদা। এই হাতকড়া কিন্তু ফ্যান্টাসি ও বাস্তবকে এক চৌকাঠে নিয়ে আসতে পারে। আর যদি হাতকড়া না থাকে, তবে ব্যবহার করা যেতে লম্বা কাপড়।

ম্যানফোর্স টিপস: হাতকড়া ব্যবহার করার জন্য মিশনারি পজিশন হল সবথেকে উপযুক্ত। সঙ্গী বা সঙ্গীনিকে বিছানায় শুইয়ে হাত দু’টিকে মাথার উপর তুলে হাতকড়া লাগিয়ে দিন। সম্ভব হলে পা দু’টিও বেঁধে দিন কাপড় দিয়ে। এরপর মেতে উঠুন শরীরি খেলায়। আর একটু উষ্ণতা চাইলে ব্যবহার করুন ম্যানফোর্সের চকোলেট ফ্লেভার্ড কন্ডোম।

বেডরুমে বাজিমাতের জন্য কয়েকটা জিনিস অবশ্যই মাথায় রাখা দরকার। মনে রাখবেন, তাড়াহুড়ো কিন্তু সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। তাই সঙ্গী বা সঙ্গীনির সঙ্গে প্রথমে বেশ কিছুটা সময় কাটান। তার সঙ্গে গল্প করুন। তাঁকে ভিতর থেকে চিনুন। তার পরে ধীরে ধীরে ক্লাইম্যাক্সে পৌঁছান।

লাস্টনিউজবিডি/সামী

Print Friendly, PDF & Email

You must be logged in to post a comment Login

পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >
আর্কাইভ
মতামত
বাংলাদেশে সাংবাদিকতার সঙ্কট ও সম্ভাবনা: বর্তমান প্রেক্ষিত
।।মনজুরুল আহসান বুলবুল।। গণমাধ্যম বা সাংবাদিকত...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসের য...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • কুড়িগ্রামে বাংলাদেশ রেলওয়ে ফ্যানস ফোরামের বৃক্ষরোপন
  • বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ সড়ক দাবীতে কুড়িগ্রামে মানববন্ধন
  • কুড়িগ্রামে পৈতৃক সম্পত্তি রক্ষায় কৃষক পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

[page_polls]