Thursday, 30th June , 2016, 06:38 pm,BDST
Print Friendly, PDF & Email

ভাগ্য বাদলাতে বিদেশ গিয়ে ধর্ষণের শিকার এক নারীর গল্প



লাস্টনিউজবিডি, ৩০ জুন, ঢাকা: দুই সন্তানের জননী আয়শা (২৮) (ছদ্মনাম)। স্বামী নেশাগ্রস্ত। বাবা থেকেও নেই। আয়শার বয়স যখন তিন মাস তখন তার বাবা আরেকটি বিয়ে করে আলাদা সংসার পাতেন। জীবনের কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হয়ে ঢাকায় চলে আসেন আয়শার মা মাফিয়া। মানুষের বাসায় ছুটা বুয়ার কাজ নেন। গত ২৮ বছর ধরে তিনি এই কাজই করে চলেছেন।

এর মধ্যে আয়শাকে বিয়ে দেন বাস হেলপার তৈয়ব আলীর সঙ্গে। প্রথম দিকে সংসার ভালো চললেও কিছুদিন পর নেশায় জড়িয়ে পড়ে ওই হেলপার। আয়শার সঙ্গে খারাপ আচরণ করতে থাকে। দুই সন্তানকে নিয়ে আয়শা ফিরে আসেন তার মায়ের কাছে।

জীবনের কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হয়ে একসময় পাড়ি জমান বিদেশ। কিন্তু ভাগ্য সুপ্রসন্ন হয়নি তার। বিদেশের মাটিতে নানা নির্মমতার শিকার হন তিনি। সেই নির্মমতার মাত্রা ছিল খুবই ভয়াবহ। যার পরিণতিতে এখন তিনি শয্যাশায়ী। দীর্ঘদিন ধরে পঙ্গু। চলাফেরা করতে পারেন না। নষ্ট হয়ে গেছে একটি কিডনি। এ অবস্থায় চিকিৎসার অভাবে তিনি এখন মৃত্যু পথযাত্রী। তার জন্য কাজেও যেতে পারছেন না মা মাফিয়া। ফলে নিদারুণ কষ্টে কাটছে আয়শার দুই সন্তানসহ ৪ সদস্যের এ পরিবারের।

পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া থানার মিঠাখালী গ্রামের আয়শার মা জানান, ২৮ বছর আগে শাহিনুরের বয়স যখন তিন মাস তখন তার বাবা আরেকটি বিয়ে করে। জীবিকার তাগিদে তখন দুধের শিশুকে নিয়ে তিনি ঢাকার সায়েদাবাদ এলাকার দয়াগঞ্জে চলে আসেন। সেখানে একটি খুপড়িঘর ভাড়া নিয়ে বিভিন্ন বাসায় ছুটা বুয়ার কাজ নেন।

প্রায় ১৪ বছর আগে মেয়েকে বিয়ে দেন এলাকার তৈয়ব আলী নামে এক বাস হেলপারের সঙ্গে। সেখানে তার দুই সন্তান জন্ম নেয়ার পর তৈয়ব আলী নেশায় জড়িয়ে পড়েন। প্রায়ই মেয়ের ওপর নির্যাতন করতো সে। এক সময় দুই সন্তান নিয়ে তার এখানে চলে আসে। আয়শা সে সময় ঠোঙ্গা তৈরির কাজ করতো। মা-মেয়ের আয়-রোজগারে কোনোরকম কেটে যাচ্ছিল তাদের সংসার।

এ অবস্থায় আয়শার ওপর নজর পড়ে একই এলাকায় বসবাসকারী শরিয়তপুরের নেকাব্বর নামে এক ব্যক্তির। সে আয়শাকে বলে ‘তোমার মতো একজন সুন্দরী মেয়ে এ কাজ করলে মানায় না। তুমি বরং বিদেশ চলে যাও। সেখানে ভালো কাজ পাবা। তোমার বেতন হবে ২০-২৫ হাজার টাকা।’

প্রথমে রাজি না হলেও পরে নানা প্রলোভনে পড়ে এবং দুই সন্তানের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে বিদেশ যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। আয়শার মা তিলে তিলে জমানো ৪০ হাজার টাকা নেকাব্বরের মাধ্যমে তুলে দেয় আল রাবেতা ইন্টারন্যাশনাল নামে ঢাকার একটি রিক্রুটিং এজেন্সিতে কর্মরত সিরাজের হাতে। ওই এজেন্সি তাকে কাতার পাঠায়। সেখানে একটি বাসায় গৃহকর্মীর কাজ নেন।

আয়শা মা মাফিয়া জানান, তার মেয়ে ওই সময় জানিয়েছিল, সেখানে ভালো আছে। কাজের খুব বেশি চাপ নেই। এরই মধ্যে ঢাকা থেকে সিরাজ ফোন করে তাকে লেবাননে মোটা অঙ্কের কাজের প্রলোভন দেখিয়ে দেশে চলে আসতে বলে। সিরাজ তাকে পরামর্শ দেয় ওই বাসা থেকে পালিয়ে আসতে। যেন পুলিশ তাকে ধরে ফেলে। সে মোতাবেক পালিয়ে আসলে পুলিশ তাকে ধরে দেশে পাঠিয়ে দেয়।

কাতারে কাজ করা বাবদ সে কোনো বেতন না নিয়েই দেশে ফিরে আসে। দেশে আসার পর সিরাজ লেবানন পাঠাবো বলে আরও ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। বহু কষ্টে ধারদেনা করে ভালো আয়-রোজগারের আশায় তারা সিরাজকে ওই টাকা দেয়।

আয়শাকে বলা হয়, সেখানে তাকে টেইলারিংয়ের কাজ দেয়া হবে। কিন্তু আল রাবেতা ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি তাকে লেবানন না পাঠিয়ে ২০১৫ সালের ১৬ই সেপ্টেম্বর সিরিয়ায় পাঠিয়ে দেয়। সেখানে এক দালালের কাছে বিক্রি করে দেয়। সেখানে তাকে কোন বেতন দেয়া হতো না। প্রতিদিন ৪-৫ জন পুরুষ তার ওপর শারীরিক ও যৌন নির্যাতন চালাতো। রাজি না হলে শরীরে বিদ্যুতের শক দিতো এবং হাতের সামনে যা পেতো তাই দিয়ে মারধর করতো।

এতে করে আয়শা মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়েন। সিরিয়ায় তাকে একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। একপর্যায়ে ওই অবস্থায়ই তাকে দেশে পাঠিয়ে দেয় দালালচক্র। মাফিয়া বলেন, প্রায় চার মাস মেয়ের কোনো খোঁজ-খবর ছিল না।

গত জানুয়ারি মাসে একজন ফোন করে বলে, আয়শা হজরত শাহজালাল বিমানবন্দরে এসেছে। তখন গিয়ে দেখি মেয়ের পেট ফোলা। সারা শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন। দেখে চেনার উপায় ছিল না। সেখান থেকে নিয়ে সরাসরি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে প্রতিদিন ৪০০-৪৫০ টাকা খরচ হয়। একমাস পর আর টাকা যোগাড় করতে না পেরে বাড়িতে নিয়ে যায়। আয়শার মা বলেন, তার একটি কিডনি নষ্ট হয়ে গেছে। আরেকটি কিডনিতে ইনফেশন হয়েছে। তাছাড়া সে এখন পঙ্গু। চলাফেরা করতে পারে না। দয়াগঞ্জে একজন ডাক্তারকে দেখানো হয়। সেখানে গেলেই ৬০০ টাকা ভিজিট দিতে হয়। ইতিমধ্যে চিকিৎসা বাবদ সুদে ধারদেনা ৫ লাখ টাকা খরচ করা হয়েছে। এখন আর কোনো উপায় নেই।

তাই বাসায়ই পড়ে আছে। তার জন্য মাফিয়া বেগম নিজেও কাজে যেতে পারেন না। একদিকে মেয়ের চিকিৎসা অন্যদিকে সংসারের দৈনন্দিন খরচ। এই নিয়ে দিশেহারা তিনি। আয়শার দুই ছেলের মধ্যে বড়টার বয়স ১২ বছর আর ছোটটার বয়স ১০ বছর।

আয়শার সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তিনি বলেন, স্যার আমার কথা বলতে খুব কষ্ট হয়। বিছানা থেকে উঠতে পারি না। এদিকে আয়শাকে সিরিয়ায় পাচারকারীদের বিচার এবং ক্ষতিপূরণ দাবি করে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা হয়েছে।

এতে উল্লেখ করা হয়, মানবিক দিক বিবেচনা করে আমার ওপর নির্যাতনকারী এজেন্সির শাস্তি ও ক্ষতিপূরণ এবং সাহায্যের জন্য হস্তক্ষেপ কামনা করছি। আবেদনে সরকারি খরচে চিকিৎসা করানোর জন্যও অনুরোধ করা হয়।

লাস্টনিউজবিডি, এইচএ

Print Friendly, PDF & Email
Print Friendly, PDF & Email

মতামত দিন

 

মতামত দিন

diamond world
Rupali bank ltd
exim bank
Lastnewsbd.com
পেপার কর্ণার
Lastnewsbd.com
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন >

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

ফলাফল দেখুন

Loading ... Loading ...
আর্কাইভ
মতামত
সংবাদ সম্মেলনে কেন এত চাটুকারিতা
।।নঈম নিজাম।। সংবাদ সম্মেলনে একজন সংবাদকর্মীর ক...
বিস্তারিত
সাক্ষাৎকার
দিল্লীর খাদ্যজাত পন্য মেলায় ভারত-বাংলাদেশ চেম্বারকে অামন্ত্রন
লাস্টনিউজবিডি,৩রা সেপ্টেম্বর,নিউজ ডেস্ক: ট্রেড কাউ...
বিস্তারিত
জেলার খবর
Rangpur

    রংপুরের খবর

  • রানীশংকৈল অনলাইন জার্নালিষ্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃত্বে আকাশ-শাওন
  • দিনাজপুর দক্ষিন জেলা জামায়াতের আমীর আটক
  • সাইকেলে ৬৪ জেলা ভ্রমণ করলেন ঠাকুরগাঁওয়ের আহসান হাবিব

আপনি কি মনে করেন যে কোন পরিস্থিতিতে বিএনপি নির্বাচন করবে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • না (28%, ১৩ Votes)
  • হ্যা (70%, ৩৩ Votes)

Total Voters: ৪৭

অাপনি কি কোটা সংস্কারের পক্ষে ?

  • মতামত নেই (3%, ১ Votes)
  • না (8%, ৩ Votes)
  • হ্যা (89%, ৩৩ Votes)

Total Voters: ৩৭

খালেদা জিয়ার মামলা লড়তে বিদেশি আইনজীবীর কোন প্রয়োজন নেই' বিএনপি নেতা আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের সাথে - আপনিও কি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ১ Votes)
  • না (27%, ৩ Votes)
  • হ্যা (64%, ৭ Votes)

Total Voters: ১১

আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিদেশিদের কোনো উপদেশ বা পরামর্শের প্রয়োজন নেই বলে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্য যৌক্তিক বলে মনে করেন কি?

  • মতামত নাই (7%, ১ Votes)
  • হ্যা (20%, ৩ Votes)
  • না (73%, ১১ Votes)

Total Voters: ১৫

এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব) অলি আহমাদ বলেন, এরশাদকে খুশি করতে বেগম জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের জেলখানায় নেয়া হয়েছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

  • মতামত নাই (8%, ৫ Votes)
  • না (27%, ১৬ Votes)
  • হ্যা (65%, ৩৮ Votes)

Total Voters: ৫৯

আপনি কি মনে করেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহন করবে ?

  • না (13%, ৫৪ Votes)
  • হ্যা (87%, ৩৬২ Votes)

Total Voters: ৪১৬

আপনি কি মনে করেন বিএনপির‘র সহায়ক সরকারের রুপরেখা আদায় করা আন্দোলন ছাড়া সম্ভব ?

  • হ্যা (32%, ৪৫ Votes)
  • না (68%, ৯৫ Votes)

Total Voters: ১৪০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি সম্পূর্ণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপরে নির্ভরশীল, এ বিষয়ে অাপনার মন্তব্য কি ?

  • মন্তব্য নাই (7%, ২ Votes)
  • হ্যা (26%, ৭ Votes)
  • না (67%, ১৮ Votes)

Total Voters: ২৭

আপনি কি মনে করেন নির্ধারিত সময়ের আগে আগাম নির্বাচন হবে?

  • মন্তব্য নাই (7%, ১০ Votes)
  • হ্যা (31%, ৪৬ Votes)
  • না (62%, ৯১ Votes)

Total Voters: ১৪৭

হেফাজতকে বড় রাজনৈতিক দল বানানোর চেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। আপনি কি তার সাথে একমত?

  • মতামত নাই (10%, ৩ Votes)
  • না (34%, ১০ Votes)
  • হ্যা (56%, ১৬ Votes)

Total Voters: ২৯

“আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে দেশে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা কমে যাবে ”সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সাথে কি অাপনি একমত ?

  • মতামত নাই (9%, ৩ Votes)
  • না (32%, ১১ Votes)
  • হ্যা (59%, ২০ Votes)

Total Voters: ৩৪

আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে যারা সংগঠনের নামে দোকান খুলে বসেছে, তাদের ধরে ধরে পুলিশে দিতে হবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের আপনার প্রতিক্রিয়া কি ?

  • মতামত নাই (7%, ৩ Votes)
  • না (10%, ৪ Votes)
  • হ্যা (83%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৪২

ড্রাইভাররা কি আইনের উর্ধে ?

  • মতামত নাই (2%, ১ Votes)
  • হ্যা (14%, ৭ Votes)
  • না (84%, ৪৩ Votes)

Total Voters: ৫১

সার্চ কমিটিতে রাজনৈতিক দলের কেউ নেই- ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?

  • মতামত নাই (5%, ৩ Votes)
  • হ্যা (31%, ১৭ Votes)
  • না (64%, ৩৫ Votes)

Total Voters: ৫৫

ইসি গঠন নিয়ে রস্ট্রপতির সংলাপ রাজনীতিতে একটি ইতিবাচক মাত্রা আসবে বলে কি আপনি মনে করেন ?

  • মতামত নাই (8%, ৭ Votes)
  • না (34%, ৩২ Votes)
  • হ্যা (58%, ৫৪ Votes)

Total Voters: ৯৩

Do you support DD?

  • yes (0%, ০ Votes)
  • no (100%, ০ Votes)

Total Voters:

How Is My Site?

  • Excellent (0%, ০ Votes)
  • Bad (0%, ০ Votes)
  • Can Be Improved (0%, ০ Votes)
  • No Comments (0%, ০ Votes)
  • Good (100%, ০ Votes)

Total Voters: