Saturday, 18th August , 2018, 01:25 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

মিনারেল ওয়াটার কতটা বিশুদ্ধ?



লাস্টনিউজবিডি,১৮ আগস্ট,নিউজ ডেস্ক: বেশ কয়েক বছর ধরে প্রায় সব ধরনের খাবারে ভেজাল মিশ্রণ যেন অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে। মাছ, মাংস থেকে শুরু করে ভোজ্যতেল, তরল দুধ, মসলার গুঁড়া, শাকসবজি, ফলমূল এমনকি শিশুদের খাবারেও পাওয়া যাচ্ছে ভেজাল। ভেজাল মিশ্রিত খাবার খেয়ে দিন দিন মানুষের স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ছে। বেশি লাভের আশায় একশ্রেণির অসৎ মানুষ নিজেদের পাশাপাশি ক্ষতি করছে গোটা জাতির। ভেজাল খাবার, ওষুধ এবং ভেজাল পানীয়জল প্রতিরোধে বিভিন্ন সেমিনার, প্রতিবাদ মিছিল এবং মোবাইল কোর্ট, জরিমানাসহ বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হলেও কোনোভাবেই খাদ্যে ভেজাল মেশানো প্রতিরোধ করা যাচ্ছে না। অনুসন্ধান করতে গিয়ে খাবারে ব্যাপকহারে ভেজাল ও বিষাক্ত রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহারের আলামত পাওয়া গেছে।

পানির অপর নাম জীবন। আর সে জীবন নিয়েই চলছে প্রতারণা। বিভিন্ন নামে ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় শতাধিক পানি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান রয়েছে। কিন্তু অধিকাংশ মিনারেল ওয়াটার কোম্পানির বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, এরা ওয়াসার পানি বোতলজাত করে নাম দেয় মিনারেল ওয়াটার। এছাড়া একটি অসৎচক্র কোম্পানির বোতল নকল করে তাতে ওয়াসার পানি ঢেলে বিক্রি করছে মিনারেল ওয়াটার নাম দিয়ে। বেশিরভাগ মিনারেল ওয়াটারে পাওয়া যাচ্ছে মাত্রাতিরিক্ত জীবাণু। এসব পানিতে লেড, ক্যাডমিয়াম ও জিঙ্ক উপাদান বোতলের গায়ে উল্লিখিত স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী পরিমাণমতো নেই।

জানা যায়, ওয়াসার ট্যাপের পানি দিয়ে জার ধুয়ে সেই জারে ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে ছাঁকনি দিয়ে ছাঁকা পানি। ফিল্টার পানি হিসেবে এক-দুই টাকায় কিনে পিপাসা মেটান তৃষ্ণার্ত মানুষ। কিছু পানির বোতলের তলায় টুকরো টুকরো বরফ দেখতে পাওয়া গেছে এমন ঘটনাও ঘটেছে। অনেক বাসযাত্রী ঠা-া পানি হিসেবে এসব পানি কিনে খাচ্ছেন, বাচ্চাদেরও খাওয়াচ্ছেন। খুচরা বিক্রিত পানির বোতলগুলোয় অনেক সময়ই পাওয়া যায় ময়লা, শ্যাওলা বা ভেতরে অস্বচ্ছ পানি। ক্রেতারা অভিযোগ করলে দোকানি জোর গলায় প্রতিবাদ করেন, বড় ব্র্যান্ডের লেবেল লাগানো, বিএসটিআই’র অনুমতিপ্রাপ্ত। অনুসন্ধানে দেখা গেছে, ব্র্যান্ডেড পানির বোতলের গায়ে সংমিশ্রিত উপাদান সম্পর্কে বিস্তারিত লেখা থাকে। বোতল, জার ও প্লাস্টিক প্যাকেটের পানিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা নির্ধারিত আয়রণ, পিএইচ, ক্লোরিন, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম আছে নামকাওয়াস্তে। অভিযোগ রয়েছে, যথাযথভাবে ফিল্টারেশনও (ছাঁকন প্রক্রিয়া) অনুসরণ করা হচ্ছে না।

এভাবে অবৈধ পানি প্রক্রিয়াজাত প্রতিষ্ঠানে ভরে গেছে মহানগরী ঢাকা। রাজধানীর আনাচে-কানাচে গড়ে উঠেছে অনুমোদনহীন এসব কারখানা। এদের কারোরই নেই বিএসটিআইর অনুমোদন। ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে কোনো মতে পানি শোধনের যন্ত্র স্থাপন করেই নোংরা পরিবেশে চলছে ব্যবসা। বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানেই নেই রসায়নবিদ ও পরীক্ষাগার। খনিজ পানি উত্তোলনের পর তা শোধন করে জারে ভরার শর্ত থাকলেও ওয়াসার পানিই জারে ভরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সরবরাহ করা হচ্ছে। এভাবেই ভোক্তাদের সঙ্গে চলছে প্রতিনিয়ত মিনারেল ওয়াটার প্রতারণা। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রাজধানীর মিরপুর, তোপখানা রোড, রমনা, রাজারবাগ, মানিকনগর, রামপুরা-বনশ্রীসহ বিভিন্ন এলাকায় অসংখ্য পানি প্রক্রিয়াজাত কারখানা গড়ে উঠেছে। কিন্তু এসব প্রতিষ্ঠানের মালিকরা কোনোরকম নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই চুটিয়ে ব্যবসা করছেন।

সদরঘাট এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, মিনারেল ওয়াটারের আধা, এক ও দুই লিটারের বোতলগুলোতে ওয়াসার পানি ভরে বিক্রি করছে ছিন্নমূল শিশুরা। দাম নিচ্ছে ১০ থেকে ২০ টাকা। কেবল সদরঘাট নয়, রাজধানীর বিভিন্ন টার্মিনালের বাস ও ট্রেনযাত্রীদের কাছেও বিক্রি করা হচ্ছে ওয়াসার পানি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, রাজধানীর ১০৩/৫ মানিকনগরের বিএম পিওর ড্রিংকিং ওয়াটার নামের প্রতিষ্ঠানে ওয়াসার পানিই জারে ভরে বাজারজাত করছে। কারখানায় নামমাত্র একটি পরীক্ষাগার থাকলেও সেটিতে জমে আছে ধুলোর স্তর। পরীক্ষাগারটি ব্যবহৃত হচ্ছে স্টোররুম হিসেবে।

বিএসটিআই সূত্র জানায়, বাজারজাত করা পানি অবশ্যই খনিজ পানি হতে হবে। পাশাপাশি কারখানায় অবশ্যই রাসায়নিক পরীক্ষাগার ও রসায়নবিদ থাকতে হবে। থাকতে হবে পানির ক্ষারত্বের মান নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা। জারগুলো হতে হবে পরিচ্ছন্ন। পাশাপাশি মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ, বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠানের নাম, ঠিকানা এসব লেখা থাকতে হবে। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এসব নিয়ম মানা হচ্ছে না বলে জানায় বিএসটিআই কর্তৃপক্ষ। তারপরও এ পানি প্রতি জার ৩০ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। একই পানি বিভিন্ন খাবার হোটেলে প্রতি গ্লাস বিক্রি হচ্ছে এক থেকে দুই টাকায়।

অনুমোদন ছাড়া পানি বিক্রির অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছে বিএসটিআই। সম্প্রতি বিএসটিআইর ভ্রাম্যমাণ আদালত তোপখানা রোডের লিনুকা পিওর ড্রিংকিং ওয়াটার, রাজারবাগ সার্কুলার রোডের নীলগিরি মার্কেটিং কোম্পানি, রামপুরা বনশ্রীর একুয়া স্টার ড্রিংকিং ওয়াটার, পুরানা পল্টনের মাসাফি ড্রিংকিং ওয়াটার, মিরপুরের রুফু ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কোম্পানি, ঢাকা ফুড অ্যান্ড বেভারেজ করপোরেশন, হিমেল ড্রিংকিং ওয়াটার এন্টারপ্রাইজে অভিযান চালান। বিএসটিআইর লাইসেন্স ছাড়া পানি বিক্রি ও বিতরণের জন্য জরিমানা করা হয় এসব প্রতিষ্ঠানকে। কোনো কোনোটি সিলগালা করে দেওয়া হয়; কিন্তু ওই অভিযানের পরও থেমে নেই তাদের প্রতারণার ব্যবসা। পানি বাজারজাতকরণ প্রতিষ্ঠানের মালিকদের সঙ্গে কথা বললে তারা ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে ব্যবসা শুরুর কথা জানান। ওয়াসার পানিই প্রক্রিয়াজাত করে বাজারজাত করার কথাও স্বীকার করেছেন একাধিক ব্যবসায়ী। তবে বিএসটিআইর লাইসেন্স না নিয়ে কেন ব্যবসা শুরু করেছেন সে ব্যাপারে জানতে চাইলে কোনো উত্তর দিতে পারেননি তারা।

লাস্টনিউজবিডি/আনিছ

Print Friendly, PDF & Email
Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed

diamond world
Rupali bank ltd
exim bank
Lastnewsbd.com
পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

ফলাফল দেখুন

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
সংবাদ সম্মেলনে কেন এত চাটুকারিতা
।।নঈম নিজাম।। সংবাদ সম্মেলনে একজন সংবাদকর্মীর ক...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
দিল্লীর খাদ্যজাত পন্য মেলায় ভারত-বাংলাদেশ চেম্বারকে অামন্ত্রন
লাস্টনিউজবিডি,৩রা সেপ্টেম্বর,নিউজ ডেস্ক: ট্রেড কাউ...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • রানীশংকৈল অনলাইন জার্নালিষ্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃত্বে আকাশ-শাওন
  • দিনাজপুর দক্ষিন জেলা জামায়াতের আমীর আটক
  • সাইকেলে ৬৪ জেলা ভ্রমণ করলেন ঠাকুরগাঁওয়ের আহসান হাবিব

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • না (28%, ১৩ Votes)
  • হ্যা (70%, ৩৩ Votes)

Total Voters: ৪৭

অাপনি কি কোটা সংস্কারের পক্ষে ?

  • মতামত নেই (3%, ১ Votes)
  • না (8%, ৩ Votes)
  • হ্যা (89%, ৩৩ Votes)

Total Voters: ৩৭

খালেদা জিয়ার মামলা লড়তে বিদেশি আইনজীবীর কোন প্রয়োজন নেই' বিএনপি নেতা আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের সাথে - আপনিও কি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ১ Votes)
  • না (27%, ৩ Votes)
  • হ্যা (64%, ৭ Votes)

Total Voters: ১১

আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিদেশিদের কোনো উপদেশ বা পরামর্শের প্রয়োজন নেই বলে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্য যৌক্তিক বলে মনে করেন কি?

  • মতামত নাই (7%, ১ Votes)
  • হ্যা (20%, ৩ Votes)
  • না (73%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব) অলি আহমাদ বলেন, এরশাদকে খুশি করতে বেগম জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের জেলখানায় নেয়া হয়েছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

  • মতামত নাই (8%, ৫ Votes)
  • না (27%, ১৬ Votes)
  • হ্যা (65%, ৩৮ Votes)

Total Voters: ৫৯

আপনি কি মনে করেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহন করবে ?

  • না (13%, ৫৪ Votes)
  • হ্যা (87%, ৩৬২ Votes)

Total Voters: ৪১৬

আপনি কি মনে করেন বিএনপির‘র সহায়ক সরকারের রুপরেখা আদায় করা আন্দোলন ছাড়া সম্ভব ?

  • হ্যা (32%, ৪৫ Votes)
  • না (68%, ৯৫ Votes)

Total Voters: ১৪০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি সম্পূর্ণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপরে নির্ভরশীল, এ বিষয়ে অাপনার মন্তব্য কি ?

  • মন্তব্য নাই (7%, ২ Votes)
  • হ্যা (26%, ৭ Votes)
  • না (67%, ১৮ Votes)

Total Voters: ২৭

আপনি কি মনে করেন নির্ধারিত সময়ের আগে আগাম নির্বাচন হবে?

  • মন্তব্য নাই (7%, ১০ Votes)
  • হ্যা (31%, ৪৬ Votes)
  • না (62%, ৯১ Votes)

Total Voters: ১৪৭

হেফাজতকে বড় রাজনৈতিক দল বানানোর চেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। আপনি কি তার সাথে একমত?

  • মতামত নাই (10%, ৩ Votes)
  • না (34%, ১০ Votes)
  • হ্যা (56%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২৯

“আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে দেশে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা কমে যাবে ”সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সাথে কি অাপনি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ৩ Votes)
  • না (32%, ১১ Votes)
  • হ্যা (59%, ২০ Votes)

Total Voters: ৩৪

আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে যারা সংগঠনের নামে দোকান খুলে বসেছে, তাদের ধরে ধরে পুলিশে দিতে হবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের আপনার প্রতিক্রিয়া কি ?

  • মতামত নাই (7%, ৩ Votes)
  • না (10%, ৪ Votes)
  • হ্যা (83%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৪২

ড্রাইভাররা কি আইনের উর্ধে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • হ্যা (14%, ৭ Votes)
  • না (84%, ৪৩ Votes)

Total Voters: ৫১

সার্চ কমিটিতে রাজনৈতিক দলের কেউ নেই- ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?

  • মতামত নাই (5%, ৩ Votes)
  • হ্যা (31%, ১৭ Votes)
  • না (64%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৫৫

ইসি গঠন নিয়ে রস্ট্রপতির সংলাপ রাজনীতিতে একটি ইতিবাচক মাত্রা আসবে বলে কি আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (8%, ৭ Votes)
  • না (34%, ৩২ Votes)
  • হ্যা (58%, ৫৪ Votes)

Total Voters: ৯৩

Do you support DD?

  • yes (0%, ০ Votes)
  • no (100%, ০ Votes)

Total Voters:

How Is My Site?

  • Excellent (0%, ০ Votes)
  • Bad (0%, ০ Votes)
  • Can Be Improved (0%, ০ Votes)
  • No Comments (0%, ০ Votes)
  • Good (100%, ০ Votes)

Total Voters: