Sunday, 29th January , 2017, 12:52 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজে নানা সমস্যায়



উজ্জ্বল রায়, লাস্টনিউজবিডি, ২৯ জানুয়ারি, নড়াইল: স্থানীয় রাজনীতিকদের উদাসীনতা ও কলেজ কর্তৃপক্ষের উদ্যোগহীনতার কারণে সমসাময়িক কলেজগুলোর চেয়ে এ কলেজটি অনেক পিছিয়ে পড়েছে এটি দেশের প্রাচীন কলেজগুলোর একটি নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের খণ্ডিত চিত্র। শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে কলেজের আরও নানা সমস্যার চিত্র পাওয়া গেল।

কলেজটির প্রতিষ্ঠার বয়স ১৩১ বছর। শিক্ষার্থী প্রায় সাড়ে ছয় হাজার, যাঁদের চার হাজারই ছাত্র। কিন্তু তাঁদের থাকার জন্য আছে মাত্র ৪০ আসনের একটি ছাত্রাবাস। স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে একের পর এক নতুন বিষয়¯ চালু করা হচ্ছে। কিন্তু শিক্ষকের পদ বাড়েনি। এমনকি পুরোনো কাঠামো অনুযায়ী শিক্ষকও এখানে নেই; চারটি বিষয়ে তো কোনো শিক্ষকই নেই।

কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ এবং এস এম সুলতান বেঙ্গল চারুকলা মহাবিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অশোক কুমার শীল বলেন, স্থানীয় রাজনীতিকদের উদাসীনতা ও কলেজ কর্তৃপক্ষের উদ্যোগহীনতার কারণে সমসাময়িক কলেজগুলোর চেয়ে এ কলেজটি অনেক পিছিয়ে পড়েছে। এখানে অধ্যক্ষরা আসেন বাইরে থেকে, কিছু দিন চাকরি করে চলে যান। কলেজের সমস্যা ও উন্নয়ন নিয়ে তাঁদের তেমন মাথাব্যথা থাকে না।

কলেজের প্রশাসনিক সূত্রে জানা গেল, নড়াইলের জমিদার রতন রায় ১৮৫৭ সালে নড়াইল শহরের রূপগঞ্জে চিত্রা নদীর পারে একটি বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। রানী ভিক্টোরিয়ার নামে বিদ্যালয়টির নাম রাখা হয় নড়াইল ভিক্টোরিয়া কলেজিয়েট ইংলিশ হাইস্কুল। ১৮৮৬ সালে এফএ (উচ্চমাধ্যমিক) কোর্স চালুর মাধ্যমে হাইস্কুল ও কলেজ হিসেবে যাত্রা শুরু হয়। এরপর ১৮৯০ সালে কলেজ ও বিদ্যালয় পৃথক করা হয়। ১৪ দশমিক ৭২ একর জায়গায় অবস্থিত এই কলেজে বর্তমানে উচ্চমাধ্যমিক ছাড়াও ১২টি বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) ও চারটি বিষয়ে স্নাতকোত্তর পড়ানো হয়।

এ ছাড়া আছে স্নাতক (পাস) কোর্স। চার বিভাগে শিক্ষক নেই পুরোনো কাঠামো অনুযায়ী কলেজে শিক্ষকের পদ আছে ৫৮টি। এর মধ্যে ১২টি শূন্য। শিক্ষক ও
শিক্ষার্থীর অনুপাত ১: ১৪১।

বিজ্ঞান বিভাগে প্রদর্শকের সব পদই শূন্য। শিক্ষকেরা বলছেন, দিন দিন শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়ছে। এ জন্য দ্রুত শিক্ষকের পদ বাড়ানো দরকার। ১৯৮৩ সালে করা প্রশাসনিক সংস্কারসংক্রান্ত এনাম কমিটির সুপারিশ ছিল যেসব বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) পড়ানো হবে, সেগুলোর প্রতিটির জন্য কমপক্ষে আটজন ও যেগুলোতে স্নাতকোত্তর পড়ানো হয় সেগুলোতে ১২ জন করে শিক্ষক থাকতে হবে। কিন্তু এই কলেজে প্রতিটি বিভাগে শিক্ষকের পদ আছে মাত্র চারজন করে। পুরো কলেজে অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ ছাড়া অধ্যাপকের আর কোনো পদই নেই।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি, ভূগোল, সমাজবিজ্ঞান ও মনোবিজ্ঞান বিষয় উচ্চমাধ্যমিকে পড়ানো হয়। কিন্তু এসব বিষয়ে কোনো শিক্ষক নেই। অন্য কলেজ থেকে ধার করে এনে এসব বিষয় পড়ানো হয়। কলেজের উপাধ্যক্ষ বরুণ কুমার বিশ্বাস ২১ জানুয়ারি বলেন, শিক্ষকের পদ বাড়ানোর জন্য দীর্ঘদিন ধরে তাঁরা মন্ত্রণালয়ে আবেদন করে যাচ্ছেন। কিন্তু কোনো সুরাহা হচ্ছে না।

শ্রেণিকক্ষ সংকট: কলেজে শ্রেণিকক্ষ আছে ২৮টি। শিক্ষকেরা বলেন, এখন কমপক্ষে ৭৫টি শ্রেণিকক্ষের প্রয়োজন। বর্তমানে স্নাতক (সম্মান) ও ¯স্নাতকোত্তরে প্রতিটি বিভাগের জন্য শ্রেণিকক্ষ আছে একটি করে। ১৬ ও ৩২টি কম্পিউটারের দুটি আধুনিক ডিজিটাল ল্যাবরেটরি থাকলেও এক বছর ধরে টেকনিশিয়ানের পদ শূন্য। একটি সমৃদ্ধ পাঠাগার আছে। কিন্তু ২৫ বছর ধরে গ্রন্থাগারিকের পদ শূন্য। সহশিক্ষা কার্যক্রম বা বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান করার জন্য কোনো মিলনায়তন নেই। বিজ্ঞানাগারে নেই প্রয়োজনীয় উপকরণ।

স্নাতকের পর দৌড়াতে হয় অন্য কলেজে: স্নাতক (সম্মান) তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী তমা খানম বলেন, মাত্র চারটি বিষয়ে স্নাতকোত্তর থাকায় অন্য আটটি বিষয়ে সম্মান শেষ করে স্নাতকোত্তর পড়তে শিক্ষার্থীদের অন্য কলেজে যেতে হয়।

কলেজের অধ্যক্ষ মুহম্মদ সামাদ উল­াহ মজুমদার বলেন, কলেজে যেসব বিষয়ে সম্মান কোর্স চালু আছে, সেগুলোতে স্নাতকোত্তর খোলার জন্য দুই বছর আগে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা হয়েছে।

আবাসন সমস্যা: কয়েকজন শিক্ষক বলেন, কলেজের একমাত্র ছাত্রাবাসে থাকার জন্য প্রতিনিয়ত শিক্ষার্থীরা আবেদন নিয়ে আসেন। কিন্তু আসন খালি না থাকায় তাঁদের জন্য কিছুই করা সম্ভব হয় না। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ছাত্রাবাসটির কয়েকজন আবাসিক ছাত্র অভিযোগ করেন, একে তো আসন কম, তার ওপর বহিরাগত ব্যক্তিরা একটি কক্ষ সব সময় দখল করে রাখেন। আবার কখনো কখনো অন্য কক্ষ থেকেও ছাত্রদের বের করে দিয়ে মাদক সেবন করেন। ছাত্রাবাসের টিভিকক্ষও তাঁদের নিয়ন্ত্রণে থাকে। প্রায় আড়াই হাজার ছাত্রীর জন্য রয়েছে ১৫০ আসনের দুটি ছাত্রীনিবাস। এর মধ্যে ভারত সরকারের সহায়তায় ৫০ শয্যার ‘ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী ছাত্রীনিবাস’ চালু হয়েছে ২০১৫ সালের জুন মাসে। ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির শ্বশুরবাড়ি এই নড়াইলে। তাঁর স্ত্রী শুভ্রা মুখার্জির বিশেষ উদ্যোগে এ ছাত্রীনিবাসটি নির্মাণ করা হয়। আর আগের ছাত্রীনিবাসের আছে ১০০ আসন। ছাত্রীনিবাসের কর্মচারী শওকত হোসেন বলেন, প্রতিদিনই ছাত্রীরা এসে আসন খালি আছে কি না খোঁজ নেন। আসন না পেয়ে পরে অনেকে ভাড়া করা মেসে থাকেন। সম্মান দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী আছিয়া খানমের বাড়ি সাতক্ষীরায়।

থাকেন পুরোনো ছাত্রীনিবাসে। তিনি বলেন, থাকার সমস্যা দেখে কিছুদিন এক বিছানায় দুজন করে থাকতেন। এভাবে থাকতে খুব কষ্ট হয়। তাই অনেকে মেসে চলে গেছেন।

আর মেসে থাকা কয়েকজন ছাত্রী বলেন, কলেজের বাইরে বসবাস করায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে হয়। আবাসন-সংকটের সঙ্গে যোগ হয়েছে যাতায়াতের সমস্যাও।

কয়েকজন শিক্ষক ও শিক্ষার্থী বলেন, অনেক ছাত্রছাত্রী নড়াইল জেলার বিভিন্ন এলাকাসহ আশপাশের জেলা থেকে যাতায়াত করেন। কিন্তু কলেজের বাস নেই। এ কারণে অনেক কষ্টে তাঁদের যাতায়াত করতে হয়। শিক্ষকদের থাকার কোনো আবাসিক ভবন নেই। একটি ডরমিটরি ছিল, তাও দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত।

লাস্টনিউজবিডি/এমএইচ

Print Friendly, PDF & Email
Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed

diamond world
Rupali bank ltd
exim bank
Lastnewsbd.com
পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

ফলাফল দেখুন

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
সংবাদ সম্মেলনে কেন এত চাটুকারিতা
।।নঈম নিজাম।। সংবাদ সম্মেলনে একজন সংবাদকর্মীর ক...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
দিল্লীর খাদ্যজাত পন্য মেলায় ভারত-বাংলাদেশ চেম্বারকে অামন্ত্রন
লাস্টনিউজবিডি,৩রা সেপ্টেম্বর,নিউজ ডেস্ক: ট্রেড কাউ...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • দিনাজপুর দক্ষিন জেলা জামায়াতের আমীর আটক
  • সাইকেলে ৬৪ জেলা ভ্রমণ করলেন ঠাকুরগাঁওয়ের আহসান হাবিব
  • পত্নীতলায় গ্রাম আদালত বিষয়ক কমিউনিটি মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • না (28%, ১৩ Votes)
  • হ্যা (70%, ৩২ Votes)

Total Voters: ৪৬

অাপনি কি কোটা সংস্কারের পক্ষে ?

  • মতামত নেই (3%, ১ Votes)
  • না (8%, ৩ Votes)
  • হ্যা (89%, ৩৩ Votes)

Total Voters: ৩৭

খালেদা জিয়ার মামলা লড়তে বিদেশি আইনজীবীর কোন প্রয়োজন নেই' বিএনপি নেতা আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের সাথে - আপনিও কি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ১ Votes)
  • না (27%, ৩ Votes)
  • হ্যা (64%, ৭ Votes)

Total Voters: ১১

আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিদেশিদের কোনো উপদেশ বা পরামর্শের প্রয়োজন নেই বলে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্য যৌক্তিক বলে মনে করেন কি?

  • মতামত নাই (7%, ১ Votes)
  • হ্যা (20%, ৩ Votes)
  • না (73%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব) অলি আহমাদ বলেন, এরশাদকে খুশি করতে বেগম জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের জেলখানায় নেয়া হয়েছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

  • মতামত নাই (8%, ৫ Votes)
  • না (27%, ১৬ Votes)
  • হ্যা (65%, ৩৮ Votes)

Total Voters: ৫৯

আপনি কি মনে করেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহন করবে ?

  • না (13%, ৫৪ Votes)
  • হ্যা (87%, ৩৬২ Votes)

Total Voters: ৪১৬

আপনি কি মনে করেন বিএনপির‘র সহায়ক সরকারের রুপরেখা আদায় করা আন্দোলন ছাড়া সম্ভব ?

  • হ্যা (32%, ৪৫ Votes)
  • না (68%, ৯৫ Votes)

Total Voters: ১৪০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি সম্পূর্ণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপরে নির্ভরশীল, এ বিষয়ে অাপনার মন্তব্য কি ?

  • মন্তব্য নাই (7%, ২ Votes)
  • হ্যা (26%, ৭ Votes)
  • না (67%, ১৮ Votes)

Total Voters: ২৭

আপনি কি মনে করেন নির্ধারিত সময়ের আগে আগাম নির্বাচন হবে?

  • মন্তব্য নাই (7%, ১০ Votes)
  • হ্যা (31%, ৪৬ Votes)
  • না (62%, ৯১ Votes)

Total Voters: ১৪৭

হেফাজতকে বড় রাজনৈতিক দল বানানোর চেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। আপনি কি তার সাথে একমত?

  • মতামত নাই (10%, ৩ Votes)
  • না (34%, ১০ Votes)
  • হ্যা (56%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২৯

“আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে দেশে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা কমে যাবে ”সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সাথে কি অাপনি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ৩ Votes)
  • না (32%, ১১ Votes)
  • হ্যা (59%, ২০ Votes)

Total Voters: ৩৪

আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে যারা সংগঠনের নামে দোকান খুলে বসেছে, তাদের ধরে ধরে পুলিশে দিতে হবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের আপনার প্রতিক্রিয়া কি ?

  • মতামত নাই (7%, ৩ Votes)
  • না (10%, ৪ Votes)
  • হ্যা (83%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৪২

ড্রাইভাররা কি আইনের উর্ধে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • হ্যা (14%, ৭ Votes)
  • না (84%, ৪৩ Votes)

Total Voters: ৫১

সার্চ কমিটিতে রাজনৈতিক দলের কেউ নেই- ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?

  • মতামত নাই (5%, ৩ Votes)
  • হ্যা (31%, ১৭ Votes)
  • না (64%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৫৫

ইসি গঠন নিয়ে রস্ট্রপতির সংলাপ রাজনীতিতে একটি ইতিবাচক মাত্রা আসবে বলে কি আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (8%, ৭ Votes)
  • না (34%, ৩২ Votes)
  • হ্যা (58%, ৫৪ Votes)

Total Voters: ৯৩

Do you support DD?

  • yes (0%, ০ Votes)
  • no (100%, ০ Votes)

Total Voters:

How Is My Site?

  • Excellent (0%, ০ Votes)
  • Bad (0%, ০ Votes)
  • Can Be Improved (0%, ০ Votes)
  • No Comments (0%, ০ Votes)
  • Good (100%, ০ Votes)

Total Voters: