Monday, 11th July , 2016, 11:26 am,BDST
Print Friendly

অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির নতুন দিগন্ত, মাতলুবের নেতৃত্বে ১৩৩ ব্যবসায়ী ভারতে



অালীমুজ্জামান হারুন,লাস্টনিউজবিডি,১১ জুলাই ঢাকা: আগামী ১৪ জুলাই কোলকাতায় বিবিআইএন বিজনেস ফোরামের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ থেকে এফবিসিসিআই‘র সভাপতি মাতলুব আহমাদ এর নেতৃত্বে ১৩৩ সদস্যের একটি ব্যবসায়ী ডেলিগেশন যাচ্ছে এই উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে। এফবিসিসিআই থেকে এত বড় বিজনেস ডেলিগেশন এটাই প্রথম । মাতলুব আহমাদের এই সফরে প্রায় ২০ জন সাংবাদিকও থাকছে তার সাথে।

বাংলাদেশ-ভুটান-ইন্ডিয়া-নেপাল এই চার দেশের ব্যবসায়ীদের নিয়ে গঠিত  (বিবিআইএন) বিজনেস ফোরাম।  এই ফোরামেরই আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হতে যাচ্ছে ভারতের কোলকাতায় ১৪ জুলাই ।

এ বিষয়ে সাড়ে ৩ কোটি ব্যবসায়ীদের নেতা এফবিসিসিআই‘র সভাপতি মাতলুব আহমাদ বলেন,  উদ্ধোধনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে  ১৫-১৭ জুলাই ভারতের শিলিগুড়িতে আয়োজন করা হয়েছে বিবিআইএন বিজনেস এক্সপো। সেখানে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ অংশ নিবেন।

আবদুল মাতলুব আহমাদ বলেন, চার দেশের মধ্যে অবাধ ব্যবসা বাণিজ্যের সম্প্রসারণ ও যোগাযোগ বৃদ্ধিতে বিবিআইএন ভূমিকা রাখবে। বাংলাদেশের পর্যটন খাতও সমৃদ্ধ হবে। আমরা প্রস্তাব করবো পঞ্চগড়ে যেন একটি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করা হয়। কারন পঞ্চগড়  ও ভারতের শিলিগুড়ি নেপালের বিরাটনগর,এবং ভুটানের ফলসিলিং এই অঞ্চলটিকে ঘিরে নতুন বিবিআইএন ইকোনমিক জোনঘেষনা করা হবে।   বাংলাদেশ থেকে ভারতের শিলিগুড়ি, ভূটান ও নেপাল কাছে। এখান থেকে যোগাযোগ খুব সহজ হবে। যোগাযোগ বৃদ্ধি পেলে বাণিজ্য ঘাটতিও কমবে। পারস্পরিক বুঝাপড়া সুবিধায় হবে। ব্যবসায়ীদের মধ্যে সু-সম্পর্ক বাড়বে বলে তিনি লাস্টনিউজকে জানান। তিনি জানান, ঘোষনা করা হবে বিবিআইএন ট্রাভেল কার্ড । যে কার্ড দেখালে ব্যবসায়ীরা  অনায়াশে এই চারদেশে যেতে পারবে।

 

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, বাংলাদেশে প্রায় ছয় থেকে সাত শত ছোট গার্মেন্টস শিল্প কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। নেপাল বর্তমানেও জিএসপি সুবিধা পাচ্ছে। তাই নেপালের বিরাটনগরে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা গার্মেন্টস কারখানা চালু করতে পারবে। সেখান থেকে জিএসপি সুবিধা নিয়ে বিদেশে রফতানি করতে পারবে। নেপালও   বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের আহ্বান জানিয়েছে।BBIN 1

মাতলুব আহমাদ জানান, ১৫ জুলাই ভারতের শিলিগুড়িতে প্রথম বিজনেস এক্সপোতে এই অর্থনৈতিক অঞ্চলে ঘোষণা দেয়া হবে হবে । ব্যবসায়ীদের প্রত্যাশা, এতে চারটি দেশের মধ্যে বাণিজ্য যেমন বাড়বে। সৃষ্টি হবে নতুন নতুন বাজার।

 

উল্লেখ্য,  ৮ জুন ২০১৫ বিবিআইএন এমভিএর (মোটর ভেহিক্যাল অ্যাগ্রিমেন্ট) খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় বাংলাদেশের মন্ত্রিসভা।

bbin

সড়কপথে সরাসরি যাত্রী ও পণ্যবাহী যান চলাচলের জন্য গত বছরের ১৫ জুন বিবিআইএন মোটরযান চলাচল চুক্তিতে স্বাক্ষর করে বাংলাদেশ, ভারত, ভুটান ও নেপাল। এই চুক্তি সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে এবার চার দেশের সীমান্তবর্তী অঞ্চলে বিনিয়োগ ও শিল্পায়নের জন্য বিবিআইএন অর্থনৈতিক অঞ্চল গঠনের লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে বিবিআইএন বিজনেস ফোরাম। পঞ্চগড় হবে এই অর্থনৈতিক অঞ্চলের সদর দপ্তর।bbin flag

বিশ্লেষকদের অভিমত, এতে চার দেশের মধ্যে আমদানি রপ্তানি বাণিজ্য যেমন অবাধ হবে তেমনি সম্ভাবনাময় এসব সীমান্ত এলাকার ব্যাপক অর্থনৈতিক উন্নয়ন হবে। তবে এ উদ্যোগে সফল করতে চার দেশের সরকারকে সমানভাবে এগিয়ে আসতে হবে বলে মনে করেন শিল্প উদ্যোক্তারা। বর্তমানে ভারতের সাথে বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ প্রায় ছয় বিলিয়ন ডলার হলেও নেপাল ও ভুটানের সাথে বাণিজ্য খুবই নগণ্য। বিবিআইএন অর্থনৈতিক অঞ্চল হলে সব দেশই লাভবান হবে বলে মনে করেন তারা।

 

Print Friendly

মতামত দিন

 

মতামত দিন

diamond world
Rupali bank ltd
exim bank
Lastnewsbd.com
পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

সার্চ কমিটিতে রাজনৈতিক দলের কেউ নেই- ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?

ফলাফল দেখুন

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
জুলাই ২০১৬
শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহস্পতি
« জুন   আগস্ট »
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মতামত
পদ্মা সেতু : ফিরিয়ে দাও আমার ১২ টি বছর
।। আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া ।। বাংলা সিনেমার রুপালি ...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
সফল হওয়ার গল্প, সাফল্যের পথ
।।আলীমুজ্জামান হারুন।। ১৯৮১ সালে যখন নিটল মটরসে...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের কোনো ছাড় নয়-নীলফামারীতে দুদক কমিশনার
  • বিয়ের দাবীতে পঞ্চম দিনের মত চলছে কলেজ ছাত্রীর অনশন
  • রাতের আধারে মাছ ধরাসহ বিষ দিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ
  • জাতীয় সংগীত,দেশাত্ববোধক গান ও দেওয়াল পত্রিকা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
  • পার্বতীপুরে যাত্রীবাহী ট্রেনে অগ্নিকাণ্ডে তদন্ত কমিটি গঠন, আটক ১

সার্চ কমিটিতে রাজনৈতিক দলের কেউ নেই- ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • হ্যা (29%, ১২ Votes)
  • না (69%, ২৮ Votes)

Total Voters: ৪১

ইসি গঠন নিয়ে রস্ট্রপতির সংলাপ রাজনীতিতে একটি ইতিবাচক মাত্রা আসবে বলে কি আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (8%, ৭ Votes)
  • না (34%, ৩২ Votes)
  • হ্যা (58%, ৫৪ Votes)

Total Voters: ৯৩

Do you support DD?

  • yes (0%, ০ Votes)
  • no (100%, ০ Votes)

Total Voters:

How Is My Site?

  • Good (0%, ০ Votes)
  • Excellent (0%, ০ Votes)
  • Bad (0%, ০ Votes)
  • Can Be Improved (0%, ০ Votes)
  • No Comments (100%, ০ Votes)

Total Voters: