Loading...
Sunday, 31st December , 2017, 11:09 am,BDST
Print Friendly, PDF & Email

আমরণ অনশনে নন-এমপিও শিক্ষকরা



লাস্টনিউজবিডি, ৩১ ডিসেম্বর, নিউজ ডেস্ক:  স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির দাবিতে টানা পাঁচ দিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাবার পরও দাবি আদায় না হওয়ায় আমরণ অনশন শুরু করেছেন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা। রবিবার সকাল ৯টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অনশন শুরু করেন তারা। নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের ব্যানারে এ কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

২৬ ডিসেম্বর থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন এমপিওবঞ্চিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা। আন্দোলনের প্রথম ৩ দিন শিক্ষকরা দিনভর কর্মসূচিস্থলে অবস্থান করেন ও রাতে ঢাকায় আত্মীয়স্বজনের বাসায় অবস্থান নেন। কিন্তু শুক্রবার সেখানে বসার পর অনেকে রাতেও অবস্থান নেন। রাজপথেই তাদের থাকা-খাওয়া চলছে। সরকারের দায়িত্বশীল কেউ আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেননি। সাড়া না মেলায় অনশন কর্মসূচিতে গেলেন তারা।

Loading...

শনিবার রাতে দেখা যায়, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা শিক্ষক-কর্মচারীরা প্রেস ক্লাবের সামনের ফুটপাতের ওপর কাগজ, কাপড় বিছিয়ে শুয়ে রয়েছেন। পৌষের ঠাণ্ডা থেকে বাঁচতে অনেকে পলিথিন নিয়েছেন। সকাল থেকেই নিজেদের দাবি-দাওয়া নিয়ে সরব হয়ে ওঠেন আন্দোলনকারীরা।

এমপিওভুক্তি, সহকারী শিক্ষকদের মতো বেতন, বাসা ভাড়া ও চিকিৎসা ব্যয় পাওয়াসহ বিভিন্ন দাবি সম্বলিত প্লাকার্ড, ফেস্টুনে ‘মা ভাত দাও’, ‘মা এমপিও চাই’ ‘করুণা নয় নিজেদের অধিকার চাই’ লেখা এমন নানা স্লোগানে সহস্রাধিক শিক্ষক-কর্মচারী এমপিওকরণের দাবিতে আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন। মাঝে মধ্যে অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে কেউ কেউ গান গেয়ে সবাইকে উৎসাহিত করছেন। নেতারা বক্তৃতা করে তাদের দাবি-দাওয়া তুলে ধরছেন।

আন্দোলনরত শিক্ষকদের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে সরকার কর্তৃক স্বীকৃত নন-এমপিও স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার সংখ্যা এখন পাঁচ হাজার ২৪২টি। এতে ৮০ হাজারের মতো শিক্ষক-কর্মচারী চাকরি করছেন। যাদের বেশিরভাগই বিনা বেতনে চাকরি চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের দীর্ঘদিনের এই বঞ্চনার সমাধানে আশ্বাস পেলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। এমন আশ্বাসে শিক্ষকরা আন্দোলন স্থগিত করলেও তাই এবার দাবি আদায় না করে রাজপথ ছাড়বেন না বলে জানান শিক্ষকরা।

আন্দোলন সম্পর্কে জানতে চাইলে ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহামুদুন্নবী ডলার বলেন, টানা পাঁচ দিন আন্দোলন চালিয়ে গেলেও আমাদের দিকে কেউ মুখ তুলে দেখছেন না। শিক্ষক-কর্মচারীরা নিজেদের অধিকার আদায়ে টানা পাঁচ দিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। সকলে অর্ধহারে-অনাহারে দিন পার করছেন। এতে অনেকে অসুস্থ হয়েও পড়ছেন। তাই বাধ্য হয়ে কাল থেকে শিক্ষক-কর্মচারীরা আমরণ অনশনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তিনি বলেন, এমনিতেই গত পাঁচদিন ধরে আমাদের খাওয়া-নাওয়া, ঘুম হারাম হয়ে গেছে। এর মধ্যে আমরণ অনশন পালনে কোনো শিক্ষক-কর্মচারীর মৃত্যু হলে তার দায়ভার সরকারকে নিতে হবে।

তিনি আরো বলেন, মানুষ গড়ার কারিগরদের এমন নাজুক অবস্থার পরও সরকার আমাদের ন্যায্য দাবি আদায়ে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। তাই জীবন গেলে যাবে তবুও আমরা এ আন্দোলন চালিয়ে যাব। আজ থেকে আমরা শিক্ষক-কর্মচারীরা আমরণ অনশনে নেমেছি।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক বিনয় ভূষণ রায় বলেন, এক অনিশ্চিত ভবিষ্যত আমাদের তাড়া করছে। তাই আমরা এবার কোনও অবস্থাতেই দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত বাড়ি ফিরে যাবো না। যতক্ষণ পর্যন্ত না আমাদের দাবি পূরণ হবে, আমাদের আমরণ অনশন কর্মসূচি চলবে।

অনশনস্থলে নওগাঁ থেকে আসা একটি স্কুলের সহকারী শিক্ষক আফজাল হোসেন বলেন, ২০০০ সাল থেকে তিনি বিনা বেতনে চাকরি করছেন। এখন আর পারছেন না। তাই এ আন্দোলনে এসেছেন। কোনো সুরাহা না হলে তিনি আর বাড়ি ফিরে যাবেন না। ঢাকায়ই কোনো চাকরি খুঁজবেন। তার মতো অনেক শিক্ষকই এ ধরনের কথা বলেছেন।

অনশনে বসা এক নারী শিক্ষক বলেন, আমরা তো কোনো বেতন পাই না। আমাদের পরিবার থেকে, সমাজ থেকে আমরা কিন্তু বিচ্যুত। আমাদের আশপাশে আরো শিক্ষকরা আছে, তারা বেতন পাচ্ছে, আমরা পাই না। তাদের কাছে আমরা কোনো সম্মান পাই না।

আরেক শিক্ষক বলেন, ভাইয়েরা আমার ভরণপোষণ করে। আমার এক ছেলে, এক মেয়ে। বউ আর আমি কোনো বেতন পাই না, তার জন্য তাদের ঘাড়ের ওপরে খাই। শ্বশুরবাড়িতে যাইতে পারি না, মানুষের মধ্যে যাইতে পারি না। খুব কষ্টে আছি।

পঞ্চাশোর্ধ্ব এক শিক্ষক বলেন, ‘আমরা অর্ধাহার, অনাহারে দীর্ঘ ১৫ বছর, ২০ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছি। একটা টাকাও আমরা বেতন পাই না। আমরা এখন মৃত্যুর মুখোমুখি পরিবার-পরিবারসহ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি আমাদের মা। আপনি আমাদের বেতন-ভাতার ব্যবস্থা করুন।’

আন্দোলনরত শিক্ষক-কর্মচারীরা বলছেন, বেতন না পাওয়ায় স্বাভাবিক শিক্ষাদান কর্মকাণ্ডও বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

আরেক শিক্ষক বলেন, আমাদের সবচেয়ে সমস্যা হচ্ছে, আমাদের যে ছেলেমেয়েগুলা আছে যারা শিক্ষাদীক্ষা গ্রহণ করছে, শিক্ষাদীক্ষা গ্রহণ করার জন্য যা প্রয়োজন তা আমরা স্বাভাবিকভাবে দিতে পারছি না। আরেক নারী শিক্ষক বলেন, গতকাল বার্ষিক পরীক্ষার রেজাল্ট দিয়েছে, অথচ আমরা এখানে রয়েছি। ১ তারিখে বই বিতরণ, অথচ আমরা এখানে। বই উৎসবে আমরা যোগ পারছি না।

লাস্টনিউজবিডি/এমবি

Print Friendly, PDF & Email
Loading...
Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed

diamond world
Rupali bank ltd
exim bank
Lastnewsbd.com
পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

একবার ভোট বর্জন করায় অনেক খেসারত দিতে হয়েছে মন্তব্য করে আর নির্বাচন বয়কটের আওয়াজ না তুলতে জোট নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি কামাল হোসেন, আপনি কি একমত ?

ফলাফল দেখুন

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
মাইনাস টু ফর্মুলা,খালেদা-তারেকবিহীন বিএনপি!
।।মহিবুল ইজদানী খান ডাবলু ।। সামরিক বাহিনীর প্র...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসে...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • ঠাকুরগাও-৩ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী আ’লীগে-৯ বিএনপিতে-৬ একক জাপা ওয়ার্কাস
  • রংপুরে ট্রাকের ধাক্কায় ইজিবাইকের ৪ যাত্রী নিহত
  • শৃঙ্খলার মধ্যে দিয়ে দল ও নির্বাচনী এলাকাকে এগিয়ে নিতে চাই: সেলিনা জাহান লিটা

একবার ভোট বর্জন করায় অনেক খেসারত দিতে হয়েছে মন্তব্য করে আর নির্বাচন বয়কটের আওয়াজ না তুলতে জোট নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি কামাল হোসেন, আপনি কি একমত ?

  • মতামত নাই (0%, ০ Votes)
  • না (0%, ০ Votes)
  • হা (100%, ৩ Votes)

Total Voters:

সংলাপ সফল হবে বলে আপনি মনে করেন ?

  • হা (13%, ২ Votes)
  • মতামত নাই (13%, ২ Votes)
  • না (74%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

  • মতামত নাই (7%, ৭ Votes)
  • না (23%, ২৩ Votes)
  • হ্যা (70%, ৭১ Votes)

Total Voters: ১০১

অাপনি কি কোটা সংস্কারের পক্ষে ?

  • মতামত নেই (3%, ১ Votes)
  • না (8%, ৩ Votes)
  • হ্যা (89%, ৩৩ Votes)

Total Voters: ৩৭

খালেদা জিয়ার মামলা লড়তে বিদেশি আইনজীবীর কোন প্রয়োজন নেই' বিএনপি নেতা আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের সাথে - আপনিও কি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ১ Votes)
  • না (27%, ৩ Votes)
  • হ্যা (64%, ৭ Votes)

Total Voters: ১১

আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিদেশিদের কোনো উপদেশ বা পরামর্শের প্রয়োজন নেই বলে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্য যৌক্তিক বলে মনে করেন কি?

  • মতামত নাই (7%, ১ Votes)
  • হ্যা (20%, ৩ Votes)
  • না (73%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব) অলি আহমাদ বলেন, এরশাদকে খুশি করতে বেগম জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের জেলখানায় নেয়া হয়েছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

  • মতামত নাই (8%, ৫ Votes)
  • না (27%, ১৬ Votes)
  • হ্যা (65%, ৩৮ Votes)

Total Voters: ৫৯

আপনি কি মনে করেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহন করবে ?

  • না (13%, ৫৪ Votes)
  • হ্যা (87%, ৩৬২ Votes)

Total Voters: ৪১৬

আপনি কি মনে করেন বিএনপির‘র সহায়ক সরকারের রুপরেখা আদায় করা আন্দোলন ছাড়া সম্ভব ?

  • হ্যা (32%, ৪৫ Votes)
  • না (68%, ৯৫ Votes)

Total Voters: ১৪০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি সম্পূর্ণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপরে নির্ভরশীল, এ বিষয়ে অাপনার মন্তব্য কি ?

  • মন্তব্য নাই (7%, ২ Votes)
  • হ্যা (26%, ৭ Votes)
  • না (67%, ১৮ Votes)

Total Voters: ২৭

আপনি কি মনে করেন নির্ধারিত সময়ের আগে আগাম নির্বাচন হবে?

  • মন্তব্য নাই (7%, ১০ Votes)
  • হ্যা (31%, ৪৬ Votes)
  • না (62%, ৯১ Votes)

Total Voters: ১৪৭

হেফাজতকে বড় রাজনৈতিক দল বানানোর চেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। আপনি কি তার সাথে একমত?

  • মতামত নাই (10%, ৩ Votes)
  • না (34%, ১০ Votes)
  • হ্যা (56%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২৯

“আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে দেশে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা কমে যাবে ”সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সাথে কি অাপনি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ৩ Votes)
  • না (32%, ১১ Votes)
  • হ্যা (59%, ২০ Votes)

Total Voters: ৩৪

আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে যারা সংগঠনের নামে দোকান খুলে বসেছে, তাদের ধরে ধরে পুলিশে দিতে হবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের আপনার প্রতিক্রিয়া কি ?

  • মতামত নাই (7%, ৩ Votes)
  • না (10%, ৪ Votes)
  • হ্যা (83%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৪২

ড্রাইভাররা কি আইনের উর্ধে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • হ্যা (14%, ৭ Votes)
  • না (84%, ৪৩ Votes)

Total Voters: ৫১

সার্চ কমিটিতে রাজনৈতিক দলের কেউ নেই- ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?

  • মতামত নাই (5%, ৩ Votes)
  • হ্যা (31%, ১৭ Votes)
  • না (64%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৫৫

ইসি গঠন নিয়ে রস্ট্রপতির সংলাপ রাজনীতিতে একটি ইতিবাচক মাত্রা আসবে বলে কি আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (8%, ৭ Votes)
  • না (34%, ৩২ Votes)
  • হ্যা (58%, ৫৪ Votes)

Total Voters: ৯৩

Do you support DD?

  • no (0%, ০ Votes)
  • yes (100%, ০ Votes)

Total Voters:

How Is My Site?

  • Excellent (0%, ০ Votes)
  • Can Be Improved (0%, ০ Votes)
  • Good (0%, ০ Votes)
  • Bad (0%, ০ Votes)
  • No Comments (100%, ০ Votes)

Total Voters: